ঢাকা , শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ৬ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সরকারের এখন ডুবন্ত অবস্থা

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, রাতের ভোটের এই অবৈধ সরকারের এখন ডুবন্ত অবস্থা। তারা অথৈ সাগরে হাবু-ডুবু খাচ্ছে। জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে খালেদা জিয়াসহ দলের নেতাকর্মীদের মুক্তির দাবিতে গতকাল এক মানববন্ধনে তিনি এসব কথা বলেন।
রিজভী বলেন, জিয়াউর রহমান, যিনি বহুদলীয় গণতন্ত্র চালু করেছিলেন নতুনভাবে তার বিরুদ্ধে গত বৃহস্পতিবার একটি মামলা হয়েছে। মামলাটা প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে দেওয়া হয়েছে। কেন দেওয়া হয়েছে? কারণ এই সরকারের এখন ডুবু ডুবু অবস্থা। এই ডুবন্ত অবস্থা থেকে জনগণকে একটু যদি বিভ্রান্ত করা যায় এজন্য।
তিনি বলেন, পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন স্বচ্ছ নির্বাচন হবে, বিদেশিরা যে যাই বলুক। বিদেশিদের সঙ্গে আপনাদের শত্রুতা কেন, যে বার বার বিভিন্ন দেশ বলছে যে, স্বচ্ছ নির্বাচন দিতে হবে, অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন দিতে হবে। তাহলে বিদেশিরা যে যাই বলুক স্বচ্ছ নির্বাচন হবে এই কথাই তো রহস্যজনক। পররাষ্ট্রমন্ত্রী আপনার এই কথার মধ্যেই ইঙ্গিত বহন করে-আপনাদের উদ্দেশ্য অশুভ।
প্রধান নির্বাচন কমিশনারের (সিইসি) সমালোচনা করে রিজভী বলেন, সিইসি গত পরশুদিন বলেছেন, কালো টাকা দিলে নিয়েন, কিন্তু স্বাধীনভাবে ভোট দিয়েন। একটা সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠানের প্রধান এই কথা বলতে পারেন? আপনি শেখ হাসিনার আদর্শে অনুপ্রাণিত, আপনি আওয়ামী চেতনায় অনুপ্রাণিত, আপনি লুটপাটের চেতনায় অনুপ্রাণিত, আপনি দুর্নীতির চেতনায় অনুপ্রাণিত তাই কালো টাকা নেয়ার কথা আপনি বলতে পারেন।
জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দলের সহ-সভাপতি ফখরুল ইসলাম রবিনের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বিএনপির মীর সরাফত আলী সপু, আবদুল খালেক, যুবদলের শফিকুল ইসলাম মিল্টন, গিয়াস উদ্দিন মামুন, মহিলা দলের হেলেন জেরিন খান, তাঁতী দলের আবুল কালাম আজাদসহ বিভিন্ন অঙ্গসংগঠনের নেতারা বক্তব্য রাখেন।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

কামাল হোসাইন

হ্যালো আমি কামাল হোসাইন, আমি গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করছি। ২০১৭ সাল থেকে এই পত্রিকার সাথে কাজ করছি। এভাবে এখানে আপনার প্রতিনিধিদের সম্পর্কে কিছু লিখতে পারবেন।

সরকারের এখন ডুবন্ত অবস্থা

আপডেট সময় ০৪:০০:৪০ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৩ মে ২০২৩

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, রাতের ভোটের এই অবৈধ সরকারের এখন ডুবন্ত অবস্থা। তারা অথৈ সাগরে হাবু-ডুবু খাচ্ছে। জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে খালেদা জিয়াসহ দলের নেতাকর্মীদের মুক্তির দাবিতে গতকাল এক মানববন্ধনে তিনি এসব কথা বলেন।
রিজভী বলেন, জিয়াউর রহমান, যিনি বহুদলীয় গণতন্ত্র চালু করেছিলেন নতুনভাবে তার বিরুদ্ধে গত বৃহস্পতিবার একটি মামলা হয়েছে। মামলাটা প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে দেওয়া হয়েছে। কেন দেওয়া হয়েছে? কারণ এই সরকারের এখন ডুবু ডুবু অবস্থা। এই ডুবন্ত অবস্থা থেকে জনগণকে একটু যদি বিভ্রান্ত করা যায় এজন্য।
তিনি বলেন, পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন স্বচ্ছ নির্বাচন হবে, বিদেশিরা যে যাই বলুক। বিদেশিদের সঙ্গে আপনাদের শত্রুতা কেন, যে বার বার বিভিন্ন দেশ বলছে যে, স্বচ্ছ নির্বাচন দিতে হবে, অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন দিতে হবে। তাহলে বিদেশিরা যে যাই বলুক স্বচ্ছ নির্বাচন হবে এই কথাই তো রহস্যজনক। পররাষ্ট্রমন্ত্রী আপনার এই কথার মধ্যেই ইঙ্গিত বহন করে-আপনাদের উদ্দেশ্য অশুভ।
প্রধান নির্বাচন কমিশনারের (সিইসি) সমালোচনা করে রিজভী বলেন, সিইসি গত পরশুদিন বলেছেন, কালো টাকা দিলে নিয়েন, কিন্তু স্বাধীনভাবে ভোট দিয়েন। একটা সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠানের প্রধান এই কথা বলতে পারেন? আপনি শেখ হাসিনার আদর্শে অনুপ্রাণিত, আপনি আওয়ামী চেতনায় অনুপ্রাণিত, আপনি লুটপাটের চেতনায় অনুপ্রাণিত, আপনি দুর্নীতির চেতনায় অনুপ্রাণিত তাই কালো টাকা নেয়ার কথা আপনি বলতে পারেন।
জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দলের সহ-সভাপতি ফখরুল ইসলাম রবিনের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বিএনপির মীর সরাফত আলী সপু, আবদুল খালেক, যুবদলের শফিকুল ইসলাম মিল্টন, গিয়াস উদ্দিন মামুন, মহিলা দলের হেলেন জেরিন খান, তাঁতী দলের আবুল কালাম আজাদসহ বিভিন্ন অঙ্গসংগঠনের নেতারা বক্তব্য রাখেন।