ঢাকা , মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪, ৪ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

শান্ত-মুশফিকের ব্যাটিং ঝড়ে ফের শীর্ষে সিলেট

এক ম্যাচ পরই জয়ে ফিরল সিলেট সিক্সার্স। নিজেদের নবম ম্যাচে সিলেট হারায় চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সকে।

নবম ম্যাচে সপ্তম জয়ে ১৪ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় পজিশন থেকে শীর্ষে উঠে গেল সিলেট। ৮ ম্যাচে ১২ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষস্থান হারিয়ে দ্বিতীয় পজিশনে নেমে গেল সাকিব আল হাসানের নেতৃত্বাধীন ফরচুন বরিশাল।

শনিবার সিলেট আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে টস জিতে প্রথমে ব্যাট করে শুভাগত হোমের ব্যাটিং তাণ্ডবে ৬ উইকেটে ১৭৪ রানের চ্যালেঞ্জিং স্কোর গড়ে চট্টগ্রাম। দলের হয়ে ২৯ বলে তিন চার আর তিন ছক্কায় ৫৪ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলেন চট্টগ্রামের অধিনায়ক শুভাগত।

এছাড়া ৪০ বলে ৫২ রান করে ফেরেন মেহেদি মারুফ। ২৭ বলে ৩৪ রান করেন আফিফ হোসেন।

টার্গেট তাড়া করতে নেমে রীতিমতো ব্যাটিং তাণ্ডব শুরু করেন সিলেটের তারকা ওপেনার নাজমুল হোসেন শান্ত। তাওহিদ হৃদয়ের সঙ্গে ৮.১ ওভারে ৬৩ রানের জুটি গড়েন শান্ত। ১৮ বলে ১৫ রান করে ফেরেন হৃদয়।

এরপর মুশফিকুর রহিমের সঙ্গে ২৮ বলে ফের ৪৭ রানের জুটি গড়েন শান্ত। দলীয় ১১০ রানে দলকে জয়ের পথে একধাপ এগিয়ে দিয়ে আউট হন এই তরুণ ওপেনার। সাজঘরে ফেরার আগে ৪৪ বলে ৬টি চার আর দুটি ছক্কার সাহায্যে দলীয় সর্বোচ্চ ৬০ রান করে ফেরেন শান্ত।

শান্ত আউট হওয়ার পর মুশফিকুর রহিমের ২৬ বলের অপরাজিত ৪১ আর রায়ান বুলের ১৬ বলের ৪১ রানের ঝড়ো ইনিংসের সুবাদে ১২ বল হাতে রেখেই ৭ উইকেটের বড় জয় পায় সিলেট।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

কামাল হোসাইন

হ্যালো আমি কামাল হোসাইন, আমি গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করছি। ২০১৭ সাল থেকে এই পত্রিকার সাথে কাজ করছি। এভাবে এখানে আপনার প্রতিনিধিদের সম্পর্কে কিছু লিখতে পারবেন।

শান্ত-মুশফিকের ব্যাটিং ঝড়ে ফের শীর্ষে সিলেট

আপডেট সময় ০৪:০৮:২২ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৯ জানুয়ারী ২০২৩

এক ম্যাচ পরই জয়ে ফিরল সিলেট সিক্সার্স। নিজেদের নবম ম্যাচে সিলেট হারায় চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সকে।

নবম ম্যাচে সপ্তম জয়ে ১৪ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় পজিশন থেকে শীর্ষে উঠে গেল সিলেট। ৮ ম্যাচে ১২ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষস্থান হারিয়ে দ্বিতীয় পজিশনে নেমে গেল সাকিব আল হাসানের নেতৃত্বাধীন ফরচুন বরিশাল।

শনিবার সিলেট আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে টস জিতে প্রথমে ব্যাট করে শুভাগত হোমের ব্যাটিং তাণ্ডবে ৬ উইকেটে ১৭৪ রানের চ্যালেঞ্জিং স্কোর গড়ে চট্টগ্রাম। দলের হয়ে ২৯ বলে তিন চার আর তিন ছক্কায় ৫৪ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলেন চট্টগ্রামের অধিনায়ক শুভাগত।

এছাড়া ৪০ বলে ৫২ রান করে ফেরেন মেহেদি মারুফ। ২৭ বলে ৩৪ রান করেন আফিফ হোসেন।

টার্গেট তাড়া করতে নেমে রীতিমতো ব্যাটিং তাণ্ডব শুরু করেন সিলেটের তারকা ওপেনার নাজমুল হোসেন শান্ত। তাওহিদ হৃদয়ের সঙ্গে ৮.১ ওভারে ৬৩ রানের জুটি গড়েন শান্ত। ১৮ বলে ১৫ রান করে ফেরেন হৃদয়।

এরপর মুশফিকুর রহিমের সঙ্গে ২৮ বলে ফের ৪৭ রানের জুটি গড়েন শান্ত। দলীয় ১১০ রানে দলকে জয়ের পথে একধাপ এগিয়ে দিয়ে আউট হন এই তরুণ ওপেনার। সাজঘরে ফেরার আগে ৪৪ বলে ৬টি চার আর দুটি ছক্কার সাহায্যে দলীয় সর্বোচ্চ ৬০ রান করে ফেরেন শান্ত।

শান্ত আউট হওয়ার পর মুশফিকুর রহিমের ২৬ বলের অপরাজিত ৪১ আর রায়ান বুলের ১৬ বলের ৪১ রানের ঝড়ো ইনিংসের সুবাদে ১২ বল হাতে রেখেই ৭ উইকেটের বড় জয় পায় সিলেট।