ঢাকা , বুধবার, ২৯ মে ২০২৪, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
Logo সরকার তারেককে ফিরিয়ে এনে অবশ্যই আদালতের রায় কার্যকর করবে : প্রধানমন্ত্রী Logo ফিলিস্তিনকে রাষ্ট্রের স্বীকৃতির প্রভাব কী হতে পারে? Logo মায়ের ওড়না শাড়ি বানিয়ে পরলেন জেফার, দেখালেন চমক Logo পরিবারসহ বেনজীরের আরও ১১৩ স্থাবর-অস্থাবর সম্পত্তি ক্রোকের নির্দেশ Logo হায়দরাবাদকে গুঁড়িয়ে, উড়িয়ে কলকাতা চ্যাম্পিয়ন Logo ফতুল্লায় রহিম হাজী ও সামেদ আলীর গ্রুপে সংঘর্ষ, ভাংচুর, আহত ১৫ Logo সোনারগাঁয়ে নির্বাচন পরবর্তী প্রতিহিংসায় শতাধিক ফলজ গাছ কর্তন Logo মুছাপুরে স্বর্ণকার অজিতের প্রেমের ফাঁদে সর্বশান্ত প্রবাসী নারী Logo বন্দরে বিভিন্ন মামলার ২ সাঁজাপ্রাপ্ত আসামি গ্রেপ্তার Logo নাসিকের ময়লার গাড়ির ধাক্কায় অন্ত:সত্তা নারীর মৃত্যু, চালক আটক

মুন্সিগঞ্জে ইজিবাইক চালককে হত্যা ও ছিনতাইয়ের রহস্য উদঘাটন হলো যেভাবে

মুন্সিগঞ্জের সিরাজদিখান এলাকায় আলোচিত ইজিবাইক চালক শাহাদাতকে ব্রিজ থেকে ফেলে নির্মমভাবে হত্যা করে ইজিবাইক ছিনতাই ও হত্যাকান্ডের রহস্য উদঘাটন ও হত্যাকান্ডের মূল পরিকল্পনাকারীসহ চক্রের সাত জনকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব-১০। চক্রটি পরিকল্পনা অনুযায়ী ভাড়া করা ইজিবাইক নিয়ে ঈদের দিন ঘুরতে বের হয় চালককে খুন করে ইজিবাইক ছিনতাই করে নিয়ে যায়।

শুক্রবার (২৮ এপ্রিল) দক্ষিণ কেরাণীগঞ্জ ও মুন্সীগঞ্জের বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেফতার ব্যক্তিরা হলেন– হত্যাকাণ্ডের মূল পরিকল্পনাকারী মো. জুয়েল বেপারী, মো. সাজ্জাদ শেখ, মো. ইসমাইল হোসেন, মো. লিমন মাতুব্বর, মো. সোহাগ, রোমান শিকদার ও মো. জাকির।

শনিবার (২৯ এপ্রিল) দুপুরে রাজধানীর কাওরান বাজারে র‌্যাব মিডিয়া সেন্টারে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান র‍্যাব-১০ এর অধিনায়ক অতিরিক্ত ডিআইজি মোহাম্মদ ফরিদ উদ্দিন।

সংবাদ সম্মেলনে র‍্যাব জানায়, গ্রেফতার ব্যক্তিরা ইজিবাইকটি সিরাজদিখানের মো. জাকির হোসেনেরর কাছে বিক্রি করে। আসামিদের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে শনিবার ভোরে সিরাজদিখান থেকে মো. জাকিরকে গ্রেপ্তার করা হয়। জাকিরের গ্যারেজ থেকে ওই ইজিবাইকসহ বিভিন্ন সময়ে ছিনতাই হওয়া আরও পাঁচটি ইজিবাইক উদ্ধার করা হয়েছে।

র‍্যাব-১০ এর অধিনায়ক ফরিদ উদ্দিন বলেন, রাজধানীর কদমতলীর মদিনাবাগ এলাকায় বসবাসকারী শাহাদাত হাওলাদার দক্ষিণ কেরাণীগঞ্জের চুনকুটিয়া এলাকায় একটি গ্যারেজ থেকে ভাড়া করে ইজিবাইক চালিয়ে সংসার চালাতেন। গত ২৩ এপ্রিল বিকেলে প্রতিদিনের মতো ওই গ্যারেজ থেকে ইজিবাইক নিয়ে যাত্রী পরিবহনের বের হন। ওইদিন রাতে তিনি বাসায় না ফিরলে পরিবারের লোকজন মোবাইল ফোনে কল দিয়ে ফোন বন্ধ পান।

অতিরিক্ত ডিআইজি বলেন, ২৪ এপ্রিল সকাল ৯টা ৪৫ মিনিটে শাহাদাতের মোবাইল ফোন থেকে কল দিয়ে অজ্ঞাত এক ব্যক্তি জানান, সিরাজদিখান এলাকার কুচিয়ামোড়া রেলওয়ে উড়ালসেতুর নিচে একটি লাশ পড়ে আছে। সংবাদ পেয়ে শাহাদাতের পরিবারের লোকজন ঘটনাস্থলে যায়। মাথা, মুখ ও কপালে জখম অবস্থায় শাহাদাতের মরদেহ দেখতে পায়। খবর পেয়ে সিরাজদিখান থানা-পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে। এ ঘটনায় মৃতের ভাই শহিদুল ইসলাম জসিম সিরাজদিখান থানায় অজ্ঞাত দুই-তিন জনের বিরুদ্ধে দস্যুতাসহ একটি হত্যা মামলা করেন।

গ্রেপ্তারদের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে র‍্যাব-১০ এর অধিনায়ক আরো জানান, গত ২২ এপ্রিল ঈদের দিন জুয়েল, সাজ্জাদ, লিমন, রোমান, ইসলাইল ও সোহাগ মিলে মাওয়া ঘুরতে যাওয়ার উদ্দেশ্যে ঘণ্টায় ৩২০ টাকা হিসেবে ইজিবাইক ভাড়া করে। বেড়ানোর সময় তারা ইজিবাইকটি ছিনতাই করবে বলে পরিকল্পনা করে। কিন্তু ঈদের দিন হওয়ায় পরের দিন ইজিবাইক ছিনতাইয়ের পরিকল্পনা করে তারা। সে অনুযায়ী ঈদের দিন শাহাদাতকে এক হাজার ৯০০ টাকা ভাড়া দেয়। পরের দিনও ঘুরতে যাবে বলে শাহাদাতের ফোন নম্বর রাখে জুয়েল।

র‌্যাবের এই কর্মকর্তা বলেন, পূর্বপরিকল্পনা অনুযায়ী ২৩ এপ্রিল বিকালে মোবাইল ফোনে কল করে শাহাদাতকে কদমতলী লাবনী রেস্টুরেন্টের সামনে ডেকে আনা হয়। সেখান থেকে জুয়েল, সাজ্জাদ ও লিমন ইজিবাইকে ওঠে। কিছুক্ষণ পর ইসমাইলকে ফোন দিয়ে দক্ষিণ কেরাণীগঞ্জের কালীগঞ্জ, খালপাড় অবস্থান করতে বলে। কালীগঞ্জ এলাকা থেকে ইসমাইলকে সঙ্গে নিয়ে মাওয়ার উদ্দেশ্যে রওনা দেয়। তারা শ্রীনগরসহ আশপাশের বিভিন্ন এলাকায় গিয়ে সময় পার করতে থাকে।

তিনি আরও বলেন, রাত প্রায় ১১টায় সিরাজদিখান কুচিয়ামোড়া রেলওয়ে উড়ালসেতুর ওপরে এসে ইজিবাইক থামিয়ে গল্প করতে থাকে তারা। এক সময় শাহাদাতের মুখ, মাথাসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে এলোপাতাড়ি কিলঘুষি মারতে থাকে। পরে অজ্ঞান হয়ে গেলে শাহাদাতকে ব্রিজের নিচে ফেলে দিয়ে ইজিবাইক নিয়ে পালিয়ে যায়।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

কামাল হোসাইন

হ্যালো আমি কামাল হোসাইন, আমি গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করছি। ২০১৭ সাল থেকে এই পত্রিকার সাথে কাজ করছি। এভাবে এখানে আপনার প্রতিনিধিদের সম্পর্কে কিছু লিখতে পারবেন।
জনপ্রিয় সংবাদ

সরকার তারেককে ফিরিয়ে এনে অবশ্যই আদালতের রায় কার্যকর করবে : প্রধানমন্ত্রী

মুন্সিগঞ্জে ইজিবাইক চালককে হত্যা ও ছিনতাইয়ের রহস্য উদঘাটন হলো যেভাবে

আপডেট সময় ০৩:৩৪:৪২ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ৩০ এপ্রিল ২০২৩

মুন্সিগঞ্জের সিরাজদিখান এলাকায় আলোচিত ইজিবাইক চালক শাহাদাতকে ব্রিজ থেকে ফেলে নির্মমভাবে হত্যা করে ইজিবাইক ছিনতাই ও হত্যাকান্ডের রহস্য উদঘাটন ও হত্যাকান্ডের মূল পরিকল্পনাকারীসহ চক্রের সাত জনকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব-১০। চক্রটি পরিকল্পনা অনুযায়ী ভাড়া করা ইজিবাইক নিয়ে ঈদের দিন ঘুরতে বের হয় চালককে খুন করে ইজিবাইক ছিনতাই করে নিয়ে যায়।

শুক্রবার (২৮ এপ্রিল) দক্ষিণ কেরাণীগঞ্জ ও মুন্সীগঞ্জের বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেফতার ব্যক্তিরা হলেন– হত্যাকাণ্ডের মূল পরিকল্পনাকারী মো. জুয়েল বেপারী, মো. সাজ্জাদ শেখ, মো. ইসমাইল হোসেন, মো. লিমন মাতুব্বর, মো. সোহাগ, রোমান শিকদার ও মো. জাকির।

শনিবার (২৯ এপ্রিল) দুপুরে রাজধানীর কাওরান বাজারে র‌্যাব মিডিয়া সেন্টারে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান র‍্যাব-১০ এর অধিনায়ক অতিরিক্ত ডিআইজি মোহাম্মদ ফরিদ উদ্দিন।

সংবাদ সম্মেলনে র‍্যাব জানায়, গ্রেফতার ব্যক্তিরা ইজিবাইকটি সিরাজদিখানের মো. জাকির হোসেনেরর কাছে বিক্রি করে। আসামিদের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে শনিবার ভোরে সিরাজদিখান থেকে মো. জাকিরকে গ্রেপ্তার করা হয়। জাকিরের গ্যারেজ থেকে ওই ইজিবাইকসহ বিভিন্ন সময়ে ছিনতাই হওয়া আরও পাঁচটি ইজিবাইক উদ্ধার করা হয়েছে।

র‍্যাব-১০ এর অধিনায়ক ফরিদ উদ্দিন বলেন, রাজধানীর কদমতলীর মদিনাবাগ এলাকায় বসবাসকারী শাহাদাত হাওলাদার দক্ষিণ কেরাণীগঞ্জের চুনকুটিয়া এলাকায় একটি গ্যারেজ থেকে ভাড়া করে ইজিবাইক চালিয়ে সংসার চালাতেন। গত ২৩ এপ্রিল বিকেলে প্রতিদিনের মতো ওই গ্যারেজ থেকে ইজিবাইক নিয়ে যাত্রী পরিবহনের বের হন। ওইদিন রাতে তিনি বাসায় না ফিরলে পরিবারের লোকজন মোবাইল ফোনে কল দিয়ে ফোন বন্ধ পান।

অতিরিক্ত ডিআইজি বলেন, ২৪ এপ্রিল সকাল ৯টা ৪৫ মিনিটে শাহাদাতের মোবাইল ফোন থেকে কল দিয়ে অজ্ঞাত এক ব্যক্তি জানান, সিরাজদিখান এলাকার কুচিয়ামোড়া রেলওয়ে উড়ালসেতুর নিচে একটি লাশ পড়ে আছে। সংবাদ পেয়ে শাহাদাতের পরিবারের লোকজন ঘটনাস্থলে যায়। মাথা, মুখ ও কপালে জখম অবস্থায় শাহাদাতের মরদেহ দেখতে পায়। খবর পেয়ে সিরাজদিখান থানা-পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে। এ ঘটনায় মৃতের ভাই শহিদুল ইসলাম জসিম সিরাজদিখান থানায় অজ্ঞাত দুই-তিন জনের বিরুদ্ধে দস্যুতাসহ একটি হত্যা মামলা করেন।

গ্রেপ্তারদের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে র‍্যাব-১০ এর অধিনায়ক আরো জানান, গত ২২ এপ্রিল ঈদের দিন জুয়েল, সাজ্জাদ, লিমন, রোমান, ইসলাইল ও সোহাগ মিলে মাওয়া ঘুরতে যাওয়ার উদ্দেশ্যে ঘণ্টায় ৩২০ টাকা হিসেবে ইজিবাইক ভাড়া করে। বেড়ানোর সময় তারা ইজিবাইকটি ছিনতাই করবে বলে পরিকল্পনা করে। কিন্তু ঈদের দিন হওয়ায় পরের দিন ইজিবাইক ছিনতাইয়ের পরিকল্পনা করে তারা। সে অনুযায়ী ঈদের দিন শাহাদাতকে এক হাজার ৯০০ টাকা ভাড়া দেয়। পরের দিনও ঘুরতে যাবে বলে শাহাদাতের ফোন নম্বর রাখে জুয়েল।

র‌্যাবের এই কর্মকর্তা বলেন, পূর্বপরিকল্পনা অনুযায়ী ২৩ এপ্রিল বিকালে মোবাইল ফোনে কল করে শাহাদাতকে কদমতলী লাবনী রেস্টুরেন্টের সামনে ডেকে আনা হয়। সেখান থেকে জুয়েল, সাজ্জাদ ও লিমন ইজিবাইকে ওঠে। কিছুক্ষণ পর ইসমাইলকে ফোন দিয়ে দক্ষিণ কেরাণীগঞ্জের কালীগঞ্জ, খালপাড় অবস্থান করতে বলে। কালীগঞ্জ এলাকা থেকে ইসমাইলকে সঙ্গে নিয়ে মাওয়ার উদ্দেশ্যে রওনা দেয়। তারা শ্রীনগরসহ আশপাশের বিভিন্ন এলাকায় গিয়ে সময় পার করতে থাকে।

তিনি আরও বলেন, রাত প্রায় ১১টায় সিরাজদিখান কুচিয়ামোড়া রেলওয়ে উড়ালসেতুর ওপরে এসে ইজিবাইক থামিয়ে গল্প করতে থাকে তারা। এক সময় শাহাদাতের মুখ, মাথাসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে এলোপাতাড়ি কিলঘুষি মারতে থাকে। পরে অজ্ঞান হয়ে গেলে শাহাদাতকে ব্রিজের নিচে ফেলে দিয়ে ইজিবাইক নিয়ে পালিয়ে যায়।