ঢাকা , সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ১ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

জাতীয় সঙ্গীত গাইতে না পারায় শিক্ষকের বেতন স্থগিত

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ায় সম্পূর্ণ জাতীয় সঙ্গীত গাইতে না পারায় একটি স্কুলের শরীর চর্চা শিক্ষক মো. সোহরাব হোসেনের বেতন স্থগিত করার নির্দেশ দিয়েছেন জেলা প্রশাসক। একই সঙ্গে স্কুল পরিদর্শনকালে উপস্থিত না থাকায় তিনি মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তাকে কারণ দর্শানোর নিদের্শও দিয়েছেন।

মঙ্গলবার (২৮ মার্চ) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে উপজেলার মোগড়া উচ্চ বিদ্যালয় পরিদর্শনে এসে এ আদেশ দেন জেলা প্রশাসক মো. শাহগীর আলম ।

 

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, জেলা প্রশাসক শাহগীর আলম আজ সকালে মোগড়া উচ্চ বিদ্যালয়ে পরিদর্শনে যান। পরিদর্শনকালে তিনি বিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিষয়ে খোঁজ খবর নেন। এক পর্যায়ে তিনি শরীর চর্চা শিক্ষক মো. সোহরাব হোসেনকে জাতীয় সঙ্গীত গাইতে বলেন। কিন্তু ওই শিক্ষক সম্পূর্ণ সঙ্গীত গাইতে না পারায় জেলা প্রশাসক রেগে যান। এসময় জেলা প্রশাসক শরীর চর্চা শিক্ষকের বেতন স্থগিত রাখার নির্দেশ দেন। যতদিন পর্যন্ত শুদ্ধভাবে সম্পূর্ণ জাতীয় সঙ্গীত গাইতে না পারবেন ততদিন পর্যন্ত বেতন স্থগিত থাকবে ওই শিক্ষকের। একই সময় মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. আবুল হোসেন বিদ্যালয়ে উপস্থিত না থাকায় তাকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দিতে বলেন জেলা প্রশাসক।

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মো. আবুল হোসেন বলেন, ডিসি স্যার যে বিদ্যালয় পরিদর্শনে এসেছেন বিষয়টি আমি জানি না। স্যার তো শোকজ করতেই পারেন।

আখাউড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার অংগ্যজাই মারমা বলেন, ডিসি স্যার মোগড়া উচ্চ বিদ্যালয়ে গিয়ে বিভিন্ন খোঁজ খবর নেন। এসময় সম্পূর্ণ জাতীয় সঙ্গীত গাইতে না পারায় ওই বিদ্যালয়ের শরীর চর্চা শিক্ষক মো. সোহরাব হোসনের বেতন স্থগিত রাখার নির্দেশ দেন। এছাড়া স্কুল পরিদর্শনকালে মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. আবুল হোসেন উপস্থিত না থাকায় তাকে কারণ দর্শানোর নির্দেশ দিয়েছেন।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

কামাল হোসাইন

হ্যালো আমি কামাল হোসাইন, আমি গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করছি। ২০১৭ সাল থেকে এই পত্রিকার সাথে কাজ করছি। এভাবে এখানে আপনার প্রতিনিধিদের সম্পর্কে কিছু লিখতে পারবেন।

জাতীয় সঙ্গীত গাইতে না পারায় শিক্ষকের বেতন স্থগিত

আপডেট সময় ০৫:১৩:৪২ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২৯ মার্চ ২০২৩

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ায় সম্পূর্ণ জাতীয় সঙ্গীত গাইতে না পারায় একটি স্কুলের শরীর চর্চা শিক্ষক মো. সোহরাব হোসেনের বেতন স্থগিত করার নির্দেশ দিয়েছেন জেলা প্রশাসক। একই সঙ্গে স্কুল পরিদর্শনকালে উপস্থিত না থাকায় তিনি মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তাকে কারণ দর্শানোর নিদের্শও দিয়েছেন।

মঙ্গলবার (২৮ মার্চ) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে উপজেলার মোগড়া উচ্চ বিদ্যালয় পরিদর্শনে এসে এ আদেশ দেন জেলা প্রশাসক মো. শাহগীর আলম ।

 

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, জেলা প্রশাসক শাহগীর আলম আজ সকালে মোগড়া উচ্চ বিদ্যালয়ে পরিদর্শনে যান। পরিদর্শনকালে তিনি বিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিষয়ে খোঁজ খবর নেন। এক পর্যায়ে তিনি শরীর চর্চা শিক্ষক মো. সোহরাব হোসেনকে জাতীয় সঙ্গীত গাইতে বলেন। কিন্তু ওই শিক্ষক সম্পূর্ণ সঙ্গীত গাইতে না পারায় জেলা প্রশাসক রেগে যান। এসময় জেলা প্রশাসক শরীর চর্চা শিক্ষকের বেতন স্থগিত রাখার নির্দেশ দেন। যতদিন পর্যন্ত শুদ্ধভাবে সম্পূর্ণ জাতীয় সঙ্গীত গাইতে না পারবেন ততদিন পর্যন্ত বেতন স্থগিত থাকবে ওই শিক্ষকের। একই সময় মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. আবুল হোসেন বিদ্যালয়ে উপস্থিত না থাকায় তাকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দিতে বলেন জেলা প্রশাসক।

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মো. আবুল হোসেন বলেন, ডিসি স্যার যে বিদ্যালয় পরিদর্শনে এসেছেন বিষয়টি আমি জানি না। স্যার তো শোকজ করতেই পারেন।

আখাউড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার অংগ্যজাই মারমা বলেন, ডিসি স্যার মোগড়া উচ্চ বিদ্যালয়ে গিয়ে বিভিন্ন খোঁজ খবর নেন। এসময় সম্পূর্ণ জাতীয় সঙ্গীত গাইতে না পারায় ওই বিদ্যালয়ের শরীর চর্চা শিক্ষক মো. সোহরাব হোসনের বেতন স্থগিত রাখার নির্দেশ দেন। এছাড়া স্কুল পরিদর্শনকালে মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. আবুল হোসেন উপস্থিত না থাকায় তাকে কারণ দর্শানোর নির্দেশ দিয়েছেন।