ঢাকা , শনিবার, ০২ মার্চ ২০২৪, ১৯ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
Logo বেইলি রোডে অগ্নিকান্ডে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৪৬, দগ্ধরাও সংকটাপন্ন: স্বাস্থ্যমন্ত্রী Logo সাত প্রতিমন্ত্রীর শপথ গ্রহণ Logo আলো ঝলমলে রাতে বিপিএলের চ্যাম্পিয়ন বরিশাল Logo ফতুল্লায় নাসিম ওসমান স্মৃতি ক্রিকেট টুর্নামেন্টের পুরস্কার বিতরণ Logo সোনারগাঁয়ের মোগরাপাড়া চৌরাস্তা এলাকায় ফুট ওভার ব্রীজ হকার মুক্ত করলেন এম পি কাউসার হাসনাত Logo নাঃগঞ্জে মহান শহিদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে বইমেলায় কবিদের উত্তরীয় দিয়ে বরণ Logo সিদ্ধিরগঞ্জ পাওয়ার হাউজ স্কুলে ভর্তি বানিজ্য, ভর্তিতে অনিশ্চিত জমজ শিশু, প্রধান প্রকৌশলীর বদলির দাবি Logo উপজেলা নির্বাচনে সবার সহযোগিতা ও দোয়া চাইলেন মাকসুদ চেয়ারম্যান Logo বৃহত্তম মদনগঞ্জ পেশাজীবি শ্রমিক কল্যান সংগঠন’র ৫ ম বারের মতো বিনামূল্যে সুন্নতে খাৎনা অনুষ্ঠিত Logo বন্দরে গৃহবধূকে কুপিয়ে হত্যা ও স্বামী গুরুত্বর জখমের ঘটনায় মা ও ছেলে আটক

ফতুল্লায় নির্মানাধীন ভবনের সেপটিক ট্যাংকের ভেতর পড়ে শিশু নিহত

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লার কাশিপুরে নির্মানাধীন একটি ভবনের সেপটিক ট্যাংকের ভেতর পড়ে মুশফিকা আক্তার নামে সাড়ে ৫ বছর বয়সী এক শিশু নিহত হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২ ফেব্রæয়ারি) বিকেলে কাশীপুর ইউনিয়নের উত্তর গোয়ালবন্দ ব্যাংক কলোনী আবাসিক এলাকায় এই ঘটনা ঘটে।
নিহত মুশফিকা ওই এলাকার মো. খলিলের মেয়ে। চলতি বছরের জানুয়ারিতে শিশুটি স্থানীয় একটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রাক-প্রাথমিক শ্রেণিতে ভর্তি হয়েছিল।
স্থানীয় লোকজন জানান, নির্মাণাধীন একটি ভবনের সেপটিক ট্যাংকের ঢাকনা খোলা থাকায় ভেতরে পরে যায় মুশফিকা আক্তার নামে ওই শিশু। শিশুটির মা তাকে ভেতর থেকে বের করে আনে। পরে হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
নির্মাণাধীন ভবনটির বাড়িওয়ালি মোরশেদা বেগম বলেন, দুপুর আড়াইটার দিকেও তিনি সেপটিক ট্যাংকের ঢাকনা লাগানো দেখেছেন। কেউ ঢাকনাটি চুরি করে নিয়ে গেছে বলে ধারণা করছি। বিকেল চারটার দিকে ঘর থেকে বেরিয়ে সেপটিক ট্যাংকের ঢাকনা খোলা দেখি। পরে ট্যাংকের ভেতর উঁকি দিয়ে বাচ্চা বয়সী কারও টুপি ও জুতা ভাসতে দেখে আশেপাশের লাকজনকে ডাক দেই।
এ সময় পাশের বাসা থেকে বাচ্চাটার মা বেরিয়ে আসে। পরে টর্চলাইটের আলো জ্বেলে বাচ্চাটিতে ভাসতে দেখি। বাচ্চার মা সুখী বেগম পরে বাচ্চাটিকে টেনে বের করে নিয়ে আসে।
এই ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী মো. রুবেল বলেন, হৈ-চৈ শুনে তিনি বেরিয়ে আসেন। বাচ্চাটিকে বের করার পর তার মুখ সাদা হয়ে গেছে দেখি। আমরা পেটে চাপ দিয়ে পানি বের করি। পরে মুমূর্ষু অবস্থায় তাকে শহরের জেনারেল (ভিক্টোরিয়া) হাসপাতালে নিয়ে যায় পরিবারের লোকজন। হাসপাতালেই ওই বাচ্চাটি মারা যায়।
এ বিষয়ে ফতুল্লা মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. মহসীন জানান, এখনো তাদেরকে এই বিষয়ে অবগত করেনি।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

কামাল হোসাইন

হ্যালো আমি কামাল হোসাইন, আমি গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করছি। ২০১৭ সাল থেকে এই পত্রিকার সাথে কাজ করছি। এভাবে এখানে আপনার প্রতিনিধিদের সম্পর্কে কিছু লিখতে পারবেন।

বেইলি রোডে অগ্নিকান্ডে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৪৬, দগ্ধরাও সংকটাপন্ন: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

ফতুল্লায় নির্মানাধীন ভবনের সেপটিক ট্যাংকের ভেতর পড়ে শিশু নিহত

আপডেট সময় ০৪:০৩:১৫ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৩

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লার কাশিপুরে নির্মানাধীন একটি ভবনের সেপটিক ট্যাংকের ভেতর পড়ে মুশফিকা আক্তার নামে সাড়ে ৫ বছর বয়সী এক শিশু নিহত হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২ ফেব্রæয়ারি) বিকেলে কাশীপুর ইউনিয়নের উত্তর গোয়ালবন্দ ব্যাংক কলোনী আবাসিক এলাকায় এই ঘটনা ঘটে।
নিহত মুশফিকা ওই এলাকার মো. খলিলের মেয়ে। চলতি বছরের জানুয়ারিতে শিশুটি স্থানীয় একটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রাক-প্রাথমিক শ্রেণিতে ভর্তি হয়েছিল।
স্থানীয় লোকজন জানান, নির্মাণাধীন একটি ভবনের সেপটিক ট্যাংকের ঢাকনা খোলা থাকায় ভেতরে পরে যায় মুশফিকা আক্তার নামে ওই শিশু। শিশুটির মা তাকে ভেতর থেকে বের করে আনে। পরে হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
নির্মাণাধীন ভবনটির বাড়িওয়ালি মোরশেদা বেগম বলেন, দুপুর আড়াইটার দিকেও তিনি সেপটিক ট্যাংকের ঢাকনা লাগানো দেখেছেন। কেউ ঢাকনাটি চুরি করে নিয়ে গেছে বলে ধারণা করছি। বিকেল চারটার দিকে ঘর থেকে বেরিয়ে সেপটিক ট্যাংকের ঢাকনা খোলা দেখি। পরে ট্যাংকের ভেতর উঁকি দিয়ে বাচ্চা বয়সী কারও টুপি ও জুতা ভাসতে দেখে আশেপাশের লাকজনকে ডাক দেই।
এ সময় পাশের বাসা থেকে বাচ্চাটার মা বেরিয়ে আসে। পরে টর্চলাইটের আলো জ্বেলে বাচ্চাটিতে ভাসতে দেখি। বাচ্চার মা সুখী বেগম পরে বাচ্চাটিকে টেনে বের করে নিয়ে আসে।
এই ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী মো. রুবেল বলেন, হৈ-চৈ শুনে তিনি বেরিয়ে আসেন। বাচ্চাটিকে বের করার পর তার মুখ সাদা হয়ে গেছে দেখি। আমরা পেটে চাপ দিয়ে পানি বের করি। পরে মুমূর্ষু অবস্থায় তাকে শহরের জেনারেল (ভিক্টোরিয়া) হাসপাতালে নিয়ে যায় পরিবারের লোকজন। হাসপাতালেই ওই বাচ্চাটি মারা যায়।
এ বিষয়ে ফতুল্লা মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. মহসীন জানান, এখনো তাদেরকে এই বিষয়ে অবগত করেনি।