ঢাকা , মঙ্গলবার, ০৫ মার্চ ২০২৪, ২১ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
Logo বন্দরে শ্লীলতাহানির ভিডিও ধারণ করে যুবতীকে ধর্ষণ, প্রধান আসামি গ্রেপ্তার Logo আড়াইহাজারে রেস্টুরেন্ট থেকে অপত্তিকর অবস্থায় ১৬ কিশোর কিশোরী আটক Logo সোনারগাঁয়ে ট্রাক চাপায় যুবক নিহত, চালক আটক Logo সোনারগাঁয়ের আলোচিত সাধন মিয়া হত্যা মামলায় দুইজনের মৃত্যুদন্ড ও একজনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড Logo বন্দর ১নং খেয়াঘাট মাঝি সমিতির নির্বাচন সম্পন্ন Logo আসন্ন উপজেলা নির্বাচনে মাকসুদ চেয়ারম্যান’র মত বিনিময় সভা ও উঠান বৈঠক Logo না’গঞ্জ জেলা জা’পা সভাপতি সানুর নাম ভাঙ্গিয়ে সুমন প্রধানের অপকর্ম রুখবে কে? Logo হুথিদের হামলায় লোহিত সাগরে ডুবে গেল সেই জাহাজ Logo রাতের লাইভের নেপথ্যের কারণ জানালেন তাহসান-ফারিণ Logo যেকোনো পরিস্থিতি মোকাবেলায় সশস্ত্র বাহিনীকে সক্ষম করে তোলা হচ্ছে : প্রধানমন্ত্রী

শহরে ডায়াগনস্টিক সেন্টারে ভুয়া ডাক্তার আটক, কারাদণ্ড

নারায়ণগঞ্জ শহরের একটি ডায়াগনোস্টিক সেন্টারে অভিযান চালিয়ে মোস্তফা মিজানুর রহমান নামে এক ভূয়া এমবিবিএস ডাক্তারকে গ্রেপ্তার করে এক বছরের কারাদন্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমান আদালত।

 

একই সাথে পরীক্ষা নিরীক্ষার কাজে মেয়াদোত্তীর্ণ ঔষধ ব্যবহারসহ নানা অনিয়মের অভিযোগে ওই প্রতিষ্ঠানকে এক লাখ টাকা জরিমানা করা হয়।

 

জাতীয় নিরাপত্তা গোয়েন্দা সংস্থা (এনএসআই) এর তথ্যের ভিত্তিতে আইনশৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণ ও অপরাধ কার্যক্রম প্রতিরোধে রবিবার দুপুরে শহরের ডিআইটি মার্কেটে সুপার ডায়াগনোস্টিক সেন্টারে এই অভিযান পরিচালিত হয়।

জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট নুশরাত আরা খানমের নেতৃত্বে পরিচালিত ভ্রাম্যমান আদালতের এই অভিযানে জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয়ের মেডিক্যাল অফিসারসহ অন্যান্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

অভিযান চলাকালে ডায়াগনোস্টিক সেন্টারের ভূয়া এমবিবিএস ডিগ্রীধারী সনোলোজিস্ট কনসালটেন্ট ডাক্তার মোস্তফা মিজানুর রহমানের কাছে তার সনদপত্র দেখতে চান নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট।

পরে তিনি বৈধ কোন সনদপত্র দেখাতে না পারাসহ নিজের অপরাধ স্বীকার করলে নির্বাহী ম্যাজিষ্টেট তাকে গ্রেপ্তারে নির্দেশ দিয়ে এক বছরের কারাদন্ড প্রদান করেন।

এছাড়া ডায়াগনোস্টিক সেন্টারটিতে আলট্রাসনোগ্রাম বিভাগে নিয়োগ প্রক্রিয়ায় নানা অনিয়মের পাশাপাশি পরীক্ষা নিরীক্ষার কাজে মেয়াদোত্তীর্ণ ঔষধ ব্যবহারেরও প্রমান পাওয়া যায়। এসব অপরাধে এর মালিককে এক লাখ টাকা জরিমানাসহ প্রতিষ্ঠানটি সীলগালা করে দেন নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট।

অভিযান শেষে প্রেস ব্রিফিংয়ে জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয়ের মেডিক্যাল অফিসার ডা. শহীদুল ইসলাম স্বপন জানান, গ্রেপ্তারকৃত ভূয়া ডাক্তার মিজানুর রহমান নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার সিদ্ধিরগঞ্জ থানার মিজমিজি পাইনাদি এলাকার বাসিন্দা।

এমবিবিএস পাশা না করেও তিনি দীর্ঘদিন ধরে বিভিন্ন ডায়াগনস্টিক সেন্টারে সনোলোজিস্ট কনসালটেন্ট পরিচয়ে চাকরি নিয়ে রোগীদের বিভিন্ন পরীক্ষা নিরীক্ষার ভুল রিপোর্ট দিয়ে আসছেন।

ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযানে গ্রেপ্তারের পর তিনি নিজের অপরাধ স্বীকার করলে নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট তাকে সাজা প্রদান করেন।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

কামাল হোসাইন

হ্যালো আমি কামাল হোসাইন, আমি গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করছি। ২০১৭ সাল থেকে এই পত্রিকার সাথে কাজ করছি। এভাবে এখানে আপনার প্রতিনিধিদের সম্পর্কে কিছু লিখতে পারবেন।
জনপ্রিয় সংবাদ

বন্দরে শ্লীলতাহানির ভিডিও ধারণ করে যুবতীকে ধর্ষণ, প্রধান আসামি গ্রেপ্তার

শহরে ডায়াগনস্টিক সেন্টারে ভুয়া ডাক্তার আটক, কারাদণ্ড

আপডেট সময় ০৩:০৯:১৬ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২২ মে ২০২৩

নারায়ণগঞ্জ শহরের একটি ডায়াগনোস্টিক সেন্টারে অভিযান চালিয়ে মোস্তফা মিজানুর রহমান নামে এক ভূয়া এমবিবিএস ডাক্তারকে গ্রেপ্তার করে এক বছরের কারাদন্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমান আদালত।

 

একই সাথে পরীক্ষা নিরীক্ষার কাজে মেয়াদোত্তীর্ণ ঔষধ ব্যবহারসহ নানা অনিয়মের অভিযোগে ওই প্রতিষ্ঠানকে এক লাখ টাকা জরিমানা করা হয়।

 

জাতীয় নিরাপত্তা গোয়েন্দা সংস্থা (এনএসআই) এর তথ্যের ভিত্তিতে আইনশৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণ ও অপরাধ কার্যক্রম প্রতিরোধে রবিবার দুপুরে শহরের ডিআইটি মার্কেটে সুপার ডায়াগনোস্টিক সেন্টারে এই অভিযান পরিচালিত হয়।

জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট নুশরাত আরা খানমের নেতৃত্বে পরিচালিত ভ্রাম্যমান আদালতের এই অভিযানে জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয়ের মেডিক্যাল অফিসারসহ অন্যান্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

অভিযান চলাকালে ডায়াগনোস্টিক সেন্টারের ভূয়া এমবিবিএস ডিগ্রীধারী সনোলোজিস্ট কনসালটেন্ট ডাক্তার মোস্তফা মিজানুর রহমানের কাছে তার সনদপত্র দেখতে চান নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট।

পরে তিনি বৈধ কোন সনদপত্র দেখাতে না পারাসহ নিজের অপরাধ স্বীকার করলে নির্বাহী ম্যাজিষ্টেট তাকে গ্রেপ্তারে নির্দেশ দিয়ে এক বছরের কারাদন্ড প্রদান করেন।

এছাড়া ডায়াগনোস্টিক সেন্টারটিতে আলট্রাসনোগ্রাম বিভাগে নিয়োগ প্রক্রিয়ায় নানা অনিয়মের পাশাপাশি পরীক্ষা নিরীক্ষার কাজে মেয়াদোত্তীর্ণ ঔষধ ব্যবহারেরও প্রমান পাওয়া যায়। এসব অপরাধে এর মালিককে এক লাখ টাকা জরিমানাসহ প্রতিষ্ঠানটি সীলগালা করে দেন নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট।

অভিযান শেষে প্রেস ব্রিফিংয়ে জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয়ের মেডিক্যাল অফিসার ডা. শহীদুল ইসলাম স্বপন জানান, গ্রেপ্তারকৃত ভূয়া ডাক্তার মিজানুর রহমান নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার সিদ্ধিরগঞ্জ থানার মিজমিজি পাইনাদি এলাকার বাসিন্দা।

এমবিবিএস পাশা না করেও তিনি দীর্ঘদিন ধরে বিভিন্ন ডায়াগনস্টিক সেন্টারে সনোলোজিস্ট কনসালটেন্ট পরিচয়ে চাকরি নিয়ে রোগীদের বিভিন্ন পরীক্ষা নিরীক্ষার ভুল রিপোর্ট দিয়ে আসছেন।

ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযানে গ্রেপ্তারের পর তিনি নিজের অপরাধ স্বীকার করলে নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট তাকে সাজা প্রদান করেন।