ঢাকা , শুক্রবার, ১২ এপ্রিল ২০২৪, ২৯ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

মামুনুলের বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলার সাক্ষ্যগ্রহণ পেছাল

হেফাজত ইসলামের বিলুপ্ত কমিটির যুগ্ম মহাসচিব মামুনুল হকের বিরুদ্ধে সোনারগাঁ থানায় দায়ের করা জান্নাতুল ঝরনার ধর্ষণ মামলার সাক্ষ্যগ্রহণ পিছিয়েছে আদালত।

বুধবার (৪ জানুয়ারি) মামুনুল হককে আদালতে হাজির না করায় সাক্ষ্যগ্রহণ পিছিয়ে আগামী ১৫ ফেব্রুয়ারি ধার্য করে আদালত। এদিন নারায়ণগঞ্জ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন বিচারক নাজমুল হক শ্যামলের আদালতে এ মামলায় সাক্ষ্যগ্রহণের কথা ছিল।

নারায়ণগঞ্জ কোর্ট পুলিশের পরিদর্শক আসাদুজ্জামান জানান, বুধবার নারায়ণগঞ্জ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল আদালতে সাক্ষী গ্রহনের ধার্য নির্ধারন ছিলো। এদিন হয়তো পুলিশ সল্পতা নয়তো অসুস্থতা হতে পারে মামুনুল হক। তবে সঠিক কারণটা এখনো জানিনা কি কারণে মামুনুল হককে আদালতে হাজির করা হয়নি। পরবর্তী ধার্যদিন পরে জানিয়ে দেয়া হবে।

মামুনুল হকের আইনজীবী অ্যাড. একেএম ওমর ফারুক নয়ন বলেন, নিরাপত্তা বিষয়ে সমস্যা ও ঘাটতি থাকার কারণে মামুনুল হক আজ আদালতে আসে নাই। আদালত পরবর্তী তারিখ ১৫ ফেব্রুয়ারি ধার্য করেছেন।

উল্লেখ্য, ২০২১ সালের ৩ এপ্রিল নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও রয়েল রিসোর্টে এক নারীর সঙ্গে অবস্থান করা অবস্থায় স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা মামুনুল হককে ঘেরাও করেন। এ সময় হেফাজতে ইসলামের নেতাকর্মী ও সমর্থকরা এসে রিসোর্টে ভাঙচুর চালিয়ে তাকে নিয়ে যান। পরে গত ৩০ এপ্রিল সোনারগাঁ থানায় মামুনুল হকের বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা করেন তার সঙ্গে থাকা নারী।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

কামাল হোসাইন

হ্যালো আমি কামাল হোসাইন, আমি গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করছি। ২০১৭ সাল থেকে এই পত্রিকার সাথে কাজ করছি। এভাবে এখানে আপনার প্রতিনিধিদের সম্পর্কে কিছু লিখতে পারবেন।

মামুনুলের বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলার সাক্ষ্যগ্রহণ পেছাল

আপডেট সময় ০২:৩৯:৪৬ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৫ জানুয়ারী ২০২৩

হেফাজত ইসলামের বিলুপ্ত কমিটির যুগ্ম মহাসচিব মামুনুল হকের বিরুদ্ধে সোনারগাঁ থানায় দায়ের করা জান্নাতুল ঝরনার ধর্ষণ মামলার সাক্ষ্যগ্রহণ পিছিয়েছে আদালত।

বুধবার (৪ জানুয়ারি) মামুনুল হককে আদালতে হাজির না করায় সাক্ষ্যগ্রহণ পিছিয়ে আগামী ১৫ ফেব্রুয়ারি ধার্য করে আদালত। এদিন নারায়ণগঞ্জ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন বিচারক নাজমুল হক শ্যামলের আদালতে এ মামলায় সাক্ষ্যগ্রহণের কথা ছিল।

নারায়ণগঞ্জ কোর্ট পুলিশের পরিদর্শক আসাদুজ্জামান জানান, বুধবার নারায়ণগঞ্জ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল আদালতে সাক্ষী গ্রহনের ধার্য নির্ধারন ছিলো। এদিন হয়তো পুলিশ সল্পতা নয়তো অসুস্থতা হতে পারে মামুনুল হক। তবে সঠিক কারণটা এখনো জানিনা কি কারণে মামুনুল হককে আদালতে হাজির করা হয়নি। পরবর্তী ধার্যদিন পরে জানিয়ে দেয়া হবে।

মামুনুল হকের আইনজীবী অ্যাড. একেএম ওমর ফারুক নয়ন বলেন, নিরাপত্তা বিষয়ে সমস্যা ও ঘাটতি থাকার কারণে মামুনুল হক আজ আদালতে আসে নাই। আদালত পরবর্তী তারিখ ১৫ ফেব্রুয়ারি ধার্য করেছেন।

উল্লেখ্য, ২০২১ সালের ৩ এপ্রিল নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও রয়েল রিসোর্টে এক নারীর সঙ্গে অবস্থান করা অবস্থায় স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা মামুনুল হককে ঘেরাও করেন। এ সময় হেফাজতে ইসলামের নেতাকর্মী ও সমর্থকরা এসে রিসোর্টে ভাঙচুর চালিয়ে তাকে নিয়ে যান। পরে গত ৩০ এপ্রিল সোনারগাঁ থানায় মামুনুল হকের বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা করেন তার সঙ্গে থাকা নারী।