ঢাকা , শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ৬ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সিদ্দিকবাজারে বিস্ফোরণ: স্বজনদের কাছে মরদেহ হস্তান্তর

রাজধানীর সিদ্দিক বাজার এলাকায় ভবন বিস্ফোরণে নিহতদের স্বজনদের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে পুলিশের উপস্থিতিতে জেলা প্রশাসকের পক্ষ থেকে আর্থিক সহযোগিতা করে মরদেহগুলো হস্তান্তর করা হচ্ছে। এই পর্যন্ত আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ১১টি মরদেহ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (৭ মার্চ) দিবাগত রাত থেকে ঢাকা জেলা প্রশাসকের পক্ষ থেকে হাসপাতালের জরুরি বিভাগের সামনে অস্থায়ী বুথ বসিয়ে পুলিশের উপস্থিতে মরদেহ হস্তান্তর প্রক্রিয়া চলছে।

ঢাকা জেলার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) কাজী হাফিজুল আমিন জানান, রাত থেকেই মরদেহ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর প্রক্রিয়া শুরু হয়। নিহতের স্বজনদের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে মরদেহ হস্তান্তর করা হচ্ছে। পুলিশের উপস্থিতিতে মরদেহ হস্তান্তর করা হচ্ছে। এই পর্যন্ত স্বজনদের কাছে ১১টি মরদেহ বুঝিয়ে দেওয়া হয়েছে।
এছাড়া অন্যান্য মরদেহগুলো স্বজনরা আবেদন করলেই পুলিশের উপস্থিতিতে পর্যবেক্ষণ করে তাদেরও বুঝিয়ে দেওয়া হবে। এই পর্যন্ত হাসপাতালে আমরা ১৬টি মরদেহের স্বজনদের আবেদন পেয়েছি। আরো ৫টি মরদেহের হস্তান্তর প্রক্রিয়াধীন আছে।

তিনি আরো জানান, বিস্ফোরণে যারা মারা গেছেন তাদের স্বজনদের প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে জেলা প্রশাসকের পক্ষ থেকে ৫০ হাজার টাকা ও আহতদের চিকিৎসার জন্য ২৫ হাজার টাকা করে সহায়তা করা হয়েছে।

এর আগে মঙ্গলবার বিকেল পাঁচটার দিকে গুলিস্তানে বিআরটিসির বাস কাউন্টারের কাছে সিদ্দিকবাজারে ভয়াবহ বিস্ফোরণ ঘটে। এতে পাশাপাশি দুটি বহুতল ভবন ক্ষতিগ্রস্ত হয়। একটি ভবন সাততলা এবং আরেকটি ভবন পাঁচতলা। এর মধ্যে সাততলা ভবনের বেজমেন্ট, প্রথম ও দোতলা বিধ্বস্ত হয়েছে। আর পাঁচতলার নিচতলাও বিধ্বস্ত হয়েছে। ভবনগুলোতে উদ্ধারকাজ চালাচ্ছে ফায়ার সার্ভিসের ইউনিট।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

কামাল হোসাইন

হ্যালো আমি কামাল হোসাইন, আমি গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করছি। ২০১৭ সাল থেকে এই পত্রিকার সাথে কাজ করছি। এভাবে এখানে আপনার প্রতিনিধিদের সম্পর্কে কিছু লিখতে পারবেন।

সিদ্দিকবাজারে বিস্ফোরণ: স্বজনদের কাছে মরদেহ হস্তান্তর

আপডেট সময় ০৩:৫৩:১৯ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ৮ মার্চ ২০২৩

রাজধানীর সিদ্দিক বাজার এলাকায় ভবন বিস্ফোরণে নিহতদের স্বজনদের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে পুলিশের উপস্থিতিতে জেলা প্রশাসকের পক্ষ থেকে আর্থিক সহযোগিতা করে মরদেহগুলো হস্তান্তর করা হচ্ছে। এই পর্যন্ত আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ১১টি মরদেহ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (৭ মার্চ) দিবাগত রাত থেকে ঢাকা জেলা প্রশাসকের পক্ষ থেকে হাসপাতালের জরুরি বিভাগের সামনে অস্থায়ী বুথ বসিয়ে পুলিশের উপস্থিতে মরদেহ হস্তান্তর প্রক্রিয়া চলছে।

ঢাকা জেলার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) কাজী হাফিজুল আমিন জানান, রাত থেকেই মরদেহ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর প্রক্রিয়া শুরু হয়। নিহতের স্বজনদের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে মরদেহ হস্তান্তর করা হচ্ছে। পুলিশের উপস্থিতিতে মরদেহ হস্তান্তর করা হচ্ছে। এই পর্যন্ত স্বজনদের কাছে ১১টি মরদেহ বুঝিয়ে দেওয়া হয়েছে।
এছাড়া অন্যান্য মরদেহগুলো স্বজনরা আবেদন করলেই পুলিশের উপস্থিতিতে পর্যবেক্ষণ করে তাদেরও বুঝিয়ে দেওয়া হবে। এই পর্যন্ত হাসপাতালে আমরা ১৬টি মরদেহের স্বজনদের আবেদন পেয়েছি। আরো ৫টি মরদেহের হস্তান্তর প্রক্রিয়াধীন আছে।

তিনি আরো জানান, বিস্ফোরণে যারা মারা গেছেন তাদের স্বজনদের প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে জেলা প্রশাসকের পক্ষ থেকে ৫০ হাজার টাকা ও আহতদের চিকিৎসার জন্য ২৫ হাজার টাকা করে সহায়তা করা হয়েছে।

এর আগে মঙ্গলবার বিকেল পাঁচটার দিকে গুলিস্তানে বিআরটিসির বাস কাউন্টারের কাছে সিদ্দিকবাজারে ভয়াবহ বিস্ফোরণ ঘটে। এতে পাশাপাশি দুটি বহুতল ভবন ক্ষতিগ্রস্ত হয়। একটি ভবন সাততলা এবং আরেকটি ভবন পাঁচতলা। এর মধ্যে সাততলা ভবনের বেজমেন্ট, প্রথম ও দোতলা বিধ্বস্ত হয়েছে। আর পাঁচতলার নিচতলাও বিধ্বস্ত হয়েছে। ভবনগুলোতে উদ্ধারকাজ চালাচ্ছে ফায়ার সার্ভিসের ইউনিট।