ঢাকা , রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ধ্বংসস্তূপের নিচ থেকে ২০৭ ঘণ্টা পর নারীকে জীবিত উদ্ধার

তুরস্ক ও সিরিয়ায় ভূমিকম্পে মৃত্যুর মিছিল যেন থামছেই না। এ পর্যন্ত মৃত্যুর সংখ্যা ছাড়িয়েছে ৩৭ হাজার। এখনও উদ্ধার অভিযান চলছে।

দক্ষিণ তুরস্কের আদিয়ামানে ভূমিকম্পের ২০৭ ঘণ্টা পর এক নারীকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে। ওই নারীর বয়স ৪৫ বছর। খবর আনাদোলু এজেন্সির।

এদিকে তুরস্কের হাতায় প্রদেশে ভূমিকম্পের ২০৫ ঘণ্টা পরও এক নারীকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে বলে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে কাতারভিত্তিক গণমাধ্যম আলজাজিরা।

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগান জানিয়েছেন, এ পর্যন্ত ৮ হাজারের বেশি মানুষকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে। তিনি উদ্ধার অভিযানে এগিয়ে আসায় সকল দেশকে ধন্যবাদ জানান।

প্রসঙ্গত, তুরস্ক ও সিরিয়ায় গত ৬ ফেব্রুয়ারি ভোরে ৭ দশমিক ৮ মাত্রার ভূমিকম্প আঘাত হানে। এতে গুঁড়িয়ে যায় দুই দেশের হাজার হাজার হাসপাতাল, স্কুল ও অ্যাপার্টমেন্ট ভবন। গৃহহীন হয়ে পড়ে দেশ দুটির বিপুলসংখ্যক লোক। উদ্ভূত পরিস্থিতিতে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগান ১০ প্রদেশে জরুরি অবস্থা জারি করেছেন।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

কামাল হোসাইন

হ্যালো আমি কামাল হোসাইন, আমি গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করছি। ২০১৭ সাল থেকে এই পত্রিকার সাথে কাজ করছি। এভাবে এখানে আপনার প্রতিনিধিদের সম্পর্কে কিছু লিখতে পারবেন।

ধ্বংসস্তূপের নিচ থেকে ২০৭ ঘণ্টা পর নারীকে জীবিত উদ্ধার

আপডেট সময় ০৪:১৬:৫৬ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৩

তুরস্ক ও সিরিয়ায় ভূমিকম্পে মৃত্যুর মিছিল যেন থামছেই না। এ পর্যন্ত মৃত্যুর সংখ্যা ছাড়িয়েছে ৩৭ হাজার। এখনও উদ্ধার অভিযান চলছে।

দক্ষিণ তুরস্কের আদিয়ামানে ভূমিকম্পের ২০৭ ঘণ্টা পর এক নারীকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে। ওই নারীর বয়স ৪৫ বছর। খবর আনাদোলু এজেন্সির।

এদিকে তুরস্কের হাতায় প্রদেশে ভূমিকম্পের ২০৫ ঘণ্টা পরও এক নারীকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে বলে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে কাতারভিত্তিক গণমাধ্যম আলজাজিরা।

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগান জানিয়েছেন, এ পর্যন্ত ৮ হাজারের বেশি মানুষকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে। তিনি উদ্ধার অভিযানে এগিয়ে আসায় সকল দেশকে ধন্যবাদ জানান।

প্রসঙ্গত, তুরস্ক ও সিরিয়ায় গত ৬ ফেব্রুয়ারি ভোরে ৭ দশমিক ৮ মাত্রার ভূমিকম্প আঘাত হানে। এতে গুঁড়িয়ে যায় দুই দেশের হাজার হাজার হাসপাতাল, স্কুল ও অ্যাপার্টমেন্ট ভবন। গৃহহীন হয়ে পড়ে দেশ দুটির বিপুলসংখ্যক লোক। উদ্ভূত পরিস্থিতিতে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগান ১০ প্রদেশে জরুরি অবস্থা জারি করেছেন।