ঢাকা , মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ৩ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

দেশ আজ ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে: মির্জা ফখরুল

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর অভিযোগ করে বলেন, দেশ আজ ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে। আজকে এ দেশের নির্বাচন ব্যবস্থাও ধ্বংস করে দেওয়া হয়েছে। সরকার মানুষকে বোকা বানিয়ে বার বার উন্নয়নের কথা বলে দেশকে শোষণ করছে প্রতিদিন, প্রতি মুহূর্ত। আর এক মুহূর্তও এ সরকারকে ক্ষমতায় রাখা যায় না।

শুক্রবার সন্ধ্যা পৌনে ৬টায় ঠাকুরগাঁও প্রেস ক্লাব চত্বরে জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দল কেন্দ্রীয় কমিটি আয়োজিত দোয়া ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

স্বেচ্ছাসেবক দলের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি এসএম জিলানীর সভাপতিত্বে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন দলটির সিনিয়র সহ-সভাপতি ইয়াছিন আলী, সাধারণ সম্পাদক রাজিব আহসান, সাংগঠনিক সম্পাদক নাজমুল হাসান, দপ্তর সম্পাদক রফিকুল ইসলামসহ রংপুর ও রাজশাহী বিভাগের ১৬ জেলার স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক এবং ঠাকুরগাঁওসহ আশপাশ এলাকার বিএনপির নেতারা ।

মির্জা ফখরুল বলেন, আওয়ামী লীগ উন্নয়নের কথা বলে। কিন্তু তার আড়ালে তারা দুর্নীতি করে। তাদের সীমাহীন দুর্নীতির কারণে দেশের অর্থনীতি আজ ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে উদ্দেশ করে তিনি বলেন, বিএনপি না কি সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত মিথ্যা কথা বলে। চাল, ডাল, তেলের দাম বেড়েছে, এটা কি মিথ্যা? আওয়ামী লীগ লুটপাট করতে করতে এমন একটা জায়গায় চলে গেছে যে তারা মনে করছে ক্ষমতা চলে গেলে তাদের করুণ অবস্থা দাঁড়াবে।

স্বেচ্ছাসেবক দলের নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে মির্জা ফখরুল বলেন, এটা কোনো ইফতার মাহফিল নয়, আগামীতে এই স্বেচ্ছাসেবক দলের নেতারাই দেশকে মুক্ত করার জন্য, সত্যিকার গণতন্ত্রের রাষ্ট্রে পরিণত করার জন্য যে সংগ্রাম শুরু হয়েছে; তার অগ্রসৈনিক হিসেবে শপথের এ অনুষ্ঠান এটা।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, দেশকে রক্ষা করার জন্য সাবেক প্রধান মন্ত্রী বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে হবে। বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়াকে কারাবন্দী পরে গৃহবন্দী এবং আমাদের নেতা তারেক জিয়ার বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দিয়ে নির্বাসিত করা হয়েছে।

নেতা কর্মীদের উদ্দেশ্যে ফখরুল বলেন, আজ আমাদের এ কথা মনে রাখতে হবে, আমরা আজ এমন একটা ক্লান্তি লগ্নে এসে উপস্থিত হয়েছি আগামী দিনগুলোতে আমরা নিজেদেরকে সংগঠিত করে আন্দোলনের মধ্য দিয়ে এ সরকারকে পরাজিত করতে না পারি তাহলে আমাদের জাতির অস্তিত্ব বিপন্ন হয়ে যাবে। তাই আমাদের দেশের জন্য, মানুষের জন্য আন্দোলন সংগ্রামে ঝাঁপিয়ে পড়তে হবে।

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের বক্তব্যের পরে লন্ডন থেকে ভার্চুয়ালি বক্তব্য দেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান।

দোয়া ও ইফতার মাহফিলে বেগম খালেদা জিয়ার রোগমুক্তি ও তারেক রহমানের সুস্থতা কামনা করে দোয়া পরিচালনা করেন শিবগঞ্জ সিনিয়র আলিম মাদ্রাসার সহকারী শিক্ষক মাওলানা শরিফুল ইসলাম।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

কামাল হোসাইন

হ্যালো আমি কামাল হোসাইন, আমি গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করছি। ২০১৭ সাল থেকে এই পত্রিকার সাথে কাজ করছি। এভাবে এখানে আপনার প্রতিনিধিদের সম্পর্কে কিছু লিখতে পারবেন।

দেশ আজ ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে: মির্জা ফখরুল

আপডেট সময় ০১:৪৩:১১ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৩

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর অভিযোগ করে বলেন, দেশ আজ ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে। আজকে এ দেশের নির্বাচন ব্যবস্থাও ধ্বংস করে দেওয়া হয়েছে। সরকার মানুষকে বোকা বানিয়ে বার বার উন্নয়নের কথা বলে দেশকে শোষণ করছে প্রতিদিন, প্রতি মুহূর্ত। আর এক মুহূর্তও এ সরকারকে ক্ষমতায় রাখা যায় না।

শুক্রবার সন্ধ্যা পৌনে ৬টায় ঠাকুরগাঁও প্রেস ক্লাব চত্বরে জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দল কেন্দ্রীয় কমিটি আয়োজিত দোয়া ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

স্বেচ্ছাসেবক দলের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি এসএম জিলানীর সভাপতিত্বে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন দলটির সিনিয়র সহ-সভাপতি ইয়াছিন আলী, সাধারণ সম্পাদক রাজিব আহসান, সাংগঠনিক সম্পাদক নাজমুল হাসান, দপ্তর সম্পাদক রফিকুল ইসলামসহ রংপুর ও রাজশাহী বিভাগের ১৬ জেলার স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক এবং ঠাকুরগাঁওসহ আশপাশ এলাকার বিএনপির নেতারা ।

মির্জা ফখরুল বলেন, আওয়ামী লীগ উন্নয়নের কথা বলে। কিন্তু তার আড়ালে তারা দুর্নীতি করে। তাদের সীমাহীন দুর্নীতির কারণে দেশের অর্থনীতি আজ ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে উদ্দেশ করে তিনি বলেন, বিএনপি না কি সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত মিথ্যা কথা বলে। চাল, ডাল, তেলের দাম বেড়েছে, এটা কি মিথ্যা? আওয়ামী লীগ লুটপাট করতে করতে এমন একটা জায়গায় চলে গেছে যে তারা মনে করছে ক্ষমতা চলে গেলে তাদের করুণ অবস্থা দাঁড়াবে।

স্বেচ্ছাসেবক দলের নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে মির্জা ফখরুল বলেন, এটা কোনো ইফতার মাহফিল নয়, আগামীতে এই স্বেচ্ছাসেবক দলের নেতারাই দেশকে মুক্ত করার জন্য, সত্যিকার গণতন্ত্রের রাষ্ট্রে পরিণত করার জন্য যে সংগ্রাম শুরু হয়েছে; তার অগ্রসৈনিক হিসেবে শপথের এ অনুষ্ঠান এটা।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, দেশকে রক্ষা করার জন্য সাবেক প্রধান মন্ত্রী বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে হবে। বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়াকে কারাবন্দী পরে গৃহবন্দী এবং আমাদের নেতা তারেক জিয়ার বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দিয়ে নির্বাসিত করা হয়েছে।

নেতা কর্মীদের উদ্দেশ্যে ফখরুল বলেন, আজ আমাদের এ কথা মনে রাখতে হবে, আমরা আজ এমন একটা ক্লান্তি লগ্নে এসে উপস্থিত হয়েছি আগামী দিনগুলোতে আমরা নিজেদেরকে সংগঠিত করে আন্দোলনের মধ্য দিয়ে এ সরকারকে পরাজিত করতে না পারি তাহলে আমাদের জাতির অস্তিত্ব বিপন্ন হয়ে যাবে। তাই আমাদের দেশের জন্য, মানুষের জন্য আন্দোলন সংগ্রামে ঝাঁপিয়ে পড়তে হবে।

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের বক্তব্যের পরে লন্ডন থেকে ভার্চুয়ালি বক্তব্য দেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান।

দোয়া ও ইফতার মাহফিলে বেগম খালেদা জিয়ার রোগমুক্তি ও তারেক রহমানের সুস্থতা কামনা করে দোয়া পরিচালনা করেন শিবগঞ্জ সিনিয়র আলিম মাদ্রাসার সহকারী শিক্ষক মাওলানা শরিফুল ইসলাম।