ঢাকা , মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ৩ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

তত্ত্বাবধায়ক সরকার মরে গেছে, কবরে শুয়ে আছে: কাদের

বিএনপির তত্ত্বাবধায়ক সররকারের অধীনে নির্বাচনের দাবি প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, তত্ত্বাবধায়ক সরকার মরে গেছে, কবরে শুয়ে আছে। তত্ত্বাবধায়ক সরকার আর ফিরে আসবে না।

রোববার (২১ মে) বিকেলে রাজধানীর আগারগাঁও বিজ্ঞান জাদুঘরের সামনে ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগ আয়োজিত শান্তি সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

বিএনপিকে উদ্দেশ্য করে সেতুমন্ত্রী বলেন, তারা আজকে মৃত তত্ত্বাবধায়ককে জীবিত করতে চায়। কারণ তারা জানে, শেখ হাসিনার সঙ্গে নির্বাচন করে জিততে পারবে না। তাদের আতঙ্ক শেখ হাসিনা। কারণ শেখ হাসিনা থাকলে জনগণ তার সঙ্গে থাকবে। শেখ হাসিনা থাকলে বিএনপির মতো লুটেরা সরকারের ক্ষমতা ফিরে আসার কোনো সুযোগ নেই। সেজন্য তারা শেখ হাসিনার অস্তিত্ব নির্মূল করতে চায়।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, তারেক জিয়া বাইরে বসে পরামর্শ দিচ্ছে, তারা সিদ্ধান্ত নিয়েছে শেখ হাসিনার অধীনে নির্বাচন নয়। তারা এ সরকারের অধীনে নির্বাচন করবেন না। নির্বাচন করবেন না আমরা জানি, কিন্তু ঠেকাতে আসলে আমরা জনগণকে নিয়ে প্রতিরোধ গড়ে তুলব। কোন অপশক্তিকে শান্তিপূর্ণ নির্বাচনকে বাধা দিতে দেবোনা।

তিনি আরও বলেন, নির্বাচনের বাকি কয়েকমাস, এখন থেকেই প্রস্তুত হোন। সকল কটূক্তির প্রতিবাদ করতে হবে। এভাবে আর ছেড়ে দেব না। আমরা নির্বাচন করব কিন্তু সংবিধানের বাইরে কোনো নির্বাচন হতে দেওয়া যাবে না। বাংলাদেশের মানুষ শেখ হাসিনার সঙ্গে আছে। নেতাকর্মীরা ঐক্যবদ্ধ হয়ে দুর্ভেদ্য দুর্গ গড়ে তুলতে হবে।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

কামাল হোসাইন

হ্যালো আমি কামাল হোসাইন, আমি গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করছি। ২০১৭ সাল থেকে এই পত্রিকার সাথে কাজ করছি। এভাবে এখানে আপনার প্রতিনিধিদের সম্পর্কে কিছু লিখতে পারবেন।

তত্ত্বাবধায়ক সরকার মরে গেছে, কবরে শুয়ে আছে: কাদের

আপডেট সময় ০৩:১৭:০৬ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২২ মে ২০২৩

বিএনপির তত্ত্বাবধায়ক সররকারের অধীনে নির্বাচনের দাবি প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, তত্ত্বাবধায়ক সরকার মরে গেছে, কবরে শুয়ে আছে। তত্ত্বাবধায়ক সরকার আর ফিরে আসবে না।

রোববার (২১ মে) বিকেলে রাজধানীর আগারগাঁও বিজ্ঞান জাদুঘরের সামনে ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগ আয়োজিত শান্তি সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

বিএনপিকে উদ্দেশ্য করে সেতুমন্ত্রী বলেন, তারা আজকে মৃত তত্ত্বাবধায়ককে জীবিত করতে চায়। কারণ তারা জানে, শেখ হাসিনার সঙ্গে নির্বাচন করে জিততে পারবে না। তাদের আতঙ্ক শেখ হাসিনা। কারণ শেখ হাসিনা থাকলে জনগণ তার সঙ্গে থাকবে। শেখ হাসিনা থাকলে বিএনপির মতো লুটেরা সরকারের ক্ষমতা ফিরে আসার কোনো সুযোগ নেই। সেজন্য তারা শেখ হাসিনার অস্তিত্ব নির্মূল করতে চায়।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, তারেক জিয়া বাইরে বসে পরামর্শ দিচ্ছে, তারা সিদ্ধান্ত নিয়েছে শেখ হাসিনার অধীনে নির্বাচন নয়। তারা এ সরকারের অধীনে নির্বাচন করবেন না। নির্বাচন করবেন না আমরা জানি, কিন্তু ঠেকাতে আসলে আমরা জনগণকে নিয়ে প্রতিরোধ গড়ে তুলব। কোন অপশক্তিকে শান্তিপূর্ণ নির্বাচনকে বাধা দিতে দেবোনা।

তিনি আরও বলেন, নির্বাচনের বাকি কয়েকমাস, এখন থেকেই প্রস্তুত হোন। সকল কটূক্তির প্রতিবাদ করতে হবে। এভাবে আর ছেড়ে দেব না। আমরা নির্বাচন করব কিন্তু সংবিধানের বাইরে কোনো নির্বাচন হতে দেওয়া যাবে না। বাংলাদেশের মানুষ শেখ হাসিনার সঙ্গে আছে। নেতাকর্মীরা ঐক্যবদ্ধ হয়ে দুর্ভেদ্য দুর্গ গড়ে তুলতে হবে।