ঢাকা , মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪, ৪ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

শর্তসাপেক্ষে গণঅবস্থান কর্মসূচির অনুমতি দেওয়া হয়েছে: ডিএমপি কমিশনার

অনেকগুলো রাজনৈতিক দল অনুমতি চেয়েছে। আমি তাদেরকে সড়কে যানচলাচল বন্ধ না করে কর্মসূচি পালনের অনুরোধ করেছি বলে জানিয়েছেন ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) কমিশনার খন্দকার গোলাম ফারুক।

মঙ্গলবার (১০ জানুয়ারি) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় ডিএমপি কমিশনারের সঙ্গে বিএনপির একটি প্রতিনিধি দল সাক্ষাৎ করে। পরে নিজ কার্যালয়ে ডিএমপি কমিশনার সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন।

কমিশনার বলেন, কয়েকটি রাজনৈতিক দলের বুধবার (১১ জানুয়ারি) অবস্থান কর্মসূচি আছে। আমি সব রাজনৈতিক দলের রাজনৈতিক কর্মসূচির প্রতি শ্রদ্ধা রেখে আপনাদের (সাংবাদিক) মাধ্যমে রাজনৈতিক দলগুলোকে অনুরোধ করছি কাল অফিসিয়াল ডে (কর্মদিবস), লাখ লাখ লোক অফিসে যাতায়াত করবে। আমি তাদেরকে বিশেষভাবে অনুরোধ করেছি, তারা যেন কোনও প্রকারে রাস্তা বন্ধ না করে। বিশেষ করে জনদুর্ভোগ সৃষ্টি হয় এমন কোনও রাজনৈতিক কর্মসূচি না পালন করে।

তিনি বলেন, তারা যানচলাচল স্বাভাবিক রেখে জনদুর্ভোগ কমিয়ে তাদের রাজনৈতিক কর্মসূচি পালন করবেন, এই প্রত্যাশা করি। তারা আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হবেন এবং ডিএমপির তরফ থেকে সব ধরনের নিরাপত্তাসহ অন্যান্য সহযোগিতা পাবেন।

অনুমতি দেওয়ার বিষয়ে জানতে চাইলে ডিএমপি কমিশনার বলেন, যারা যারা অনুমতি চেয়েছেন তাদেরকে আমরা বলেছি—আপনারা ফুটপাতে বসে আপনাদের অবস্থান কর্মসূচি পালন করবেন। রাস্তা বন্ধ করে যেন জনগণের দুর্ভোগ না হয়, গাড়িঘোড়া বন্ধ না হয়। অফিসে যাতায়াত করা লোকদের যেনও কষ্ট না হয়। সেজন্য আমরা তাদেরকে অনুমতি দিয়েছি।

গণঅবস্থানের জন্য স্থান নির্ধারণ করা হয়েছে কিনা এবং সেই স্থান অতিক্রম করে রাস্তায় অবস্থান করলে কী ধরনের পদক্ষেপ নিবেন—এমন প্রশ্নের জবাবে ডিএমপি কমিশনার বলেন, তাদের (রাজনৈতিক দলগুলোকে) বলেছি, যানচলাচল স্বাভাবিক রাখতে হবে। কোনও দল যদি যানচলাচল স্বাভাবিক রাখতে না পারে তার দায়দায়িত্ব তারা বহন করবে।

এসময় ডিএমপির অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (ক্রাইম) একেএম হাফিজ আক্তার ও যুগ্ম কমিশনার (অপারেশন) বিপ্লব কুমার সরকারসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

কামাল হোসাইন

হ্যালো আমি কামাল হোসাইন, আমি গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করছি। ২০১৭ সাল থেকে এই পত্রিকার সাথে কাজ করছি। এভাবে এখানে আপনার প্রতিনিধিদের সম্পর্কে কিছু লিখতে পারবেন।

শর্তসাপেক্ষে গণঅবস্থান কর্মসূচির অনুমতি দেওয়া হয়েছে: ডিএমপি কমিশনার

আপডেট সময় ০৪:৩১:৫৬ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১১ জানুয়ারী ২০২৩

অনেকগুলো রাজনৈতিক দল অনুমতি চেয়েছে। আমি তাদেরকে সড়কে যানচলাচল বন্ধ না করে কর্মসূচি পালনের অনুরোধ করেছি বলে জানিয়েছেন ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) কমিশনার খন্দকার গোলাম ফারুক।

মঙ্গলবার (১০ জানুয়ারি) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় ডিএমপি কমিশনারের সঙ্গে বিএনপির একটি প্রতিনিধি দল সাক্ষাৎ করে। পরে নিজ কার্যালয়ে ডিএমপি কমিশনার সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন।

কমিশনার বলেন, কয়েকটি রাজনৈতিক দলের বুধবার (১১ জানুয়ারি) অবস্থান কর্মসূচি আছে। আমি সব রাজনৈতিক দলের রাজনৈতিক কর্মসূচির প্রতি শ্রদ্ধা রেখে আপনাদের (সাংবাদিক) মাধ্যমে রাজনৈতিক দলগুলোকে অনুরোধ করছি কাল অফিসিয়াল ডে (কর্মদিবস), লাখ লাখ লোক অফিসে যাতায়াত করবে। আমি তাদেরকে বিশেষভাবে অনুরোধ করেছি, তারা যেন কোনও প্রকারে রাস্তা বন্ধ না করে। বিশেষ করে জনদুর্ভোগ সৃষ্টি হয় এমন কোনও রাজনৈতিক কর্মসূচি না পালন করে।

তিনি বলেন, তারা যানচলাচল স্বাভাবিক রেখে জনদুর্ভোগ কমিয়ে তাদের রাজনৈতিক কর্মসূচি পালন করবেন, এই প্রত্যাশা করি। তারা আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হবেন এবং ডিএমপির তরফ থেকে সব ধরনের নিরাপত্তাসহ অন্যান্য সহযোগিতা পাবেন।

অনুমতি দেওয়ার বিষয়ে জানতে চাইলে ডিএমপি কমিশনার বলেন, যারা যারা অনুমতি চেয়েছেন তাদেরকে আমরা বলেছি—আপনারা ফুটপাতে বসে আপনাদের অবস্থান কর্মসূচি পালন করবেন। রাস্তা বন্ধ করে যেন জনগণের দুর্ভোগ না হয়, গাড়িঘোড়া বন্ধ না হয়। অফিসে যাতায়াত করা লোকদের যেনও কষ্ট না হয়। সেজন্য আমরা তাদেরকে অনুমতি দিয়েছি।

গণঅবস্থানের জন্য স্থান নির্ধারণ করা হয়েছে কিনা এবং সেই স্থান অতিক্রম করে রাস্তায় অবস্থান করলে কী ধরনের পদক্ষেপ নিবেন—এমন প্রশ্নের জবাবে ডিএমপি কমিশনার বলেন, তাদের (রাজনৈতিক দলগুলোকে) বলেছি, যানচলাচল স্বাভাবিক রাখতে হবে। কোনও দল যদি যানচলাচল স্বাভাবিক রাখতে না পারে তার দায়দায়িত্ব তারা বহন করবে।

এসময় ডিএমপির অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (ক্রাইম) একেএম হাফিজ আক্তার ও যুগ্ম কমিশনার (অপারেশন) বিপ্লব কুমার সরকারসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।