ঢাকা , শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ৬ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সড়কে প্রাণ গেলো ৩ জনের

ঢাকা-মঠবাড়িয়া-পিরোজপুর সড়কের শংকরপাশা এলাকায় নসিমন নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বাসে ধাক্কা দেওয়ায় তিন জন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় নসিমনের আরও ছয় যাত্রী গুরুতর আহত হয়েছেন।

পিরোজপুর সদর থানার ওসি আ. জা. মো. মাসুদুজ্জামান জানান, শুক্রবার (১৭ মার্চ) বিকালে পিরোজপুর সদর উপজেলার শংকরপাশা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন– বাগেরহাটের মোড়েলগঞ্জ উপজেলার চন্দ্রা এলাকার আল-আমিন মল্লিকের ছেলে শাহিন মল্লিক (১৮); এই জেলার মোড়েলগঞ্জ উপজেলার চোমরা এলাকার আবুল হোসেন মিনার ছেলে ইয়াসিন মিনা (২২) এবং কচুয়া উপজেলার সাইনবোর্ড এলাকার বাসিন্দা বাদশা (১৭)।

দুর্ঘটনায় আহত পিরোজপুর জেলা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন সিরাজুল ইসলাম শিমলু জানান, বাগেরহাটের কচুয়া উপজেলার সাইনবোর্ড এলাকা থেকে একটি বিয়েবাড়িতে ক্যাটারিং সার্ভিসে খাবার পরিবেশনের জন্য তারা ২১ জন নসিমনে পিরোজপুরের ভান্ডারিয়ায় যাচ্ছিলেন। নসিমনটি পিরোজপুরের শংকরপাশা এলাকায় পৌঁছালে ডানপাশের চাকাটি ফেটে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বিপরীত দিক দিয়ে আসা একটি বাসে ধাক্কা দেয়। এতে ঘটনাস্থলে দুই জন নিহত হন এবং হাসপাতালে নিয়ে গেলে আরও একজন মারা যান। এ ছাড়া গুরুতর আহত কয়েকজনকে খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

পিরোজপুর জেলা হাসপাতালের চিকিৎসক ডা. মো. রফিকুল ইসলাম জানান, সড়ক দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত অবস্থায় কয়েকজনকে হাসপাতালে নিয়ে আসা হলে তাদের মধ্যে একজন মারা যান। গুরুতর আহত দুই জনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

পিরোজপুর সদর থানার ওসি জানান, এ ঘটনায় নিহতদের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। দুর্ঘটনায় শিকার নসিমন ও বাস জব্দ করা হয়েছে।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

কামাল হোসাইন

হ্যালো আমি কামাল হোসাইন, আমি গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করছি। ২০১৭ সাল থেকে এই পত্রিকার সাথে কাজ করছি। এভাবে এখানে আপনার প্রতিনিধিদের সম্পর্কে কিছু লিখতে পারবেন।

সড়কে প্রাণ গেলো ৩ জনের

আপডেট সময় ০৪:০৬:২৪ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৮ মার্চ ২০২৩

ঢাকা-মঠবাড়িয়া-পিরোজপুর সড়কের শংকরপাশা এলাকায় নসিমন নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বাসে ধাক্কা দেওয়ায় তিন জন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় নসিমনের আরও ছয় যাত্রী গুরুতর আহত হয়েছেন।

পিরোজপুর সদর থানার ওসি আ. জা. মো. মাসুদুজ্জামান জানান, শুক্রবার (১৭ মার্চ) বিকালে পিরোজপুর সদর উপজেলার শংকরপাশা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন– বাগেরহাটের মোড়েলগঞ্জ উপজেলার চন্দ্রা এলাকার আল-আমিন মল্লিকের ছেলে শাহিন মল্লিক (১৮); এই জেলার মোড়েলগঞ্জ উপজেলার চোমরা এলাকার আবুল হোসেন মিনার ছেলে ইয়াসিন মিনা (২২) এবং কচুয়া উপজেলার সাইনবোর্ড এলাকার বাসিন্দা বাদশা (১৭)।

দুর্ঘটনায় আহত পিরোজপুর জেলা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন সিরাজুল ইসলাম শিমলু জানান, বাগেরহাটের কচুয়া উপজেলার সাইনবোর্ড এলাকা থেকে একটি বিয়েবাড়িতে ক্যাটারিং সার্ভিসে খাবার পরিবেশনের জন্য তারা ২১ জন নসিমনে পিরোজপুরের ভান্ডারিয়ায় যাচ্ছিলেন। নসিমনটি পিরোজপুরের শংকরপাশা এলাকায় পৌঁছালে ডানপাশের চাকাটি ফেটে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বিপরীত দিক দিয়ে আসা একটি বাসে ধাক্কা দেয়। এতে ঘটনাস্থলে দুই জন নিহত হন এবং হাসপাতালে নিয়ে গেলে আরও একজন মারা যান। এ ছাড়া গুরুতর আহত কয়েকজনকে খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

পিরোজপুর জেলা হাসপাতালের চিকিৎসক ডা. মো. রফিকুল ইসলাম জানান, সড়ক দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত অবস্থায় কয়েকজনকে হাসপাতালে নিয়ে আসা হলে তাদের মধ্যে একজন মারা যান। গুরুতর আহত দুই জনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

পিরোজপুর সদর থানার ওসি জানান, এ ঘটনায় নিহতদের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। দুর্ঘটনায় শিকার নসিমন ও বাস জব্দ করা হয়েছে।