ঢাকা , শুক্রবার, ১২ এপ্রিল ২০২৪, ২৯ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

হবিগঞ্জে একই সাথে স্বামী-স্ত্রী-সন্তানের লাশ উদ্ধার করলো পুলিশ

হবিগঞ্জের চুনারুঘাটে একই পরিবারের ৩ সদস্যের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। আজ বৃহস্পতিবার (২৩ মার্চ) দুপুরে উপজেলার আহমদাবাদ ইউনিয়নের গাদিশ্যাম গ্রাম থেকে উদ্ধার করা হয় এ তিনজনের লাশ। বিষয়টি নিশ্চিত করে চুনারুঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রাশেদুল হক বলেন, স্থানীয়দের মাধ্যমে খবর পেয়ে চুনারুঘাট থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে স্বামী, স্ত্রী ও এক সন্তানের লাশ উদ্ধার করেছে। এর মধ্যে স্ত্রী ও সন্তানের লাশ ছিল ঘরে এবং স্বামীর লাশ গাছে ঝুলছিল। ধারণা করা হচ্ছে স্ত্রী-সন্তানকে খুন করে নিজে আত্মহত্যা করেছেন পরিবারের কর্তা। ওই পরিবারের প্রধান সজ্জুল হকের (৪৫) লাশ বাড়ির পাশে একটি গাছে ঝুলন্ত ছিল। আর তার স্ত্রী জেসমিন আক্তার (৩৫) ও তাদের বড় ছেলে ইয়াছিন মিয়ার (১০) লাশ ছিল ঘরে। সজ্জুল হক ছিলেন চার সন্তানের পিতা। লাশ তিনটি সুরতহালের পর ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতালে পাঠানো হয়।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

কামাল হোসাইন

হ্যালো আমি কামাল হোসাইন, আমি গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করছি। ২০১৭ সাল থেকে এই পত্রিকার সাথে কাজ করছি। এভাবে এখানে আপনার প্রতিনিধিদের সম্পর্কে কিছু লিখতে পারবেন।

হবিগঞ্জে একই সাথে স্বামী-স্ত্রী-সন্তানের লাশ উদ্ধার করলো পুলিশ

আপডেট সময় ০৩:১৩:৩৬ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৪ মার্চ ২০২৩

হবিগঞ্জের চুনারুঘাটে একই পরিবারের ৩ সদস্যের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। আজ বৃহস্পতিবার (২৩ মার্চ) দুপুরে উপজেলার আহমদাবাদ ইউনিয়নের গাদিশ্যাম গ্রাম থেকে উদ্ধার করা হয় এ তিনজনের লাশ। বিষয়টি নিশ্চিত করে চুনারুঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রাশেদুল হক বলেন, স্থানীয়দের মাধ্যমে খবর পেয়ে চুনারুঘাট থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে স্বামী, স্ত্রী ও এক সন্তানের লাশ উদ্ধার করেছে। এর মধ্যে স্ত্রী ও সন্তানের লাশ ছিল ঘরে এবং স্বামীর লাশ গাছে ঝুলছিল। ধারণা করা হচ্ছে স্ত্রী-সন্তানকে খুন করে নিজে আত্মহত্যা করেছেন পরিবারের কর্তা। ওই পরিবারের প্রধান সজ্জুল হকের (৪৫) লাশ বাড়ির পাশে একটি গাছে ঝুলন্ত ছিল। আর তার স্ত্রী জেসমিন আক্তার (৩৫) ও তাদের বড় ছেলে ইয়াছিন মিয়ার (১০) লাশ ছিল ঘরে। সজ্জুল হক ছিলেন চার সন্তানের পিতা। লাশ তিনটি সুরতহালের পর ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতালে পাঠানো হয়।