ঢাকা , শনিবার, ২২ জুন ২০২৪, ৮ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মেসির গোল জেতাতে না পারলেও চ্যাম্পিয়ন পিএসজি

হার এড়ালেই হলো, চ্যাম্পিয়ন। পিএসজির টানা দ্বিতীয় শিরোপা জয়ে এটাই ছিল সহজ সমীকরণ। তবে জেতার জন্যই খেলেছিল তারা। লিওনেল মেসির গোলে এগিয়েও গিয়েছিল। কিন্তু ড্র করতে হলো পরে গোল খেয়ে। ১-১ গোলে স্ত্রাসবুর্গের মাঠে ড্র করেও এক ম্যাচ হাতে রেখে লিগ ওয়ানের ট্রফি নিশ্চিত করলো প্যারিসের ক্লাব।

এনিয়ে ১১তম লিগ ওয়ান জিতলো পিএসজি। সবচেয়ে বেশি শিরোপা জয়ের কৃতিত্ব এখন এককভাবে তাদের। সেন্ত এতিয়েন্নেকে (১০) পেছনে ফেলে ফ্রান্সের সবচেয়ে সফল ফুটবল ক্লাব তারা।

বক্সের বাইরে থেকে ১৫ মিনিটে নেওয়া মর্গান স্যানসনের শট ঠেকান পিএসজি গোলকিপার জিয়ানলুইজি দোনারুমা। সাত মিনিট পর হাবিব দিয়ালোর শট ইতালির স্টপারকে পরাস্ত করলেও বল লাগে গোলপোস্টে।

স্ত্রাসবুর্গের দুটি সুযোগ নষ্টের সুযোগ নিয়ে এগিয়ে যেতে পারেনি পিএসজিও। ২৯ মিনিটে মেসির ক্রসে বক্সের মধ্যে নেওয়া রেনাতো সানচেসের শট সেভ করেন স্বাগতিক গোলকিপার মাৎজ সেলস।

দুই দলই হতাশা নিয়ে প্রথমার্ধ শেষ করে। বিরতির পর ফিরে এসে গোলের জন্য মরিয়া ছিল পিএসজি। ৫৯ মিনিটে কিলিয়ান এমবাপ্পের গুরুত্বপূর্ণ পাসে বাঁ পায়ের শটে উঁচু দিয়ে জাল কাঁপান মেসি।

বদলি হয়ে মাঠে নামার দুই মিনিট পরই সাবেক ক্লাবের জালে বল জড়ান কেভিন গামেইরো। ৭৯তম মিনিটে বক্সের মধ্যে প্রথমে তিনি পাস দেন স্যানসনকে, যার প্রথম প্রচেষ্টা দোনারুমা ফিরিয়ে দিলে খুব কাছ থেকে লক্ষ্যভেদ করেন ৯ নম্বর জার্সিধারী।

আর কোনও গোল হয়নি। তবে ওই এক পয়েন্টই পিএসজির জয়ের জন্য যথেষ্ট ছিল। ৩৭ ম্যাচে ৮৫ পয়েন্ট তাদের। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী লেন্স (৮১) চার পয়েন্ট পেছনে।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

কামাল হোসাইন

হ্যালো আমি কামাল হোসাইন, আমি গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করছি। ২০১৭ সাল থেকে এই পত্রিকার সাথে কাজ করছি। এভাবে এখানে আপনার প্রতিনিধিদের সম্পর্কে কিছু লিখতে পারবেন।

মেসির গোল জেতাতে না পারলেও চ্যাম্পিয়ন পিএসজি

আপডেট সময় ০৩:৪৮:২৬ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৮ মে ২০২৩

হার এড়ালেই হলো, চ্যাম্পিয়ন। পিএসজির টানা দ্বিতীয় শিরোপা জয়ে এটাই ছিল সহজ সমীকরণ। তবে জেতার জন্যই খেলেছিল তারা। লিওনেল মেসির গোলে এগিয়েও গিয়েছিল। কিন্তু ড্র করতে হলো পরে গোল খেয়ে। ১-১ গোলে স্ত্রাসবুর্গের মাঠে ড্র করেও এক ম্যাচ হাতে রেখে লিগ ওয়ানের ট্রফি নিশ্চিত করলো প্যারিসের ক্লাব।

এনিয়ে ১১তম লিগ ওয়ান জিতলো পিএসজি। সবচেয়ে বেশি শিরোপা জয়ের কৃতিত্ব এখন এককভাবে তাদের। সেন্ত এতিয়েন্নেকে (১০) পেছনে ফেলে ফ্রান্সের সবচেয়ে সফল ফুটবল ক্লাব তারা।

বক্সের বাইরে থেকে ১৫ মিনিটে নেওয়া মর্গান স্যানসনের শট ঠেকান পিএসজি গোলকিপার জিয়ানলুইজি দোনারুমা। সাত মিনিট পর হাবিব দিয়ালোর শট ইতালির স্টপারকে পরাস্ত করলেও বল লাগে গোলপোস্টে।

স্ত্রাসবুর্গের দুটি সুযোগ নষ্টের সুযোগ নিয়ে এগিয়ে যেতে পারেনি পিএসজিও। ২৯ মিনিটে মেসির ক্রসে বক্সের মধ্যে নেওয়া রেনাতো সানচেসের শট সেভ করেন স্বাগতিক গোলকিপার মাৎজ সেলস।

দুই দলই হতাশা নিয়ে প্রথমার্ধ শেষ করে। বিরতির পর ফিরে এসে গোলের জন্য মরিয়া ছিল পিএসজি। ৫৯ মিনিটে কিলিয়ান এমবাপ্পের গুরুত্বপূর্ণ পাসে বাঁ পায়ের শটে উঁচু দিয়ে জাল কাঁপান মেসি।

বদলি হয়ে মাঠে নামার দুই মিনিট পরই সাবেক ক্লাবের জালে বল জড়ান কেভিন গামেইরো। ৭৯তম মিনিটে বক্সের মধ্যে প্রথমে তিনি পাস দেন স্যানসনকে, যার প্রথম প্রচেষ্টা দোনারুমা ফিরিয়ে দিলে খুব কাছ থেকে লক্ষ্যভেদ করেন ৯ নম্বর জার্সিধারী।

আর কোনও গোল হয়নি। তবে ওই এক পয়েন্টই পিএসজির জয়ের জন্য যথেষ্ট ছিল। ৩৭ ম্যাচে ৮৫ পয়েন্ট তাদের। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী লেন্স (৮১) চার পয়েন্ট পেছনে।