ঢাকা , শুক্রবার, ১২ এপ্রিল ২০২৪, ২৯ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

বন্দর উপজেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের ত্রি বার্ষিকী সম্মেলনে সভাপতি পদপ্রার্থী সর্বতো আলোচনার শীর্ষে রয়েছেন আব্দুল আলী

দীর্ঘ বছর প্রতীক্ষার পর অবশেষে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে বন্দর উপজেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের ত্রি বার্ষিকী সম্মেলন । যার প্রতিফলক হিসেবে প্রাণ ফিরে পেয়েছে মনে হয় বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের অন্যতম সহযোগী সংগঠন। বন্দর উপজেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ। নেতৃত্বের ভূমিকায় এই সম্মেলন ঘিরে নেতাকার্মীদের মাঝে আনন্দমুখর পরিবেশ বিরাজ করছে বন্দর উপজেলা সহ বন্দর উপজেলা পাঁচটি ইউনিয়নের প্রতিটি ওয়ার্ডের মানুষ ও নেতৃবৃন্দদের মাঝে, নতুন কমিটিতে স্থান পেতে বিভিন্ন পর্যায়ে চলছে পদপ্রত্যাশীদের দৌড়ঝাঁপ। পছন্দের পদ পেতে তদবির করছেন দলের নীতিনির্ধারকদের কাছে।

এদিকে বন্দর উপজেলা শাখা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সম্মেলন আগামী ২৮ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে বন্দর সমরক্ষেত্র মাঠ প্রাঙ্গনে।
এর মধ্যে বন্দর উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগ সম্মেলনে নতুন কমিটি কেন্দ্র করে আলোচনার শীর্ষে রয়েছেন সভাপতি পদপ্রার্থী বন্দর উপজেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাবেক সাধারন সম্পাদক মোঃআব্দুল আলী।তিনি সভাপতি পদে অনেক আগেই থেকেই প্রতাশ্য করে আছেন। তিনি এর আগে ও বন্দর উপজেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক দায়িত্ব পালন করে যোগ্যতার পরিচয় দিয়ে সবার মাঝে আলোচনার শীর্ষে আছেন। সে হিসেবে সাংগঠনিক বিবেচনায় বন্দর উপজেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি পদে তিনিও পিছিয়ে নেই।উলেখ্য বন্দর উপজেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের ত্রি বার্ষিকী সম্মেলনে সভাপতি প্রার্থী হয়েছেন দুইজন বন্দর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ফয়সাল কবির ও বন্দর উপজেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোঃ আব্দুল আলী। বন্দর উপজেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের ত্রি বার্ষিকী সম্মেলনে।সভাপতি প্রত্যাশী মোঃ আব্দুল আলী তিনি দীর্ঘদিন ধরে বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ধারণ করে বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত। বিএনপি-জামাত শাষনামলে হামলা-মামলা ও নির্যাতনের শিকার হয়েছে। দলীয় প্রতিটি কর্মসূচিতে অংশ গ্রহন দেখার মতো।সব সময় বাংলাদেশে আওয়ামী লীগ ও তার সহযোগী অঙ্গ সংগঠনের প্রতিটা কর্মসূচিতে অংশ গ্রহন করে থাকেন। তিনি সভাপতি হলে বন্দর উপজেলার ৫ টি ইউনিয়নে বঙ্গবন্ধুর আদর্শে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার স্সার্ট দেশ গড়ার পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করার লক্ষে যে কাজ হাতে নিয়েছেন সেই হাত কে শক্তিশালী করার লক্ষে সেবামুলক কাজ করে দলের সুনাম রাখবেন বলে আশাবাদী বন্দর উপজেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি প্রার্থী মোঃ আব্দুল আলী নেতৃবৃন্দের প্রত্যাশা ।তিনি দলের দু’সময় থেকেই রাজপথে বেশ সক্রিয় ছিল। প্রতিটি আন্দোলন সংগ্রামে কঠোর ভূমিকা পালন করছেন। তিনি যদি নির্বাচিত হন তাহলে প্রতিটি ওয়ার্ড থেকে শুরু করে পুরো উপজেলায় স্বেচ্ছাসেবকলীগের দূর্গ গড়ে তুলবেন এবং আসন্ন সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে শেখ হাসিনার হাতকে আরো শক্তিশালী করতে তৃণমুল আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতাকর্মীদের মাঠে ফেরাতে মোঃআব্দুল আলীর বিকল্প নেই বলেন বন্দর উপজেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের নেতৃবৃন্দরা।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

কামাল হোসাইন

হ্যালো আমি কামাল হোসাইন, আমি গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করছি। ২০১৭ সাল থেকে এই পত্রিকার সাথে কাজ করছি। এভাবে এখানে আপনার প্রতিনিধিদের সম্পর্কে কিছু লিখতে পারবেন।

বন্দর উপজেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের ত্রি বার্ষিকী সম্মেলনে সভাপতি পদপ্রার্থী সর্বতো আলোচনার শীর্ষে রয়েছেন আব্দুল আলী

আপডেট সময় ০৪:১২:৫৬ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২৩

দীর্ঘ বছর প্রতীক্ষার পর অবশেষে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে বন্দর উপজেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের ত্রি বার্ষিকী সম্মেলন । যার প্রতিফলক হিসেবে প্রাণ ফিরে পেয়েছে মনে হয় বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের অন্যতম সহযোগী সংগঠন। বন্দর উপজেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ। নেতৃত্বের ভূমিকায় এই সম্মেলন ঘিরে নেতাকার্মীদের মাঝে আনন্দমুখর পরিবেশ বিরাজ করছে বন্দর উপজেলা সহ বন্দর উপজেলা পাঁচটি ইউনিয়নের প্রতিটি ওয়ার্ডের মানুষ ও নেতৃবৃন্দদের মাঝে, নতুন কমিটিতে স্থান পেতে বিভিন্ন পর্যায়ে চলছে পদপ্রত্যাশীদের দৌড়ঝাঁপ। পছন্দের পদ পেতে তদবির করছেন দলের নীতিনির্ধারকদের কাছে।

এদিকে বন্দর উপজেলা শাখা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সম্মেলন আগামী ২৮ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে বন্দর সমরক্ষেত্র মাঠ প্রাঙ্গনে।
এর মধ্যে বন্দর উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগ সম্মেলনে নতুন কমিটি কেন্দ্র করে আলোচনার শীর্ষে রয়েছেন সভাপতি পদপ্রার্থী বন্দর উপজেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাবেক সাধারন সম্পাদক মোঃআব্দুল আলী।তিনি সভাপতি পদে অনেক আগেই থেকেই প্রতাশ্য করে আছেন। তিনি এর আগে ও বন্দর উপজেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক দায়িত্ব পালন করে যোগ্যতার পরিচয় দিয়ে সবার মাঝে আলোচনার শীর্ষে আছেন। সে হিসেবে সাংগঠনিক বিবেচনায় বন্দর উপজেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি পদে তিনিও পিছিয়ে নেই।উলেখ্য বন্দর উপজেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের ত্রি বার্ষিকী সম্মেলনে সভাপতি প্রার্থী হয়েছেন দুইজন বন্দর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ফয়সাল কবির ও বন্দর উপজেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোঃ আব্দুল আলী। বন্দর উপজেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের ত্রি বার্ষিকী সম্মেলনে।সভাপতি প্রত্যাশী মোঃ আব্দুল আলী তিনি দীর্ঘদিন ধরে বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ধারণ করে বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত। বিএনপি-জামাত শাষনামলে হামলা-মামলা ও নির্যাতনের শিকার হয়েছে। দলীয় প্রতিটি কর্মসূচিতে অংশ গ্রহন দেখার মতো।সব সময় বাংলাদেশে আওয়ামী লীগ ও তার সহযোগী অঙ্গ সংগঠনের প্রতিটা কর্মসূচিতে অংশ গ্রহন করে থাকেন। তিনি সভাপতি হলে বন্দর উপজেলার ৫ টি ইউনিয়নে বঙ্গবন্ধুর আদর্শে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার স্সার্ট দেশ গড়ার পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করার লক্ষে যে কাজ হাতে নিয়েছেন সেই হাত কে শক্তিশালী করার লক্ষে সেবামুলক কাজ করে দলের সুনাম রাখবেন বলে আশাবাদী বন্দর উপজেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি প্রার্থী মোঃ আব্দুল আলী নেতৃবৃন্দের প্রত্যাশা ।তিনি দলের দু’সময় থেকেই রাজপথে বেশ সক্রিয় ছিল। প্রতিটি আন্দোলন সংগ্রামে কঠোর ভূমিকা পালন করছেন। তিনি যদি নির্বাচিত হন তাহলে প্রতিটি ওয়ার্ড থেকে শুরু করে পুরো উপজেলায় স্বেচ্ছাসেবকলীগের দূর্গ গড়ে তুলবেন এবং আসন্ন সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে শেখ হাসিনার হাতকে আরো শক্তিশালী করতে তৃণমুল আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতাকর্মীদের মাঠে ফেরাতে মোঃআব্দুল আলীর বিকল্প নেই বলেন বন্দর উপজেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের নেতৃবৃন্দরা।