ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মালয়েশিয়ায় কাজ পেলেন ৮৪ বাংলাদেশি কর্মী

কাজ পেলেন বৈধ পথে মালয়েশিয়ায় গিয়ে বসে থাকা ৮৪ বাংলাদেশি কর্মী। মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশ হাইকমিশন ও সে দেশের সরকারের সহায়তায় তারা কাজ পেয়েছেন।

গত ২৮ ডিসেম্বর রিক্রুটিং এজেন্সি গ্রিনল্যান্ড ওভারসিজের মাধ্যমে মালয়েশিয়ার ইলোমিনাস ইঞ্জিনিয়ারিং কোম্পানিতে যান তারা। মালয়েশিয়ায় যাওয়ার পর প্রথমে সেরিকামবাগান এলাকায় একমাস তাদের রাখা হয়। পরে তাদের ২০ দিন রাখা হয় কুয়ালালামপুর কেপং এলাকায়। কেপং থেকে স্থানান্তর করে নিয়ে যাওয়া হয় পেনাংএ। সেখানে রাখা হয় ২ মাস। এরপর নিয়ে আসা হয় সুবাং যায়াতে। এখানে রাখা হয় ১২ দিন। কিন্তু এ সময়ের মধ্যে ইলোমিনাস কোম্পানির মালিক তাদের কাজ দিতে ব্যর্থ হয়।

এমন পরিস্থিতিতে ৮৪ কর্মী দিনযাপন করছিলেন। এরই মধ্যে কর্মীরা বাংলাদেশ হাইকমিশনে যোগাযোগ করলে বাংলাদেশ হাইকমিশন তাদের চাকরি খুঁজে পেতে সাহায্য করার প্রতিশ্রুতি দেয়ার পাশাপাশি নিয়োগকর্তার কাছ থেকে প্রত্যেককে ১৫০০ রিঙ্গিত করে নগদ দেয়ার ব্যবস্থা করেন।

এরপর বাংলাদেশ হাইকমিশন মালয়েশিয়ার লেবার ডিপার্টমেন্ট এবং কর্মীদের নিয়োগকর্তার সঙ্গে আলোচনাপূর্বক তাদের পোর্ট ক্লাংস্থ আইয়ামাস ফুড প্রসেসিং কোম্পানিতে নতুন নিয়োগকর্তার অধীনে কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করা হয়।

হাইকমিশন ও মালয়েশিয়া সরকারের সহায়তায় নতুন কাজ পেয়ে কর্মীরা খুশি। নতুন কাজ পাওয়া আকাশ নামের একজন বাংলাদেশি কর্মী, কুয়ালালামপুরে বাংলাদেশ হাইকমিশনের প্রচেষ্টায় কাজ পাওয়ায় প্রশংসা করেন ওই শ্রমিক।

এদিকে ২৫ এপ্রিল বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ হাইকমিশনের শ্রম শাখার ১ম সচিব সুমন চন্দ্র দাশ নতুন কাজে যোগ দেওয়া ৮৪ কর্মীর সরেজমিনে গিয়ে খোঁজ নিয়েছেন।

সুমন চন্দ্র দাশ জানান, পোর্ট ক্লাংস্থ আইয়ামাস ফুড প্রসেসিং কোম্পানিতে নতুন নিয়োগকর্তার অধীনে কর্মীরা কাজ করছেন। তাদের কাজের পরিবেশও ভালো এবং কর্মীরা সেখানে আনন্দচিত্তে কাজ করছেন।

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

কামাল হোসাইন

হ্যালো আমি কামাল হোসাইন, আমি গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করছি। ২০১৭ সাল থেকে এই পত্রিকার সাথে কাজ করছি। এভাবে এখানে আপনার প্রতিনিধিদের সম্পর্কে কিছু লিখতে পারবেন।

মালয়েশিয়ায় কাজ পেলেন ৮৪ বাংলাদেশি কর্মী

আপডেট সময় ০৩:১৮:৩০ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২৬ এপ্রিল ২০২৩

কাজ পেলেন বৈধ পথে মালয়েশিয়ায় গিয়ে বসে থাকা ৮৪ বাংলাদেশি কর্মী। মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশ হাইকমিশন ও সে দেশের সরকারের সহায়তায় তারা কাজ পেয়েছেন।

গত ২৮ ডিসেম্বর রিক্রুটিং এজেন্সি গ্রিনল্যান্ড ওভারসিজের মাধ্যমে মালয়েশিয়ার ইলোমিনাস ইঞ্জিনিয়ারিং কোম্পানিতে যান তারা। মালয়েশিয়ায় যাওয়ার পর প্রথমে সেরিকামবাগান এলাকায় একমাস তাদের রাখা হয়। পরে তাদের ২০ দিন রাখা হয় কুয়ালালামপুর কেপং এলাকায়। কেপং থেকে স্থানান্তর করে নিয়ে যাওয়া হয় পেনাংএ। সেখানে রাখা হয় ২ মাস। এরপর নিয়ে আসা হয় সুবাং যায়াতে। এখানে রাখা হয় ১২ দিন। কিন্তু এ সময়ের মধ্যে ইলোমিনাস কোম্পানির মালিক তাদের কাজ দিতে ব্যর্থ হয়।

এমন পরিস্থিতিতে ৮৪ কর্মী দিনযাপন করছিলেন। এরই মধ্যে কর্মীরা বাংলাদেশ হাইকমিশনে যোগাযোগ করলে বাংলাদেশ হাইকমিশন তাদের চাকরি খুঁজে পেতে সাহায্য করার প্রতিশ্রুতি দেয়ার পাশাপাশি নিয়োগকর্তার কাছ থেকে প্রত্যেককে ১৫০০ রিঙ্গিত করে নগদ দেয়ার ব্যবস্থা করেন।

এরপর বাংলাদেশ হাইকমিশন মালয়েশিয়ার লেবার ডিপার্টমেন্ট এবং কর্মীদের নিয়োগকর্তার সঙ্গে আলোচনাপূর্বক তাদের পোর্ট ক্লাংস্থ আইয়ামাস ফুড প্রসেসিং কোম্পানিতে নতুন নিয়োগকর্তার অধীনে কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করা হয়।

হাইকমিশন ও মালয়েশিয়া সরকারের সহায়তায় নতুন কাজ পেয়ে কর্মীরা খুশি। নতুন কাজ পাওয়া আকাশ নামের একজন বাংলাদেশি কর্মী, কুয়ালালামপুরে বাংলাদেশ হাইকমিশনের প্রচেষ্টায় কাজ পাওয়ায় প্রশংসা করেন ওই শ্রমিক।

এদিকে ২৫ এপ্রিল বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ হাইকমিশনের শ্রম শাখার ১ম সচিব সুমন চন্দ্র দাশ নতুন কাজে যোগ দেওয়া ৮৪ কর্মীর সরেজমিনে গিয়ে খোঁজ নিয়েছেন।

সুমন চন্দ্র দাশ জানান, পোর্ট ক্লাংস্থ আইয়ামাস ফুড প্রসেসিং কোম্পানিতে নতুন নিয়োগকর্তার অধীনে কর্মীরা কাজ করছেন। তাদের কাজের পরিবেশও ভালো এবং কর্মীরা সেখানে আনন্দচিত্তে কাজ করছেন।

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে