ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

২০২৬ ফিফা বিশ্ব কাপের ফর্মেট ঘোষণা

২০২৬ সালের বিশ্বকাপ ফুটবলের ফর্মেটে আমুল পরিবর্তন আনা হয়েছে। মঙ্গলবার ফিফা কাউন্সিলে এই ফর্মেট সম্পর্কে ঘোষণা দেয়া হয়। আগামী বিশ্বকাপ থেকে ৩২টির পরিবর্তে ৪৮টি দল অংশ নিবে।
নতুন ফর্মেট :
বর্ধিত কলেবরের এই টুর্নামেন্টে তিনটি করে দল ১৬টি গ্রুপে বিভক্ত হয়ে খেলার কথা ছিল। কিন্তু সেই চিন্তা থেকে সড়ে এসে চারটি করে দল ১২টি গ্রুপে বিভক্ত হয়ে গ্রুপ পর্বে খেলবে। কাতার টুর্ণামেন্টে যেখানে হয়েছিল ৬৪টি ম্যাচ, এখন সেটা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১০৪ ম্যাচে।
বিশ^কাপ জিততে হলে একটি দেশকে আটটি ম্যাচ খেলতে হবে। ১৯৭৪ সাল থেকে পুরনো ফর্মেটে ফাইনাল পর্যন্ত একটি দলকে সাতটি ম্যাচ খেলতে হতো। প্রতি গ্রুপের শীর্ষ দুই দল ও শীর্ষ আট তৃতীয় স্থান দখলকারী দল নতুন প্রবর্তিত রাউন্ড অব ৩২’এ খেলার যোগ্যতা অর্জন করবে। এর মাধ্যমেই নক আউট পর্ব শুরু হবে। ১৯৯৮ সালের পর থেকে তৃতীয় স্থান অর্জনকারী দলগুলো বাদ হয়ে যেত। তখন ২৪ দল থেকে বাড়িয়ে দলের সংখ্যা ৩২ করা হয়েছিল।
ম্যাচের সংখ্যা :
যুক্তরাষ্ট্র, মেক্সিকো ও কানডায় অনুষ্ঠিতব্য ২০২৬ বিশ^কাপে ম্যাচ সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১০৪টি, যা যুক্তরাষ্ট্রে ১৯৯৪ বিশ^কাপে অনুষ্ঠিত ৫২ ম্যাচের দ্বিগুন। ১৯৯৮ সাল থেকে ২০২২ সাল পর্যন্ত বিশ^কাপে সর্বমোট ৬৪টি ম্যাচ খেলা হতো। এর অর্থ হচ্ছে টেলিভিশন সম্প্রচারের সংখ্যাও বাড়বে, টিকিট বিক্রি বেশী হবে, যার ফলে ফিফার রাজস্ব আয়ও বাড়বে।
পরিবর্তনের কারন :
২০১৭ সালের জানুয়ারিতে ফিফা কাউন্সিলে সিদ্ধান্ত হয়েছিল যুক্তরাস্ট্র, মেক্সিকো ও কানাডায় অনুষ্ঠিতব্য ২০২৬ বিশ^কাপের নির্ধারিত ফর্মেটে পরিবর্তন আনা হবে। যেহেতু দলের সংখ্যা বাড়বে, তাই স্বাভাবিক ভাবেই ফর্মেটেও পরিবর্তন আনাটা জরুরী।
বিশ^কাপের ফাইনালের তারিখ নির্ধারন করা হয়েছে ১৯ জুলাই। মধ্যপ্রাচ্যের গরমের কথা বিবেচনা করে জুন-জুলাইয়ের প্রথাগত সময়ের পরিবর্তে কাতার বিশ^কাপ নভেম্বর-ডিসেম্বরে অনুষ্ঠিত হয়েছিল। কিন্তু ২০২৬ বিশ^কাপ আবারো তার স্বরূপে ফিরেছে, জুন-জুলাইয়ে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে আগামী বিশ^কাপ।
ফিফার এই সভায় ক্লাব বিশ্বকাপ নিয়েও চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হয়েছে। ২০২৫ থেকে প্রতি চার বছর পরপর ৩২টি দল নিয়ে অনুষ্ঠিত হবে ক্লাব বিশ্বকাপ। গত ডিসেম্বরে কাতার বিশ্বকাপ চলার সময়ই ফিফার সভাপতি গিয়ান্নি ইনফান্তিনো এ ব্যাপারে ঘোষণা দিয়েছিলেন। কাল এটিই নিশ্চিত করা হয়েছে। ফিফা জানিয়েছে, ২০২১ থেকে ২০২৪ সাল পর্যন্ত কনফেডারেশন চ্যাম্পিয়ন ক্লাবগুলো ২০২৫ সালের ক্লাব বিশ্বকাপে খেলার সুযোগ পাবে। সে হিসেবে চেলসি ও রিয়াল মাদ্রিদ এরই মধ্যে ক্লাব বিশ্বকাপে খেলার সুযোগ নিশ্চিত করেছে।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

কামাল হোসাইন

হ্যালো আমি কামাল হোসাইন, আমি গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করছি। ২০১৭ সাল থেকে এই পত্রিকার সাথে কাজ করছি। এভাবে এখানে আপনার প্রতিনিধিদের সম্পর্কে কিছু লিখতে পারবেন।
জনপ্রিয় সংবাদ

২০২৬ ফিফা বিশ্ব কাপের ফর্মেট ঘোষণা

আপডেট সময় ০৪:১৭:০১ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৬ মার্চ ২০২৩

২০২৬ সালের বিশ্বকাপ ফুটবলের ফর্মেটে আমুল পরিবর্তন আনা হয়েছে। মঙ্গলবার ফিফা কাউন্সিলে এই ফর্মেট সম্পর্কে ঘোষণা দেয়া হয়। আগামী বিশ্বকাপ থেকে ৩২টির পরিবর্তে ৪৮টি দল অংশ নিবে।
নতুন ফর্মেট :
বর্ধিত কলেবরের এই টুর্নামেন্টে তিনটি করে দল ১৬টি গ্রুপে বিভক্ত হয়ে খেলার কথা ছিল। কিন্তু সেই চিন্তা থেকে সড়ে এসে চারটি করে দল ১২টি গ্রুপে বিভক্ত হয়ে গ্রুপ পর্বে খেলবে। কাতার টুর্ণামেন্টে যেখানে হয়েছিল ৬৪টি ম্যাচ, এখন সেটা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১০৪ ম্যাচে।
বিশ^কাপ জিততে হলে একটি দেশকে আটটি ম্যাচ খেলতে হবে। ১৯৭৪ সাল থেকে পুরনো ফর্মেটে ফাইনাল পর্যন্ত একটি দলকে সাতটি ম্যাচ খেলতে হতো। প্রতি গ্রুপের শীর্ষ দুই দল ও শীর্ষ আট তৃতীয় স্থান দখলকারী দল নতুন প্রবর্তিত রাউন্ড অব ৩২’এ খেলার যোগ্যতা অর্জন করবে। এর মাধ্যমেই নক আউট পর্ব শুরু হবে। ১৯৯৮ সালের পর থেকে তৃতীয় স্থান অর্জনকারী দলগুলো বাদ হয়ে যেত। তখন ২৪ দল থেকে বাড়িয়ে দলের সংখ্যা ৩২ করা হয়েছিল।
ম্যাচের সংখ্যা :
যুক্তরাষ্ট্র, মেক্সিকো ও কানডায় অনুষ্ঠিতব্য ২০২৬ বিশ^কাপে ম্যাচ সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১০৪টি, যা যুক্তরাষ্ট্রে ১৯৯৪ বিশ^কাপে অনুষ্ঠিত ৫২ ম্যাচের দ্বিগুন। ১৯৯৮ সাল থেকে ২০২২ সাল পর্যন্ত বিশ^কাপে সর্বমোট ৬৪টি ম্যাচ খেলা হতো। এর অর্থ হচ্ছে টেলিভিশন সম্প্রচারের সংখ্যাও বাড়বে, টিকিট বিক্রি বেশী হবে, যার ফলে ফিফার রাজস্ব আয়ও বাড়বে।
পরিবর্তনের কারন :
২০১৭ সালের জানুয়ারিতে ফিফা কাউন্সিলে সিদ্ধান্ত হয়েছিল যুক্তরাস্ট্র, মেক্সিকো ও কানাডায় অনুষ্ঠিতব্য ২০২৬ বিশ^কাপের নির্ধারিত ফর্মেটে পরিবর্তন আনা হবে। যেহেতু দলের সংখ্যা বাড়বে, তাই স্বাভাবিক ভাবেই ফর্মেটেও পরিবর্তন আনাটা জরুরী।
বিশ^কাপের ফাইনালের তারিখ নির্ধারন করা হয়েছে ১৯ জুলাই। মধ্যপ্রাচ্যের গরমের কথা বিবেচনা করে জুন-জুলাইয়ের প্রথাগত সময়ের পরিবর্তে কাতার বিশ^কাপ নভেম্বর-ডিসেম্বরে অনুষ্ঠিত হয়েছিল। কিন্তু ২০২৬ বিশ^কাপ আবারো তার স্বরূপে ফিরেছে, জুন-জুলাইয়ে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে আগামী বিশ^কাপ।
ফিফার এই সভায় ক্লাব বিশ্বকাপ নিয়েও চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হয়েছে। ২০২৫ থেকে প্রতি চার বছর পরপর ৩২টি দল নিয়ে অনুষ্ঠিত হবে ক্লাব বিশ্বকাপ। গত ডিসেম্বরে কাতার বিশ্বকাপ চলার সময়ই ফিফার সভাপতি গিয়ান্নি ইনফান্তিনো এ ব্যাপারে ঘোষণা দিয়েছিলেন। কাল এটিই নিশ্চিত করা হয়েছে। ফিফা জানিয়েছে, ২০২১ থেকে ২০২৪ সাল পর্যন্ত কনফেডারেশন চ্যাম্পিয়ন ক্লাবগুলো ২০২৫ সালের ক্লাব বিশ্বকাপে খেলার সুযোগ পাবে। সে হিসেবে চেলসি ও রিয়াল মাদ্রিদ এরই মধ্যে ক্লাব বিশ্বকাপে খেলার সুযোগ নিশ্চিত করেছে।