ঢাকা , বুধবার, ২৯ মে ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
Logo সরকার তারেককে ফিরিয়ে এনে অবশ্যই আদালতের রায় কার্যকর করবে : প্রধানমন্ত্রী Logo ফিলিস্তিনকে রাষ্ট্রের স্বীকৃতির প্রভাব কী হতে পারে? Logo মায়ের ওড়না শাড়ি বানিয়ে পরলেন জেফার, দেখালেন চমক Logo পরিবারসহ বেনজীরের আরও ১১৩ স্থাবর-অস্থাবর সম্পত্তি ক্রোকের নির্দেশ Logo হায়দরাবাদকে গুঁড়িয়ে, উড়িয়ে কলকাতা চ্যাম্পিয়ন Logo ফতুল্লায় রহিম হাজী ও সামেদ আলীর গ্রুপে সংঘর্ষ, ভাংচুর, আহত ১৫ Logo সোনারগাঁয়ে নির্বাচন পরবর্তী প্রতিহিংসায় শতাধিক ফলজ গাছ কর্তন Logo মুছাপুরে স্বর্ণকার অজিতের প্রেমের ফাঁদে সর্বশান্ত প্রবাসী নারী Logo বন্দরে বিভিন্ন মামলার ২ সাঁজাপ্রাপ্ত আসামি গ্রেপ্তার Logo নাসিকের ময়লার গাড়ির ধাক্কায় অন্ত:সত্তা নারীর মৃত্যু, চালক আটক

ফরিদপুরে দেশীয় অস্ত্র নিয়ে ছাত্রলীগ নেতার টিকটক

ফরিদপুরের বোয়ালমারী উপজেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি বিল্লাল মৃধা নিজের ফেসবুক আইডিতে দেশীয় অস্ত্রের টিকটক ভিডিও পোস্ট করে আলোচনায় এসেছেন। রোববার সকাল ৮টার দিকে নিজের আইডিতে টিকটক ভিডিওটি পোস্ট করেন বিল্লাল মৃধা। এ ঘটনায় বিতর্ক সৃষ্টি হলে প্রায় চার ঘণ্টা পর তিনি পোস্টটি মুছে দেন। ততক্ষণে এটি ভাইরাল হয়ে যায়।

এ বিষয়ে উপজেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি বিল্লাল মৃধা বলেন, টিকটক ভিডিওটি আমার ফেসবুক আইডি থেকে পোস্ট করা হয়েছে ঠিকই, কিন্তু এটা আমি পোস্ট করিনি। কয়েক মাস আগে আমার মোবাইলটি চুরি হয়ে যায়। এরপর আজ রবিবার সকালে কে বা কারা আমার আইডিতে টিকটক ভিডিও পোস্ট করেন। পরে যখন জানতে পেরেছি তখন ডিলিট করে দিয়েছি।

তিনি আরও বলেন, টিকটক ভিডিওতে যার ছবি-ভিডিও দেখা যাচ্ছে ওটা আমার ছবি নয়। আমার ছবির সঙ্গে মিলিয়ে দেখেন ওটা আমি নই। কার ভিডিও তাও বলতে পারবো না।

বোয়ালমারী উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সৈয়দ মোরতুজা আলী তমাল বলেন, বিষয়টি খুবই দুঃখজনক। কোনো দায়িত্বশীল ব্যক্তির কাছে এমনটি কাম্য নয়। তবে এটি তার ব্যক্তিগত বিষয়।

ফরিদপুর জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ফাহিম আহামেদ বলেন, সংগঠন পরিপন্থি অনৈতিক কার্যকলাপে জড়িত হলে তিনি যেই হোক না কেন, কোনো ছাড় নয়। তদন্তে এর সত্যতা পাওয়া গেলে তার বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এ বিষয়ে বোয়ালমারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মুহাম্মদ আব্দুল ওহাব বলেন, বিষয়টি জানতে পেরে তার বাড়িতে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। তবে তাকে বাড়িতে পাওয়া যায়নি। তাকে খোঁজা হচ্ছে।

এর আগে গত ২৭ মার্চ কোমরে পিস্তল গুঁজে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ছবি পোস্ট করায় উপজেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শুভ্রদেব ওরফে সুদেব বিশ্বাসের বিরুদ্ধে মামলা দিয়ে কারাগারে পাঠানো হয়।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

কামাল হোসাইন

হ্যালো আমি কামাল হোসাইন, আমি গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করছি। ২০১৭ সাল থেকে এই পত্রিকার সাথে কাজ করছি। এভাবে এখানে আপনার প্রতিনিধিদের সম্পর্কে কিছু লিখতে পারবেন।
জনপ্রিয় সংবাদ

সরকার তারেককে ফিরিয়ে এনে অবশ্যই আদালতের রায় কার্যকর করবে : প্রধানমন্ত্রী

ফরিদপুরে দেশীয় অস্ত্র নিয়ে ছাত্রলীগ নেতার টিকটক

আপডেট সময় ০৩:৫৩:৩২ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১০ এপ্রিল ২০২৩

ফরিদপুরের বোয়ালমারী উপজেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি বিল্লাল মৃধা নিজের ফেসবুক আইডিতে দেশীয় অস্ত্রের টিকটক ভিডিও পোস্ট করে আলোচনায় এসেছেন। রোববার সকাল ৮টার দিকে নিজের আইডিতে টিকটক ভিডিওটি পোস্ট করেন বিল্লাল মৃধা। এ ঘটনায় বিতর্ক সৃষ্টি হলে প্রায় চার ঘণ্টা পর তিনি পোস্টটি মুছে দেন। ততক্ষণে এটি ভাইরাল হয়ে যায়।

এ বিষয়ে উপজেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি বিল্লাল মৃধা বলেন, টিকটক ভিডিওটি আমার ফেসবুক আইডি থেকে পোস্ট করা হয়েছে ঠিকই, কিন্তু এটা আমি পোস্ট করিনি। কয়েক মাস আগে আমার মোবাইলটি চুরি হয়ে যায়। এরপর আজ রবিবার সকালে কে বা কারা আমার আইডিতে টিকটক ভিডিও পোস্ট করেন। পরে যখন জানতে পেরেছি তখন ডিলিট করে দিয়েছি।

তিনি আরও বলেন, টিকটক ভিডিওতে যার ছবি-ভিডিও দেখা যাচ্ছে ওটা আমার ছবি নয়। আমার ছবির সঙ্গে মিলিয়ে দেখেন ওটা আমি নই। কার ভিডিও তাও বলতে পারবো না।

বোয়ালমারী উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সৈয়দ মোরতুজা আলী তমাল বলেন, বিষয়টি খুবই দুঃখজনক। কোনো দায়িত্বশীল ব্যক্তির কাছে এমনটি কাম্য নয়। তবে এটি তার ব্যক্তিগত বিষয়।

ফরিদপুর জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ফাহিম আহামেদ বলেন, সংগঠন পরিপন্থি অনৈতিক কার্যকলাপে জড়িত হলে তিনি যেই হোক না কেন, কোনো ছাড় নয়। তদন্তে এর সত্যতা পাওয়া গেলে তার বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এ বিষয়ে বোয়ালমারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মুহাম্মদ আব্দুল ওহাব বলেন, বিষয়টি জানতে পেরে তার বাড়িতে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। তবে তাকে বাড়িতে পাওয়া যায়নি। তাকে খোঁজা হচ্ছে।

এর আগে গত ২৭ মার্চ কোমরে পিস্তল গুঁজে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ছবি পোস্ট করায় উপজেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শুভ্রদেব ওরফে সুদেব বিশ্বাসের বিরুদ্ধে মামলা দিয়ে কারাগারে পাঠানো হয়।