ঢাকা , মঙ্গলবার, ০৫ মার্চ ২০২৪, ২১ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
Logo বন্দরে শ্লীলতাহানির ভিডিও ধারণ করে যুবতীকে ধর্ষণ, প্রধান আসামি গ্রেপ্তার Logo আড়াইহাজারে রেস্টুরেন্ট থেকে অপত্তিকর অবস্থায় ১৬ কিশোর কিশোরী আটক Logo সোনারগাঁয়ে ট্রাক চাপায় যুবক নিহত, চালক আটক Logo সোনারগাঁয়ের আলোচিত সাধন মিয়া হত্যা মামলায় দুইজনের মৃত্যুদন্ড ও একজনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড Logo বন্দর ১নং খেয়াঘাট মাঝি সমিতির নির্বাচন সম্পন্ন Logo আসন্ন উপজেলা নির্বাচনে মাকসুদ চেয়ারম্যান’র মত বিনিময় সভা ও উঠান বৈঠক Logo না’গঞ্জ জেলা জা’পা সভাপতি সানুর নাম ভাঙ্গিয়ে সুমন প্রধানের অপকর্ম রুখবে কে? Logo হুথিদের হামলায় লোহিত সাগরে ডুবে গেল সেই জাহাজ Logo রাতের লাইভের নেপথ্যের কারণ জানালেন তাহসান-ফারিণ Logo যেকোনো পরিস্থিতি মোকাবেলায় সশস্ত্র বাহিনীকে সক্ষম করে তোলা হচ্ছে : প্রধানমন্ত্রী

রমজান জুড়ে বিএনপির কর্মসূচি ঘোষণা

রমজানের রাজনৈতিক কর্মসূচি ঘোষণার ইচ্ছা না থাকলেও সরকার বিএনপিকে কর্মসূচি দিতে বাধ্য করেছে বলে মন্তব্য করেছেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

শুক্রবার (২৪ মার্চ) সন্ধ্যায় রাজধানীর লেডিস ক্লাবে ইফতার পূর্বক বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

প্রথম রমজানে এতিম শিশু -ওলামা আলেমদের সঙ্গে করেন বিএনপি নেতারা।

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, দেশে সাধারন মানুষ কষ্টের মধ্যে দিন যাপন করছে। প্রতিটি জিনিসের দাম বেড়েছে। দেশে এমন সরকার রয়েছে যারা নির্বাচিত নন। বিএনপি আন্দোলন করছে একটি তত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচনের দাবিতে। সারা দেশে রমজানের মাঝেও আন্দোলন চলমান থাকবে।

কর্মসূচি ঘোষণা করতে গিয়ে বিএনপির মহাসচিব বলেন, গ্যাস বিদ্যুৎসহ নিত্যপণ্যের দাম বৃদ্ধির দাবিতে ১ এপ্রিল সকল জেলায় ২ টা – ৪ টা অবস্থান কর্মসূচি । ৮ এপ্রিল ৩ টা থেকে ৫ টা পর্যন্ত মহানগর, জেলা, উপজেলা ও থানা পর্যায়ে অবস্থান কর্মসুচি। ৯-১৩ই এপ্রিল প্রচারপত্র বিলি, মানববন্ধন ও অবস্থান কর্মসূচি। এছাড়া ২৮ মার্চ থেকে ২০ এপ্রিল পর্যন্ত সভা সমাবেশ মতবিনিময় সভা বিভিন্ন জেলা ও মহানগরে কর্মসূচি পালিত হবে।

এ সময় তিনি বলেন, গনতন্ত্র পুনরুদ্ধারের যা আনন্দোলন চলমান রাখতে চাই।

এদিকে প্রথম ইফতারি কর্মসূচি বিশৃঙ্খলা তৈরি হয়। আমন্ত্রিত অতিথিদের অনেকেই বসার আসন এবং ইফতার সামগ্রী পাননি বলে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। গাজীপুর জেলা ওলামা দলের সদস্য সচিব ক্ষোভ প্রকাশ করে সাংবাদিকদের বলেন, আমরা আমন্ত্রিত হয়ে ইফতার মাহফিলে এসেছি কিন্তু বসার জায়গা পাইনি, ইফতার ও অন্যদের সাথে শেয়ার করে নিতে হয়েছে।

উলামা দলের সভাপতি মাওলানা নেসারুল হক ইফতারপূর্বক মোনাজাত পরিচালনা করেন।

ইফতার মাহফিলে অন্যদের মধ্যে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন, আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী, মির্জা আব্বাস, নজরুল ইসলাম খান, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির আহবায়ক আব্দুস সালাম, উত্তরের আহ্বায়ক আমানুল্লাহ আমান, দক্ষিণ বিএনপি’র সদস্য ইশরাক হোসেন, বিএনপির কেন্দ্রীয় প্রচার সম্পাদক শহিদ উদ্দিন চৌধুরী এনি, তথ্য গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক রিয়াজ উদ্দিন নসু, সহ দপ্তর সম্পাদক তাইফুল ইসলাম টিপু, ওলামা দলের সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম, স্বেচ্ছাসেবক দলের সাবেক সহ সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ মোর্শেদ আলম প্রমুখ অংশ নেন।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

কামাল হোসাইন

হ্যালো আমি কামাল হোসাইন, আমি গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করছি। ২০১৭ সাল থেকে এই পত্রিকার সাথে কাজ করছি। এভাবে এখানে আপনার প্রতিনিধিদের সম্পর্কে কিছু লিখতে পারবেন।
জনপ্রিয় সংবাদ

বন্দরে শ্লীলতাহানির ভিডিও ধারণ করে যুবতীকে ধর্ষণ, প্রধান আসামি গ্রেপ্তার

রমজান জুড়ে বিএনপির কর্মসূচি ঘোষণা

আপডেট সময় ০৩:১৬:৩৪ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৫ মার্চ ২০২৩

রমজানের রাজনৈতিক কর্মসূচি ঘোষণার ইচ্ছা না থাকলেও সরকার বিএনপিকে কর্মসূচি দিতে বাধ্য করেছে বলে মন্তব্য করেছেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

শুক্রবার (২৪ মার্চ) সন্ধ্যায় রাজধানীর লেডিস ক্লাবে ইফতার পূর্বক বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

প্রথম রমজানে এতিম শিশু -ওলামা আলেমদের সঙ্গে করেন বিএনপি নেতারা।

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, দেশে সাধারন মানুষ কষ্টের মধ্যে দিন যাপন করছে। প্রতিটি জিনিসের দাম বেড়েছে। দেশে এমন সরকার রয়েছে যারা নির্বাচিত নন। বিএনপি আন্দোলন করছে একটি তত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচনের দাবিতে। সারা দেশে রমজানের মাঝেও আন্দোলন চলমান থাকবে।

কর্মসূচি ঘোষণা করতে গিয়ে বিএনপির মহাসচিব বলেন, গ্যাস বিদ্যুৎসহ নিত্যপণ্যের দাম বৃদ্ধির দাবিতে ১ এপ্রিল সকল জেলায় ২ টা – ৪ টা অবস্থান কর্মসূচি । ৮ এপ্রিল ৩ টা থেকে ৫ টা পর্যন্ত মহানগর, জেলা, উপজেলা ও থানা পর্যায়ে অবস্থান কর্মসুচি। ৯-১৩ই এপ্রিল প্রচারপত্র বিলি, মানববন্ধন ও অবস্থান কর্মসূচি। এছাড়া ২৮ মার্চ থেকে ২০ এপ্রিল পর্যন্ত সভা সমাবেশ মতবিনিময় সভা বিভিন্ন জেলা ও মহানগরে কর্মসূচি পালিত হবে।

এ সময় তিনি বলেন, গনতন্ত্র পুনরুদ্ধারের যা আনন্দোলন চলমান রাখতে চাই।

এদিকে প্রথম ইফতারি কর্মসূচি বিশৃঙ্খলা তৈরি হয়। আমন্ত্রিত অতিথিদের অনেকেই বসার আসন এবং ইফতার সামগ্রী পাননি বলে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। গাজীপুর জেলা ওলামা দলের সদস্য সচিব ক্ষোভ প্রকাশ করে সাংবাদিকদের বলেন, আমরা আমন্ত্রিত হয়ে ইফতার মাহফিলে এসেছি কিন্তু বসার জায়গা পাইনি, ইফতার ও অন্যদের সাথে শেয়ার করে নিতে হয়েছে।

উলামা দলের সভাপতি মাওলানা নেসারুল হক ইফতারপূর্বক মোনাজাত পরিচালনা করেন।

ইফতার মাহফিলে অন্যদের মধ্যে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন, আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী, মির্জা আব্বাস, নজরুল ইসলাম খান, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির আহবায়ক আব্দুস সালাম, উত্তরের আহ্বায়ক আমানুল্লাহ আমান, দক্ষিণ বিএনপি’র সদস্য ইশরাক হোসেন, বিএনপির কেন্দ্রীয় প্রচার সম্পাদক শহিদ উদ্দিন চৌধুরী এনি, তথ্য গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক রিয়াজ উদ্দিন নসু, সহ দপ্তর সম্পাদক তাইফুল ইসলাম টিপু, ওলামা দলের সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম, স্বেচ্ছাসেবক দলের সাবেক সহ সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ মোর্শেদ আলম প্রমুখ অংশ নেন।