ঢাকা , শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ৬ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

হুথিদের হামলায় লোহিত সাগরে ডুবে গেল সেই জাহাজ

ইয়েমেনের বিদ্রোহী গোষ্ঠী হুথিদের হামলায় ক্ষতিগ্রস্ত মালবাহী জাহাজ রুবিমার দক্ষিণ লোহিত সাগরে ডুবে গেছে। গত মাসে হুথিদের হামলায় ক্ষতিগ্রস্ত এই জাহাজের ডুবে যাওয়ার তথ্য শনিবার নিশ্চিত করেছে ইয়েমেনের আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত সরকার।

গত নভেম্বরে হুথি বিদ্রোহীরা লোহিত ও কৃষ্ণ সাগরে ইসরায়েল এবং পশ্চিমাদের মালিকানাধীন জাহাজে হামলা শুরু করে। গত ৭ অক্টোবর ইসরায়েল-হামাস যুদ্ধ শুরু হওয়ার পর থেকে ফিলিস্তিনিদের সমর্থনে পশ্চিমা জাহাজে হামলা চালিয়ে আসছে হুথিরা। বাণিজ্যিক জাহাজে হুথিদের হামলা শুরুর পর লোহিত সাগরে জাহাজডুবির প্রথম ঘটনা এটি।

ইয়েমেনের সরকারের বিবৃতিতে বলা হয়েছে, শুক্রবার রাতে জাহাজটি ডুবে গেছে। বিবৃতিতে জাহাজডুবির এই ঘটনায় পরিবেশগত বিপর্যয় সম্পর্কেও সতর্ক করা হয়েছে।

এর আগে, মার্কিন সামরিক বাহিনীর সেন্ট্রাল কমান্ড জানায়, হামলার সময় জাহাজটি ৪১ হাজার টনের বেশি সার পরিবহন করছিল।

ইয়েমেনের হুথি বিদ্রোহীরা গত নভেম্বরের মাঝামাঝি সময় থেকে লোহিত সাগর অঞ্চলে বাণিজ্যিক জাহাজে হামলা চালিয়ে আসছে। গোষ্ঠীটি বলেছে, তারা গাজায় ইসরায়েলি হামলার প্রতিশোধে এবং ফিলিস্তিনিদের প্রতি সমর্থন জানাতে এই হামলা করছে।

সোমবার ইয়েমেনের সরকারের একটি প্রতিনিধি দল বেলিজের পতাকাবাহী ও যুক্তরাজ্যের মালিকানাধীন মালবাহী জাহাজ রুবিমার পরিদর্শন করেছে। পরে তারা জানায়, জাহাজটির কিছু অংশ ডুবে গেছে। কয়েক দিনের মধ্যে সেটি পুরোপুরি ডুবে যেতে পারে।

মার্কিন সামরিক বাহিনী বলেছিল, হুথিদের হামলায় মালবাহী জাহাজটি ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছিল। হামলায় ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় জাহাজটির অবস্থান থেকে আশপাশের ২৯ কিলোমিটার এলাকায় তেল ছড়িয়ে পড়েছে।

শনিবার জাহাজটির ডুবে যাওয়ার বিষয়ে জানতে যোগাযোগ করা হলেও যুক্তরাষ্ট্রের নৌবাহিনীর পঞ্চম নৌবহর কোনও সাড়া দেয়নি বলে জানিয়েছে ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

কামাল হোসাইন

হ্যালো আমি কামাল হোসাইন, আমি গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করছি। ২০১৭ সাল থেকে এই পত্রিকার সাথে কাজ করছি। এভাবে এখানে আপনার প্রতিনিধিদের সম্পর্কে কিছু লিখতে পারবেন।

হুথিদের হামলায় লোহিত সাগরে ডুবে গেল সেই জাহাজ

আপডেট সময় ০৪:১০:২২ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ৩ মার্চ ২০২৪

ইয়েমেনের বিদ্রোহী গোষ্ঠী হুথিদের হামলায় ক্ষতিগ্রস্ত মালবাহী জাহাজ রুবিমার দক্ষিণ লোহিত সাগরে ডুবে গেছে। গত মাসে হুথিদের হামলায় ক্ষতিগ্রস্ত এই জাহাজের ডুবে যাওয়ার তথ্য শনিবার নিশ্চিত করেছে ইয়েমেনের আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত সরকার।

গত নভেম্বরে হুথি বিদ্রোহীরা লোহিত ও কৃষ্ণ সাগরে ইসরায়েল এবং পশ্চিমাদের মালিকানাধীন জাহাজে হামলা শুরু করে। গত ৭ অক্টোবর ইসরায়েল-হামাস যুদ্ধ শুরু হওয়ার পর থেকে ফিলিস্তিনিদের সমর্থনে পশ্চিমা জাহাজে হামলা চালিয়ে আসছে হুথিরা। বাণিজ্যিক জাহাজে হুথিদের হামলা শুরুর পর লোহিত সাগরে জাহাজডুবির প্রথম ঘটনা এটি।

ইয়েমেনের সরকারের বিবৃতিতে বলা হয়েছে, শুক্রবার রাতে জাহাজটি ডুবে গেছে। বিবৃতিতে জাহাজডুবির এই ঘটনায় পরিবেশগত বিপর্যয় সম্পর্কেও সতর্ক করা হয়েছে।

এর আগে, মার্কিন সামরিক বাহিনীর সেন্ট্রাল কমান্ড জানায়, হামলার সময় জাহাজটি ৪১ হাজার টনের বেশি সার পরিবহন করছিল।

ইয়েমেনের হুথি বিদ্রোহীরা গত নভেম্বরের মাঝামাঝি সময় থেকে লোহিত সাগর অঞ্চলে বাণিজ্যিক জাহাজে হামলা চালিয়ে আসছে। গোষ্ঠীটি বলেছে, তারা গাজায় ইসরায়েলি হামলার প্রতিশোধে এবং ফিলিস্তিনিদের প্রতি সমর্থন জানাতে এই হামলা করছে।

সোমবার ইয়েমেনের সরকারের একটি প্রতিনিধি দল বেলিজের পতাকাবাহী ও যুক্তরাজ্যের মালিকানাধীন মালবাহী জাহাজ রুবিমার পরিদর্শন করেছে। পরে তারা জানায়, জাহাজটির কিছু অংশ ডুবে গেছে। কয়েক দিনের মধ্যে সেটি পুরোপুরি ডুবে যেতে পারে।

মার্কিন সামরিক বাহিনী বলেছিল, হুথিদের হামলায় মালবাহী জাহাজটি ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছিল। হামলায় ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় জাহাজটির অবস্থান থেকে আশপাশের ২৯ কিলোমিটার এলাকায় তেল ছড়িয়ে পড়েছে।

শনিবার জাহাজটির ডুবে যাওয়ার বিষয়ে জানতে যোগাযোগ করা হলেও যুক্তরাষ্ট্রের নৌবাহিনীর পঞ্চম নৌবহর কোনও সাড়া দেয়নি বলে জানিয়েছে ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স।