ঢাকা , শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ৬ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

হার দিয়ে সিরিজ শুরু টাইগারদের

সম্ভাবনা জাগিয়েও ইংল্যান্ডের কাছে হেরে ওয়ানডে সিরিজ শুরু হলো টাইগারদের। দুর্বল ওপেনিং ও একের পর এক উইকেট হারিয়ে অল্প পুঁজি পায় টাইগাররা। তবুও বাংলাদেশের দেয়া ২১০ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে ভুগতে থাকে বিশ্বকাপ জয়ী দল ইংল্যান্ড। কিন্তু একা লড়তে থাকা ডেবিড মালানের সেঞ্চুরিতে ভর করে অবশেষে ৩ উইকেট জিতে সিরিজে এগিয়ে গেল ইংল্যান্ড।

মিরপুরের শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে টস জিতে ব্যাটিংয়ে নেমে বড় সংগ্রহের আশা দেখালেও নাজমুল হোসেন শান্তর অর্ধশতকে ভর করে ইংল্যান্ডকে ২১০ রানের টার্গেট দেয় বাংলাদেশ।

২১০ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে প্রথম ওভারেই বিপদে পড়ে ইংলিশরা। সাকিবের করা ইনিংসের প্রথম ওভারের শেষ বলে ৪ রানের মাথায় তামিমের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন জেসন রয়। পাওয়ার প্লে’র শেষের দিকে এসে ইংল্যান্ডের ইনিংসে দ্বিতীয় আঘাত হানেন তাইজুল। দলীয় ৩৫ রানেই ফিল সল্টকে ফেরান দীর্ঘদিন পর ওয়ানডে জার্সিতে ফেরা এই স্পিনার। এক ওভার বাদ দিয়ে ইংল্যান্ডকে আবারও ধাক্কা দেন তাইজুল। ইনিংসের ১৩তম ওভারে জেমস ভিনসকে ফেরান মাত্র ৬ রানেই। ৩ উইকেট হারিয়ে ইংলিশদের রান তখন ৪৫।

এক পর্যায়ে ১০৩ রানে ৫ উইকেটও হারায় দলটি। তবে এরপরই ঘুরে দাঁড়ায় সফরকারীরা। মঈন আলীকে নিয়ে অনেকটা সময় কাটিয়ে দেন ডেভিড মালান। আর তখনই ম্যাচটা ইংল্যান্ডের দিকে ঝুঁকে পড়ছিল। এমন সময় আবার আশা জাগান মিরাজ। মঈন আলীকে আউট করে স্বস্তি ফেরান তিনি।

তবে এক প্রান্ত আগলে রাখেন ডেভিড মালান। মাথা ঠাণ্ডা রেখে দুর্দান্ত এক শতক তুলে নিয়ে ইংল্যান্ডের জয় নিশ্চিত করেই মাঠ ছাড়েন তিনি। বাংলাদেশের পক্ষে তিন উইকেট লাভ করেন তাইজুল, এছাড়া দুইটি উইকেট পান মিরাজ।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

কামাল হোসাইন

হ্যালো আমি কামাল হোসাইন, আমি গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করছি। ২০১৭ সাল থেকে এই পত্রিকার সাথে কাজ করছি। এভাবে এখানে আপনার প্রতিনিধিদের সম্পর্কে কিছু লিখতে পারবেন।

হার দিয়ে সিরিজ শুরু টাইগারদের

আপডেট সময় ০৪:২১:০৪ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২ মার্চ ২০২৩

সম্ভাবনা জাগিয়েও ইংল্যান্ডের কাছে হেরে ওয়ানডে সিরিজ শুরু হলো টাইগারদের। দুর্বল ওপেনিং ও একের পর এক উইকেট হারিয়ে অল্প পুঁজি পায় টাইগাররা। তবুও বাংলাদেশের দেয়া ২১০ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে ভুগতে থাকে বিশ্বকাপ জয়ী দল ইংল্যান্ড। কিন্তু একা লড়তে থাকা ডেবিড মালানের সেঞ্চুরিতে ভর করে অবশেষে ৩ উইকেট জিতে সিরিজে এগিয়ে গেল ইংল্যান্ড।

মিরপুরের শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে টস জিতে ব্যাটিংয়ে নেমে বড় সংগ্রহের আশা দেখালেও নাজমুল হোসেন শান্তর অর্ধশতকে ভর করে ইংল্যান্ডকে ২১০ রানের টার্গেট দেয় বাংলাদেশ।

২১০ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে প্রথম ওভারেই বিপদে পড়ে ইংলিশরা। সাকিবের করা ইনিংসের প্রথম ওভারের শেষ বলে ৪ রানের মাথায় তামিমের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন জেসন রয়। পাওয়ার প্লে’র শেষের দিকে এসে ইংল্যান্ডের ইনিংসে দ্বিতীয় আঘাত হানেন তাইজুল। দলীয় ৩৫ রানেই ফিল সল্টকে ফেরান দীর্ঘদিন পর ওয়ানডে জার্সিতে ফেরা এই স্পিনার। এক ওভার বাদ দিয়ে ইংল্যান্ডকে আবারও ধাক্কা দেন তাইজুল। ইনিংসের ১৩তম ওভারে জেমস ভিনসকে ফেরান মাত্র ৬ রানেই। ৩ উইকেট হারিয়ে ইংলিশদের রান তখন ৪৫।

এক পর্যায়ে ১০৩ রানে ৫ উইকেটও হারায় দলটি। তবে এরপরই ঘুরে দাঁড়ায় সফরকারীরা। মঈন আলীকে নিয়ে অনেকটা সময় কাটিয়ে দেন ডেভিড মালান। আর তখনই ম্যাচটা ইংল্যান্ডের দিকে ঝুঁকে পড়ছিল। এমন সময় আবার আশা জাগান মিরাজ। মঈন আলীকে আউট করে স্বস্তি ফেরান তিনি।

তবে এক প্রান্ত আগলে রাখেন ডেভিড মালান। মাথা ঠাণ্ডা রেখে দুর্দান্ত এক শতক তুলে নিয়ে ইংল্যান্ডের জয় নিশ্চিত করেই মাঠ ছাড়েন তিনি। বাংলাদেশের পক্ষে তিন উইকেট লাভ করেন তাইজুল, এছাড়া দুইটি উইকেট পান মিরাজ।