ঢাকা , শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ৬ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

যেখানে আ.লীগ, সেখানেই গণতন্ত্র নেই: খন্দকার মোশাররফ

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেছেন, ‘যেখানে আওয়ামী লীগ, সেখানে গণতন্ত্রের কোনও অবস্থান নেই। তারা গণতন্ত্রকে হত্যা করেছে। আর যেখানে বিএনপি, সেখানে গণতন্ত্র পুনর্প্রতিষ্ঠার ইতিহাস।’

শুক্রবার (২০ জানুয়ারি) সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ৮৭তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে ‘বাংলাদেশ ও গণতন্ত্র’ শীর্ষক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেন, ‘এদেশের মানুষ আজ আওয়াজ তুলেছে, যারা গণতন্ত্রকে হত্যা করেছে, তারা সেটা ফিরিয়ে দিতে পারবে না। যারা দেশের অর্থনীতিকে লুটপাট করে ধ্বংস করে দিয়েছে, তারা সেটাকে মেরামত করতে পারবে না। তারা বিচার ব্যবস্থাকে দলীয়করণ করে সম্পূর্ণ ধ্বংস করে দিয়েছে।’

‘আওয়ামী লীগ শুনে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী’ মন্তব্য করে তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল মুক্তিযোদ্ধাদের দল, আর আওয়ামী লীগ হলো মুক্তিযুদ্ধের সমর্থক দল।’

বিএনপির এই জ্যেষ্ঠ রাজনীতিবিদ বলেন, ‘আজকে আমরা যে সংকটে আছি, তা হলো দেশে গণতন্ত্র নাই, মানুষের ভোটের অধিকার নাই, অর্থনীতি ধ্বংস; এর সবকিছু একটার সঙ্গে আরেকটা সম্পৃক্ত। তার জন্য জাতি আজ গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার করার জন্য সংগ্রামে লিপ্ত এবং এর জন্য সরকারকে বিদায় করা ছাড়া আর বিকল্প কিছু নাই। অতএব সরকারকে বিদায় করার জন্য আমরা ১০ দফা দিয়েছি।‘

‘রাষ্ট্রনায়ক হিসেবে জিয়াউর রহমানের সফলতা ঘণ্টার পর ঘণ্টা বলা যাবে’ মন্তব্য করে খন্দকার মোশাররফ বলেন, ‘জিয়াউর রহমান আমাদের পূর্ণাঙ্গ জাতিসত্তার পরিচয় এনে দিয়েছিলেন। উনি আমাদের যে সামাজতান্ত্রিক অর্থনীতি ছিল, তার থেকে মুক্তবাজার অর্থনীতিতে নিয়ে গেছেন। আজ আমাদের যে রেমিট্যান্স এবং বিদেশে রফতানি থেকে যে আয়; এই দুটি ক্ষেত্রই জিয়াউর রহমান শুরু করে গিয়েছিলেন।’

আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান মে. জে. (অব.) সৈয়দ মুহাম্মদ ইবরাহিম। সভার সভাপতিত্ব করেন বিএসপিপি অধ্যাপক ডা. এ জেড এম জাহিদ হোসেন।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

কামাল হোসাইন

হ্যালো আমি কামাল হোসাইন, আমি গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করছি। ২০১৭ সাল থেকে এই পত্রিকার সাথে কাজ করছি। এভাবে এখানে আপনার প্রতিনিধিদের সম্পর্কে কিছু লিখতে পারবেন।

যেখানে আ.লীগ, সেখানেই গণতন্ত্র নেই: খন্দকার মোশাররফ

আপডেট সময় ০৩:০৬:০৭ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২১ জানুয়ারী ২০২৩

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেছেন, ‘যেখানে আওয়ামী লীগ, সেখানে গণতন্ত্রের কোনও অবস্থান নেই। তারা গণতন্ত্রকে হত্যা করেছে। আর যেখানে বিএনপি, সেখানে গণতন্ত্র পুনর্প্রতিষ্ঠার ইতিহাস।’

শুক্রবার (২০ জানুয়ারি) সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ৮৭তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে ‘বাংলাদেশ ও গণতন্ত্র’ শীর্ষক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেন, ‘এদেশের মানুষ আজ আওয়াজ তুলেছে, যারা গণতন্ত্রকে হত্যা করেছে, তারা সেটা ফিরিয়ে দিতে পারবে না। যারা দেশের অর্থনীতিকে লুটপাট করে ধ্বংস করে দিয়েছে, তারা সেটাকে মেরামত করতে পারবে না। তারা বিচার ব্যবস্থাকে দলীয়করণ করে সম্পূর্ণ ধ্বংস করে দিয়েছে।’

‘আওয়ামী লীগ শুনে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী’ মন্তব্য করে তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল মুক্তিযোদ্ধাদের দল, আর আওয়ামী লীগ হলো মুক্তিযুদ্ধের সমর্থক দল।’

বিএনপির এই জ্যেষ্ঠ রাজনীতিবিদ বলেন, ‘আজকে আমরা যে সংকটে আছি, তা হলো দেশে গণতন্ত্র নাই, মানুষের ভোটের অধিকার নাই, অর্থনীতি ধ্বংস; এর সবকিছু একটার সঙ্গে আরেকটা সম্পৃক্ত। তার জন্য জাতি আজ গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার করার জন্য সংগ্রামে লিপ্ত এবং এর জন্য সরকারকে বিদায় করা ছাড়া আর বিকল্প কিছু নাই। অতএব সরকারকে বিদায় করার জন্য আমরা ১০ দফা দিয়েছি।‘

‘রাষ্ট্রনায়ক হিসেবে জিয়াউর রহমানের সফলতা ঘণ্টার পর ঘণ্টা বলা যাবে’ মন্তব্য করে খন্দকার মোশাররফ বলেন, ‘জিয়াউর রহমান আমাদের পূর্ণাঙ্গ জাতিসত্তার পরিচয় এনে দিয়েছিলেন। উনি আমাদের যে সামাজতান্ত্রিক অর্থনীতি ছিল, তার থেকে মুক্তবাজার অর্থনীতিতে নিয়ে গেছেন। আজ আমাদের যে রেমিট্যান্স এবং বিদেশে রফতানি থেকে যে আয়; এই দুটি ক্ষেত্রই জিয়াউর রহমান শুরু করে গিয়েছিলেন।’

আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান মে. জে. (অব.) সৈয়দ মুহাম্মদ ইবরাহিম। সভার সভাপতিত্ব করেন বিএসপিপি অধ্যাপক ডা. এ জেড এম জাহিদ হোসেন।