ঢাকা , শনিবার, ০২ মার্চ ২০২৪, ১৯ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
Logo বেইলি রোডে অগ্নিকান্ডে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৪৬, দগ্ধরাও সংকটাপন্ন: স্বাস্থ্যমন্ত্রী Logo সাত প্রতিমন্ত্রীর শপথ গ্রহণ Logo আলো ঝলমলে রাতে বিপিএলের চ্যাম্পিয়ন বরিশাল Logo ফতুল্লায় নাসিম ওসমান স্মৃতি ক্রিকেট টুর্নামেন্টের পুরস্কার বিতরণ Logo সোনারগাঁয়ের মোগরাপাড়া চৌরাস্তা এলাকায় ফুট ওভার ব্রীজ হকার মুক্ত করলেন এম পি কাউসার হাসনাত Logo নাঃগঞ্জে মহান শহিদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে বইমেলায় কবিদের উত্তরীয় দিয়ে বরণ Logo সিদ্ধিরগঞ্জ পাওয়ার হাউজ স্কুলে ভর্তি বানিজ্য, ভর্তিতে অনিশ্চিত জমজ শিশু, প্রধান প্রকৌশলীর বদলির দাবি Logo উপজেলা নির্বাচনে সবার সহযোগিতা ও দোয়া চাইলেন মাকসুদ চেয়ারম্যান Logo বৃহত্তম মদনগঞ্জ পেশাজীবি শ্রমিক কল্যান সংগঠন’র ৫ ম বারের মতো বিনামূল্যে সুন্নতে খাৎনা অনুষ্ঠিত Logo বন্দরে গৃহবধূকে কুপিয়ে হত্যা ও স্বামী গুরুত্বর জখমের ঘটনায় মা ও ছেলে আটক

ফ্যাসিবাদী শাসন মানুষের ভবিষ্যৎকে নষ্ট করছে: জোনায়েদ সাকি

গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়কারী জোনায়েদ সাকি বলেছেন, বর্তমান ফ্যাসিবাদী ও কর্তৃত্ববাদী শাসন দেশের সব মানুষের ভবিষ্যৎকে নষ্ট করছে। ছাত্রদের ভবিষ্যৎও নষ্ট করছে। তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশে গণমানুষের যেকোনও সংগ্রামে এদেশের ছাত্রসমাজের গৌরবোজ্জল ভূমিকা আছে। বর্তমানে জনগণের ভোটাধিকার, শিক্ষা ও কাজের দাবিতেও ছাত্রসমাজকে ঐক্যবদ্ধ লড়াই গড়ে তুলতে হবে। বাংলাদেশকে যদি আমরা গণতান্ত্রিক ধারায় ফেরত আনতে না পারি, তা আমাদের সবার ভবিষ্যৎকে নষ্ট করবে।’

শুক্রবার (২০ জানুয়ারি) বিকালে শহীদ আসাদ দিবস উপলক্ষে বাংলাদেশ ছাত্র ফেডারেশনের উদ্যোগে আয়োজিত ছাত্র সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে জোনায়েদ সাকি বলেন, ‘বাংলাদেশে এ সময়ে আসাদ আমাদের সামনে অনেক বেশি প্রাসঙ্গিকতা নিয়ে হাজির হয়েছে। যে সাম্য, মানবিক মর্যাদা ও সামাজিক ন্যায়বিচারের রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা করতে আসাদসহ ৩০ লাখ মানুষ প্রাণ দিয়েছে, সেই বাংলাদেশকে বর্তমান সরকার খাদের কিনারায় নিয়ে গিয়েছে। দুর্নীতি-লুটপাটের কারণে দেশের অর্থনীতি আজ ভয়াবহ খাদের মাঝে পড়েছে, জনগণের ভোটাধিকার না থাকায় তারা ন্যূনতম জবাবদিহির মধ্যে আসছে না।’

সভাপতির বক্তব্যে মশিউর রহমান খান রিচার্ড বলেন, ‘বর্তমানে সরকার স্মার্ট বাংলাদেশের কথা বলছে, তাদের স্মার্ট বাংলাদেশে জনগণের ভোটাধিকার নাই, ক্যাম্পাসে শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তা নাই। তাদের হাতে লেগে আছে বিশ্বজিতের রক্ত, লেগে আছে আবরারের রক্ত। তারা বিশ্ববিদ্যালয়সহ সারাদেশের শিক্ষার্থীদের স্বপ্ন খুন করার দায় নিয়ে বসে আছে। বাংলাদেশকে তারা একজন ব্যক্তির বাংলাদেশ গড়ার ঘোষণা দিচ্ছে, আমরা ষ্পষ্ট করে বলতে চাই— লাখো শহীদের রক্তের বিনিময়ে অর্জিত বাংলাদেশকে আমরা কোনও ব্যক্তির বাংলাদেশ হতে দেবো না। পৃথিবীতে কোনও স্বৈরাচার দমন-পীড়ন চালিয়ে ক্ষমতায় টিকে থাকতে পারে নাই। এই সরকারও পারবে না, বর্তমান সরকারের পতন ঘটিয়ে আমরা এই দেশের মানুষের ভবিষ্যৎকে নিরাপদ করবো।’

সংগঠনের সভাপতি মশিউর রহমান খান রিচার্ডের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক সৈকত আরিফের সঞ্চালনায় সমাবেশে আরও বক্তব্য রাখেন— বাংলাদেশ সহ-সাধারণ সম্পাদক ইলিয়াস জামান, ফাতেমা রহমান বিথী, সাংগঠনিক সম্পাদক আল-আমিন শেখ, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক মহব্বত হোসেন মিলন, ঢাকা নগর ছাত্র ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক হাসান আল মেহেদীসহ আরও অনেকে।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

কামাল হোসাইন

হ্যালো আমি কামাল হোসাইন, আমি গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করছি। ২০১৭ সাল থেকে এই পত্রিকার সাথে কাজ করছি। এভাবে এখানে আপনার প্রতিনিধিদের সম্পর্কে কিছু লিখতে পারবেন।

বেইলি রোডে অগ্নিকান্ডে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৪৬, দগ্ধরাও সংকটাপন্ন: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

ফ্যাসিবাদী শাসন মানুষের ভবিষ্যৎকে নষ্ট করছে: জোনায়েদ সাকি

আপডেট সময় ০৩:০০:২৬ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২১ জানুয়ারী ২০২৩

গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়কারী জোনায়েদ সাকি বলেছেন, বর্তমান ফ্যাসিবাদী ও কর্তৃত্ববাদী শাসন দেশের সব মানুষের ভবিষ্যৎকে নষ্ট করছে। ছাত্রদের ভবিষ্যৎও নষ্ট করছে। তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশে গণমানুষের যেকোনও সংগ্রামে এদেশের ছাত্রসমাজের গৌরবোজ্জল ভূমিকা আছে। বর্তমানে জনগণের ভোটাধিকার, শিক্ষা ও কাজের দাবিতেও ছাত্রসমাজকে ঐক্যবদ্ধ লড়াই গড়ে তুলতে হবে। বাংলাদেশকে যদি আমরা গণতান্ত্রিক ধারায় ফেরত আনতে না পারি, তা আমাদের সবার ভবিষ্যৎকে নষ্ট করবে।’

শুক্রবার (২০ জানুয়ারি) বিকালে শহীদ আসাদ দিবস উপলক্ষে বাংলাদেশ ছাত্র ফেডারেশনের উদ্যোগে আয়োজিত ছাত্র সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে জোনায়েদ সাকি বলেন, ‘বাংলাদেশে এ সময়ে আসাদ আমাদের সামনে অনেক বেশি প্রাসঙ্গিকতা নিয়ে হাজির হয়েছে। যে সাম্য, মানবিক মর্যাদা ও সামাজিক ন্যায়বিচারের রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা করতে আসাদসহ ৩০ লাখ মানুষ প্রাণ দিয়েছে, সেই বাংলাদেশকে বর্তমান সরকার খাদের কিনারায় নিয়ে গিয়েছে। দুর্নীতি-লুটপাটের কারণে দেশের অর্থনীতি আজ ভয়াবহ খাদের মাঝে পড়েছে, জনগণের ভোটাধিকার না থাকায় তারা ন্যূনতম জবাবদিহির মধ্যে আসছে না।’

সভাপতির বক্তব্যে মশিউর রহমান খান রিচার্ড বলেন, ‘বর্তমানে সরকার স্মার্ট বাংলাদেশের কথা বলছে, তাদের স্মার্ট বাংলাদেশে জনগণের ভোটাধিকার নাই, ক্যাম্পাসে শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তা নাই। তাদের হাতে লেগে আছে বিশ্বজিতের রক্ত, লেগে আছে আবরারের রক্ত। তারা বিশ্ববিদ্যালয়সহ সারাদেশের শিক্ষার্থীদের স্বপ্ন খুন করার দায় নিয়ে বসে আছে। বাংলাদেশকে তারা একজন ব্যক্তির বাংলাদেশ গড়ার ঘোষণা দিচ্ছে, আমরা ষ্পষ্ট করে বলতে চাই— লাখো শহীদের রক্তের বিনিময়ে অর্জিত বাংলাদেশকে আমরা কোনও ব্যক্তির বাংলাদেশ হতে দেবো না। পৃথিবীতে কোনও স্বৈরাচার দমন-পীড়ন চালিয়ে ক্ষমতায় টিকে থাকতে পারে নাই। এই সরকারও পারবে না, বর্তমান সরকারের পতন ঘটিয়ে আমরা এই দেশের মানুষের ভবিষ্যৎকে নিরাপদ করবো।’

সংগঠনের সভাপতি মশিউর রহমান খান রিচার্ডের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক সৈকত আরিফের সঞ্চালনায় সমাবেশে আরও বক্তব্য রাখেন— বাংলাদেশ সহ-সাধারণ সম্পাদক ইলিয়াস জামান, ফাতেমা রহমান বিথী, সাংগঠনিক সম্পাদক আল-আমিন শেখ, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক মহব্বত হোসেন মিলন, ঢাকা নগর ছাত্র ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক হাসান আল মেহেদীসহ আরও অনেকে।