ঢাকা , মঙ্গলবার, ০৫ মার্চ ২০২৪, ২১ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
Logo বন্দরে শ্লীলতাহানির ভিডিও ধারণ করে যুবতীকে ধর্ষণ, প্রধান আসামি গ্রেপ্তার Logo আড়াইহাজারে রেস্টুরেন্ট থেকে অপত্তিকর অবস্থায় ১৬ কিশোর কিশোরী আটক Logo সোনারগাঁয়ে ট্রাক চাপায় যুবক নিহত, চালক আটক Logo সোনারগাঁয়ের আলোচিত সাধন মিয়া হত্যা মামলায় দুইজনের মৃত্যুদন্ড ও একজনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড Logo বন্দর ১নং খেয়াঘাট মাঝি সমিতির নির্বাচন সম্পন্ন Logo আসন্ন উপজেলা নির্বাচনে মাকসুদ চেয়ারম্যান’র মত বিনিময় সভা ও উঠান বৈঠক Logo না’গঞ্জ জেলা জা’পা সভাপতি সানুর নাম ভাঙ্গিয়ে সুমন প্রধানের অপকর্ম রুখবে কে? Logo হুথিদের হামলায় লোহিত সাগরে ডুবে গেল সেই জাহাজ Logo রাতের লাইভের নেপথ্যের কারণ জানালেন তাহসান-ফারিণ Logo যেকোনো পরিস্থিতি মোকাবেলায় সশস্ত্র বাহিনীকে সক্ষম করে তোলা হচ্ছে : প্রধানমন্ত্রী

সড়কে প্রাণ ঝরলো বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীসহ ৩ জনের

যশোরে সড়ক দুর্ঘটনায় যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (যবিপ্রবি) শিক্ষার্থীসহ তিন জন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন দুই জন। রবিবার বিকাল সোয়া ৪টার দিকে চুড়ামনকাটি-চৌগাছা সড়কে একটি যাত্রীবাহী ভ্যানকে সামনে থেকে ট্রাক ধাক্কা দিলে এ হতাহতের ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন– যবপ্রবির পেট্রোলিয়াম অ্যান্ড মাইনিং ইঞ্জিনিয়ারিং ডিপার্টমেন্টের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী ফারজানা আক্তার সুমি, যশোর সদরের কমলাপুর গ্রামের আমজাদ হোসেনের স্ত্রী জোহরা বেগম (৫০) এবং বাগডাঙ্গা গ্রামের আব্দুল হাকিমের ছেলে ভ্যানচালক মাসুম (৩৫)।

স্থানীয় লোকজন ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, বিএডিসির একটি ট্রাকের (যশোর-ট-১৩৯৪) সঙ্গে চৌগাছামুখী যাত্রীবাহী ভ্যানের এই সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলেই ভ্যানচালক মাসুম ও গৃহবধূ জোহরা বেগম প্রাণ হারান। আহত অবস্থায় জোহরা বেগমের স্বামী আমজাদ হোসেন, যবিপ্রবির শিক্ষার্থী সুমি, মোতাসিন বিল্লাহকে স্থানীয়রা যশোর জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে চিকিৎসক সুমিকে মৃত ঘোষণা করেন।

জানতে চাইলে যবিপ্রবির সহকারী পরিচালক (জনসংযোগ) আব্দুর রশিদ বলেন, ‘সড়ক দুর্ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ফারজানা আক্তার সুমি নিহত হয়েছেন। অপর শিক্ষার্থী শারীরিক শিক্ষা ও ক্রীড়াবিজ্ঞান বিভাগের তৃতীয় বর্ষের ছাত্র মোতাসিন বিল্লাহ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।’

নিহত জোহরার স্বামী আমজাদ হোসেন জানান, তারা যশোর থেকে ভ্যানে বাড়ি ফিরছিলেন। চুড়ামনকাটি রেললাইন পার হয়ে ইটভাটার সামনে পৌঁছালে সামনে থেকে একটি ট্রাক তাদের ভ্যানকে চাপা দেয়। এতে তার স্ত্রী, ভ্যানচালকসহ তিন জন নিহত হন।

এদিকে, সড়ক দুর্ঘটনার খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে পুলিশ। ঘটনার পর প্রায় আধঘণ্টা যান চলাচল বন্ধ থাকে। পুলিশ দুর্ঘটনাকবলিত ট্র্যাকটি আটক করেছে।

যশোর কোতয়ালি থানার ওসি তাজুল ইসলাম সাংবাদিকদের বলেছেন, সড়ক দুর্ঘটনায় তিন জন মারা গেছেন। পুলিশ ঘটনাস্থলে গেছে। ট্রাকটি আটক হয়েছে।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

কামাল হোসাইন

হ্যালো আমি কামাল হোসাইন, আমি গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করছি। ২০১৭ সাল থেকে এই পত্রিকার সাথে কাজ করছি। এভাবে এখানে আপনার প্রতিনিধিদের সম্পর্কে কিছু লিখতে পারবেন।
জনপ্রিয় সংবাদ

বন্দরে শ্লীলতাহানির ভিডিও ধারণ করে যুবতীকে ধর্ষণ, প্রধান আসামি গ্রেপ্তার

সড়কে প্রাণ ঝরলো বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীসহ ৩ জনের

আপডেট সময় ০৩:৪৮:০৯ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২ জানুয়ারী ২০২৩

যশোরে সড়ক দুর্ঘটনায় যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (যবিপ্রবি) শিক্ষার্থীসহ তিন জন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন দুই জন। রবিবার বিকাল সোয়া ৪টার দিকে চুড়ামনকাটি-চৌগাছা সড়কে একটি যাত্রীবাহী ভ্যানকে সামনে থেকে ট্রাক ধাক্কা দিলে এ হতাহতের ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন– যবপ্রবির পেট্রোলিয়াম অ্যান্ড মাইনিং ইঞ্জিনিয়ারিং ডিপার্টমেন্টের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী ফারজানা আক্তার সুমি, যশোর সদরের কমলাপুর গ্রামের আমজাদ হোসেনের স্ত্রী জোহরা বেগম (৫০) এবং বাগডাঙ্গা গ্রামের আব্দুল হাকিমের ছেলে ভ্যানচালক মাসুম (৩৫)।

স্থানীয় লোকজন ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, বিএডিসির একটি ট্রাকের (যশোর-ট-১৩৯৪) সঙ্গে চৌগাছামুখী যাত্রীবাহী ভ্যানের এই সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলেই ভ্যানচালক মাসুম ও গৃহবধূ জোহরা বেগম প্রাণ হারান। আহত অবস্থায় জোহরা বেগমের স্বামী আমজাদ হোসেন, যবিপ্রবির শিক্ষার্থী সুমি, মোতাসিন বিল্লাহকে স্থানীয়রা যশোর জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে চিকিৎসক সুমিকে মৃত ঘোষণা করেন।

জানতে চাইলে যবিপ্রবির সহকারী পরিচালক (জনসংযোগ) আব্দুর রশিদ বলেন, ‘সড়ক দুর্ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ফারজানা আক্তার সুমি নিহত হয়েছেন। অপর শিক্ষার্থী শারীরিক শিক্ষা ও ক্রীড়াবিজ্ঞান বিভাগের তৃতীয় বর্ষের ছাত্র মোতাসিন বিল্লাহ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।’

নিহত জোহরার স্বামী আমজাদ হোসেন জানান, তারা যশোর থেকে ভ্যানে বাড়ি ফিরছিলেন। চুড়ামনকাটি রেললাইন পার হয়ে ইটভাটার সামনে পৌঁছালে সামনে থেকে একটি ট্রাক তাদের ভ্যানকে চাপা দেয়। এতে তার স্ত্রী, ভ্যানচালকসহ তিন জন নিহত হন।

এদিকে, সড়ক দুর্ঘটনার খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে পুলিশ। ঘটনার পর প্রায় আধঘণ্টা যান চলাচল বন্ধ থাকে। পুলিশ দুর্ঘটনাকবলিত ট্র্যাকটি আটক করেছে।

যশোর কোতয়ালি থানার ওসি তাজুল ইসলাম সাংবাদিকদের বলেছেন, সড়ক দুর্ঘটনায় তিন জন মারা গেছেন। পুলিশ ঘটনাস্থলে গেছে। ট্রাকটি আটক হয়েছে।