ঢাকা , মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
Logo সরকার তারেককে ফিরিয়ে এনে অবশ্যই আদালতের রায় কার্যকর করবে : প্রধানমন্ত্রী Logo ফিলিস্তিনকে রাষ্ট্রের স্বীকৃতির প্রভাব কী হতে পারে? Logo মায়ের ওড়না শাড়ি বানিয়ে পরলেন জেফার, দেখালেন চমক Logo পরিবারসহ বেনজীরের আরও ১১৩ স্থাবর-অস্থাবর সম্পত্তি ক্রোকের নির্দেশ Logo হায়দরাবাদকে গুঁড়িয়ে, উড়িয়ে কলকাতা চ্যাম্পিয়ন Logo ফতুল্লায় রহিম হাজী ও সামেদ আলীর গ্রুপে সংঘর্ষ, ভাংচুর, আহত ১৫ Logo সোনারগাঁয়ে নির্বাচন পরবর্তী প্রতিহিংসায় শতাধিক ফলজ গাছ কর্তন Logo মুছাপুরে স্বর্ণকার অজিতের প্রেমের ফাঁদে সর্বশান্ত প্রবাসী নারী Logo বন্দরে বিভিন্ন মামলার ২ সাঁজাপ্রাপ্ত আসামি গ্রেপ্তার Logo নাসিকের ময়লার গাড়ির ধাক্কায় অন্ত:সত্তা নারীর মৃত্যু, চালক আটক

মেট্রোরেল করেও প্রধানমন্ত্রী প্রমাণ করেছেন, ‘ইয়েস উই ক্যান’: কাদের

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পদ্মাসেতু করে বিশ্বব্যাংকের চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিয়েছেন। তিনি মেট্রোরেল করেও প্রমাণ করেছেন, ‘ইয়েস, উই ক্যান’। বুধবার (২৮ ডিসেম্বর) দুপুর সোয়া ১২টার দিকে রাজধানীর দিয়াবাড়ীতে মেট্রোরেল উদ্বোধন উপলক্ষে আয়োজিত এক সুধী সমাবেশে এসব কথা বলেন তিনি।
ওবায়দুল কাদের বলেন, বিভিন্ন অপবাদ দেওয়া ব্যক্তিরা মেট্রোরেল নিয়ে দুর্নীতি হয়েছে, তা বলতে পারছেন না। তারা এখন বলছেন, ‘মেট্রোরেলের ভাড়া বেশি’। আসলে সবই তাদের মনের জ্বালা। শেখ হাসিনা পদ্মাসেতু করে ফেলেছেন। মেট্রোরেল, শত সড়ক, শতভাগ বিদ্যুৎ, বিনা পয়সায় টিকা- সবই দিয়ে দিয়েছেন। বর্তমান পরিস্থিতিতে অনেক উন্নত দেশের তুলনায় বাংলাদেশ ভালো অবস্থানে আছে। তাই তারা (বিরোধীরা) ভাবছেন, সবই বুঝি গেলো!

তিনি বলেন, আজ অতি আনন্দের দিন, রাজধানীবাসীর দীর্ঘদিনের স্বপ্ন পূরণের দিন। এখন আর মেট্রোরেল স্বপ্ন নয়, এটি বাস্তব, দৃশ্যমান। মেট্রোরেল উদ্বোধনের মধ্য দিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাফল্যে আরেকটি পালক যুক্ত হলো।

বিভিন্ন সময় সরকারের উন্নয়নমূলক কাজ নিয়ে অপবাদকারীদের উদ্দেশে সেতুমন্ত্রী বলেন, আমরা বীরের জাতি, চোরের জাতি নই। আসলে ওরা (অপবাদকারী) অন্তরের জ্বালায় মরে। জোড়াতালি দিয়ে নাকি পদ্মাসেতু বানানো হয়েছে। এখন যাচ্ছেন কীভাবে সমাবেশ করতে? তিন ঘণ্টায় চলে গেলেন, আবার বড় বড় কথা বলেন!

তিনি বলেন, একটা বগি শুধু নারীদের জন্য রাখা হয়েছে। অন্য বগিতেও নারীরা বসতে পারবেন। তবে এ বগিটা শুধু নারীদের জন্যই সংরক্ষিত থাকবে। বীর মুক্তিযোদ্ধারা বিনা ভাড়ায় মেট্রোতে চড়তে পারবেন বলে প্রধানমন্ত্রী যে উদ্যোগ নিয়েছেন, তার জন্য শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন ওবায়দুল কাদের।

তিনি বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা মেট্রোরেলের বিরোধিতা করে মানববন্ধন করতে চেয়েছিলেন। প্রধানমন্ত্রী তখন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী-শিক্ষকদের জানাতে বলেছিলেন, মেট্রোরেলে শব্দদূষণ হবে না। এখন বিশ্ববিদ্যালয় এলাকা দিয়েই মেট্রোরেল চলাচল করবে।

এদিকে মেট্রোরেল উদ্বোধন ঘিরে সকাল থেকে উত্তরার দিয়াবাড়ী ও আগারগাঁও স্টেশনে উৎসুক মানুষের ভিড় লক্ষ্য করা গেছে। ঢাকার বাইরে দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকেও অনেকে মেট্রোরেল দেখতে এসেছেন। সরকারের এ সাফল্যে তাদের উচ্ছ¡াস প্রকাশ করতে দেখা গেছে।

এদিন বেলা পৌনে ১১টার দিকে মেট্রোরেলের এক নম্বর স্টেশন উত্তরা উত্তর স্টেশনে পৌঁছান প্রধানমন্ত্রী। বেলা ১১টার দিকে উত্তরার ১৫ নম্বর সেক্টরের ‘সি’ বøকের মাঠে দেশের যোগাযোগ ব্যবস্থায় এ বৃহৎ অবকাঠামো উদ্বোধন করেন তিনি।

এসময় জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, সড়ক ?ও মহাসড়ক বিভাগের সচিব এ বি এম আমিনুল্লা নুরী, মেট্রোরেল কোম্পানির এমডি এম এন সিদ্দিকসহ সরকারের পদস্থ কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

৩৩ হাজার ৪৭১ কোটি ৯৯ লাখ টাকা ব্যয়ে উত্তরা থেকে কমলাপুর পর্যন্ত ২১ দশমিক ১৬ কিলোমিটার দীর্ঘ এই মেট্রোরেল নির্মাণের কাজ চলছে জাপানের উন্নয়ন সংস্থা জাইকার সহযোগিতায়।

শুরুতে সীমিত পরিসরে উত্তরা উত্তর স্টেশন থেকে আগারগাঁও পর্যন্ত চলবে মেট্রোরেল। আগামীকাল বৃহস্পতিবার থেকে মেট্রোরেলে যাত্রী পরিবহন শুরু হবে। সবকিছু ঠিক থাকলে আগামী বছরের ডিসেম্বর নাগাদ মেট্রোরেলে চড়ে উত্তরা থেকে মতিঝিল পর্যন্ত যাতায়াত করা যাবে।

শুরুর দিকে মেট্রোরেল চলবে দিনে ৪ ঘণ্টা। সকাল ৮ থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত। উত্তরা থেকে আগারগাঁও পর্যন্ত চলার সময় ট্রেনগুলো মাঝপথে কোথাও যাত্রাবিরতি করবে না।

সরকার মেট্রোরেলের সর্বনি¤œ ভাড়া নির্ধারণ করেছে ২০ টাকা। উত্তরা থেকে মতিঝিল পর্যন্ত ভাড়া হবে ১০০ টাকা। প্রথম পর্যায়ে মেট্রোরেল যে অংশে চলাচল শুরু করবে, সেই উত্তরা উত্তর স্টেশন থেকে আগারগাঁও স্টেশন পর্যন্ত যাত্রীপ্রতি ভাড়া হবে ৬০ টাকা।

এছাড়া উত্তরা উত্তর স্টেশন থেকে উত্তরা সেন্টার (মধ্য) ও উত্তরা দক্ষিণ স্টেশনের ভাড়া হবে একই ২০ টাকা। উত্তরা উত্তর থেকে পল্লবী ও মিরপুর-১১ স্টেশনের ভাড়া ৩০ টাকা, মিরপুর-১০ ও কাজীপাড়া স্টেশনের ভাড়া ৪০ টাকা এবং শেওড়াপাড়া স্টেশনের ভাড়া নির্ধারণ করা হয়েছে ৫০ টাকা।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

কামাল হোসাইন

হ্যালো আমি কামাল হোসাইন, আমি গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করছি। ২০১৭ সাল থেকে এই পত্রিকার সাথে কাজ করছি। এভাবে এখানে আপনার প্রতিনিধিদের সম্পর্কে কিছু লিখতে পারবেন।
জনপ্রিয় সংবাদ

সরকার তারেককে ফিরিয়ে এনে অবশ্যই আদালতের রায় কার্যকর করবে : প্রধানমন্ত্রী

মেট্রোরেল করেও প্রধানমন্ত্রী প্রমাণ করেছেন, ‘ইয়েস উই ক্যান’: কাদের

আপডেট সময় ০৪:২৮:৩১ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৯ ডিসেম্বর ২০২২

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পদ্মাসেতু করে বিশ্বব্যাংকের চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিয়েছেন। তিনি মেট্রোরেল করেও প্রমাণ করেছেন, ‘ইয়েস, উই ক্যান’। বুধবার (২৮ ডিসেম্বর) দুপুর সোয়া ১২টার দিকে রাজধানীর দিয়াবাড়ীতে মেট্রোরেল উদ্বোধন উপলক্ষে আয়োজিত এক সুধী সমাবেশে এসব কথা বলেন তিনি।
ওবায়দুল কাদের বলেন, বিভিন্ন অপবাদ দেওয়া ব্যক্তিরা মেট্রোরেল নিয়ে দুর্নীতি হয়েছে, তা বলতে পারছেন না। তারা এখন বলছেন, ‘মেট্রোরেলের ভাড়া বেশি’। আসলে সবই তাদের মনের জ্বালা। শেখ হাসিনা পদ্মাসেতু করে ফেলেছেন। মেট্রোরেল, শত সড়ক, শতভাগ বিদ্যুৎ, বিনা পয়সায় টিকা- সবই দিয়ে দিয়েছেন। বর্তমান পরিস্থিতিতে অনেক উন্নত দেশের তুলনায় বাংলাদেশ ভালো অবস্থানে আছে। তাই তারা (বিরোধীরা) ভাবছেন, সবই বুঝি গেলো!

তিনি বলেন, আজ অতি আনন্দের দিন, রাজধানীবাসীর দীর্ঘদিনের স্বপ্ন পূরণের দিন। এখন আর মেট্রোরেল স্বপ্ন নয়, এটি বাস্তব, দৃশ্যমান। মেট্রোরেল উদ্বোধনের মধ্য দিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাফল্যে আরেকটি পালক যুক্ত হলো।

বিভিন্ন সময় সরকারের উন্নয়নমূলক কাজ নিয়ে অপবাদকারীদের উদ্দেশে সেতুমন্ত্রী বলেন, আমরা বীরের জাতি, চোরের জাতি নই। আসলে ওরা (অপবাদকারী) অন্তরের জ্বালায় মরে। জোড়াতালি দিয়ে নাকি পদ্মাসেতু বানানো হয়েছে। এখন যাচ্ছেন কীভাবে সমাবেশ করতে? তিন ঘণ্টায় চলে গেলেন, আবার বড় বড় কথা বলেন!

তিনি বলেন, একটা বগি শুধু নারীদের জন্য রাখা হয়েছে। অন্য বগিতেও নারীরা বসতে পারবেন। তবে এ বগিটা শুধু নারীদের জন্যই সংরক্ষিত থাকবে। বীর মুক্তিযোদ্ধারা বিনা ভাড়ায় মেট্রোতে চড়তে পারবেন বলে প্রধানমন্ত্রী যে উদ্যোগ নিয়েছেন, তার জন্য শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন ওবায়দুল কাদের।

তিনি বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা মেট্রোরেলের বিরোধিতা করে মানববন্ধন করতে চেয়েছিলেন। প্রধানমন্ত্রী তখন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী-শিক্ষকদের জানাতে বলেছিলেন, মেট্রোরেলে শব্দদূষণ হবে না। এখন বিশ্ববিদ্যালয় এলাকা দিয়েই মেট্রোরেল চলাচল করবে।

এদিকে মেট্রোরেল উদ্বোধন ঘিরে সকাল থেকে উত্তরার দিয়াবাড়ী ও আগারগাঁও স্টেশনে উৎসুক মানুষের ভিড় লক্ষ্য করা গেছে। ঢাকার বাইরে দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকেও অনেকে মেট্রোরেল দেখতে এসেছেন। সরকারের এ সাফল্যে তাদের উচ্ছ¡াস প্রকাশ করতে দেখা গেছে।

এদিন বেলা পৌনে ১১টার দিকে মেট্রোরেলের এক নম্বর স্টেশন উত্তরা উত্তর স্টেশনে পৌঁছান প্রধানমন্ত্রী। বেলা ১১টার দিকে উত্তরার ১৫ নম্বর সেক্টরের ‘সি’ বøকের মাঠে দেশের যোগাযোগ ব্যবস্থায় এ বৃহৎ অবকাঠামো উদ্বোধন করেন তিনি।

এসময় জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, সড়ক ?ও মহাসড়ক বিভাগের সচিব এ বি এম আমিনুল্লা নুরী, মেট্রোরেল কোম্পানির এমডি এম এন সিদ্দিকসহ সরকারের পদস্থ কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

৩৩ হাজার ৪৭১ কোটি ৯৯ লাখ টাকা ব্যয়ে উত্তরা থেকে কমলাপুর পর্যন্ত ২১ দশমিক ১৬ কিলোমিটার দীর্ঘ এই মেট্রোরেল নির্মাণের কাজ চলছে জাপানের উন্নয়ন সংস্থা জাইকার সহযোগিতায়।

শুরুতে সীমিত পরিসরে উত্তরা উত্তর স্টেশন থেকে আগারগাঁও পর্যন্ত চলবে মেট্রোরেল। আগামীকাল বৃহস্পতিবার থেকে মেট্রোরেলে যাত্রী পরিবহন শুরু হবে। সবকিছু ঠিক থাকলে আগামী বছরের ডিসেম্বর নাগাদ মেট্রোরেলে চড়ে উত্তরা থেকে মতিঝিল পর্যন্ত যাতায়াত করা যাবে।

শুরুর দিকে মেট্রোরেল চলবে দিনে ৪ ঘণ্টা। সকাল ৮ থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত। উত্তরা থেকে আগারগাঁও পর্যন্ত চলার সময় ট্রেনগুলো মাঝপথে কোথাও যাত্রাবিরতি করবে না।

সরকার মেট্রোরেলের সর্বনি¤œ ভাড়া নির্ধারণ করেছে ২০ টাকা। উত্তরা থেকে মতিঝিল পর্যন্ত ভাড়া হবে ১০০ টাকা। প্রথম পর্যায়ে মেট্রোরেল যে অংশে চলাচল শুরু করবে, সেই উত্তরা উত্তর স্টেশন থেকে আগারগাঁও স্টেশন পর্যন্ত যাত্রীপ্রতি ভাড়া হবে ৬০ টাকা।

এছাড়া উত্তরা উত্তর স্টেশন থেকে উত্তরা সেন্টার (মধ্য) ও উত্তরা দক্ষিণ স্টেশনের ভাড়া হবে একই ২০ টাকা। উত্তরা উত্তর থেকে পল্লবী ও মিরপুর-১১ স্টেশনের ভাড়া ৩০ টাকা, মিরপুর-১০ ও কাজীপাড়া স্টেশনের ভাড়া ৪০ টাকা এবং শেওড়াপাড়া স্টেশনের ভাড়া নির্ধারণ করা হয়েছে ৫০ টাকা।