ঢাকা , শুক্রবার, ১২ এপ্রিল ২০২৪, ২৯ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

জয়শঙ্করের সফরে শ্রীলংকার কী লাভ?

১৯৪৮ সালে যুক্তরাজ্যের কাছ থেকে স্বাধীনতা অর্জনের পর অর্থনৈতিকভাবে সবচেয়ে শোচনীয় অবস্থায় রয়েছে ভারতের প্রতিবেশী দ্বীপরাষ্ট্র শ্রীলংকা।

গত ১৯ ও ২০ জানুয়ারি দেশটিতে সফর করেছেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর। তার এই সফরকে শ্রীলংকার উন্নয়ন ও অগ্রগতির জন্য ইতিবাচক হিসেবে দেখা হচ্ছে। খবর এএনআইয়ের।

ভারতীয় এ গণমাধ্যটি বলছে, শ্রীলংকা সফর করে দেশটিকে সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছেন জয়শঙ্কর। প্রতিকূল পরিস্থিতিতে দেশটির পাশে থাকার অঙ্গীকার করেছে ভারত। প্রতিবেশীর অগ্রাধিকারই ভারতের পররাষ্ট্রনীতির অন্যতম মূলনীতি, শ্রীলংকাকে এ কথাও জানিয়েছেন জয়শঙ্কর।

গত কয়েক মাস ধরেই টালমাটাল শ্রীলংকার অর্থনীতি। নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের দাম আকাশ ছুঁয়েছে। মুদ্রাস্ফীতির কারণে তলানিতে ঠেকেছে মুদ্রার মান।

এ অবস্থায় দেশটির অর্থনীতি সচল রাখতে ৪০০ কোটি মার্কিন ডলার সহায়তা দিয়ে পাশে দাঁড়িয়েছে ভারত। সফরের সময় যৌথভাবে দেশটির অর্থনীতি দ্রুত পুনরুদ্ধারের প্রতিশ্রুতি দেন জয়শঙ্কর।

দেশটির অর্থনীতি পুনরুদ্ধারে ভারতের নাগরিকদের জন্য শ্রীলঙ্কার পর্যটন খাত উন্মুক্ত করে দেওয়ার প্রস্তাব দেন জয়শঙ্কর। এতে ভারতীয় পর্যটকদের কাছ থেকে প্রচুর রুপি উপার্জন করে স্বাবলম্বী হতে পারবে শ্রীলংকা। ভারতও বেশি পর্যটক পাঠানোতে ভূমিকা পালন করবে বলে জানান তিনি।

শ্রীলংকার পররাষ্ট্রমন্ত্রী আলি সাবরির সঙ্গে বৈঠকের পর সংবাদ সম্মেলনে জয়শঙ্কর বলেন, শ্রীলংকার সঙ্গে জ্বালানি, পর্যটন খাতসহ দ্বিপাক্ষিক বেশ কয়েকটি খাতে একসঙ্গে কাজ করবে ভারত।

এ সময় তিনি জানান, নবায়নযোগ্য জ্বালানি সহযোগিতায় একমত হয়েছে ভারত ও শ্রীলংকা।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

কামাল হোসাইন

হ্যালো আমি কামাল হোসাইন, আমি গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করছি। ২০১৭ সাল থেকে এই পত্রিকার সাথে কাজ করছি। এভাবে এখানে আপনার প্রতিনিধিদের সম্পর্কে কিছু লিখতে পারবেন।
জনপ্রিয় সংবাদ

জয়শঙ্করের সফরে শ্রীলংকার কী লাভ?

আপডেট সময় ০৪:২৮:৪০ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৩

১৯৪৮ সালে যুক্তরাজ্যের কাছ থেকে স্বাধীনতা অর্জনের পর অর্থনৈতিকভাবে সবচেয়ে শোচনীয় অবস্থায় রয়েছে ভারতের প্রতিবেশী দ্বীপরাষ্ট্র শ্রীলংকা।

গত ১৯ ও ২০ জানুয়ারি দেশটিতে সফর করেছেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর। তার এই সফরকে শ্রীলংকার উন্নয়ন ও অগ্রগতির জন্য ইতিবাচক হিসেবে দেখা হচ্ছে। খবর এএনআইয়ের।

ভারতীয় এ গণমাধ্যটি বলছে, শ্রীলংকা সফর করে দেশটিকে সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছেন জয়শঙ্কর। প্রতিকূল পরিস্থিতিতে দেশটির পাশে থাকার অঙ্গীকার করেছে ভারত। প্রতিবেশীর অগ্রাধিকারই ভারতের পররাষ্ট্রনীতির অন্যতম মূলনীতি, শ্রীলংকাকে এ কথাও জানিয়েছেন জয়শঙ্কর।

গত কয়েক মাস ধরেই টালমাটাল শ্রীলংকার অর্থনীতি। নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের দাম আকাশ ছুঁয়েছে। মুদ্রাস্ফীতির কারণে তলানিতে ঠেকেছে মুদ্রার মান।

এ অবস্থায় দেশটির অর্থনীতি সচল রাখতে ৪০০ কোটি মার্কিন ডলার সহায়তা দিয়ে পাশে দাঁড়িয়েছে ভারত। সফরের সময় যৌথভাবে দেশটির অর্থনীতি দ্রুত পুনরুদ্ধারের প্রতিশ্রুতি দেন জয়শঙ্কর।

দেশটির অর্থনীতি পুনরুদ্ধারে ভারতের নাগরিকদের জন্য শ্রীলঙ্কার পর্যটন খাত উন্মুক্ত করে দেওয়ার প্রস্তাব দেন জয়শঙ্কর। এতে ভারতীয় পর্যটকদের কাছ থেকে প্রচুর রুপি উপার্জন করে স্বাবলম্বী হতে পারবে শ্রীলংকা। ভারতও বেশি পর্যটক পাঠানোতে ভূমিকা পালন করবে বলে জানান তিনি।

শ্রীলংকার পররাষ্ট্রমন্ত্রী আলি সাবরির সঙ্গে বৈঠকের পর সংবাদ সম্মেলনে জয়শঙ্কর বলেন, শ্রীলংকার সঙ্গে জ্বালানি, পর্যটন খাতসহ দ্বিপাক্ষিক বেশ কয়েকটি খাতে একসঙ্গে কাজ করবে ভারত।

এ সময় তিনি জানান, নবায়নযোগ্য জ্বালানি সহযোগিতায় একমত হয়েছে ভারত ও শ্রীলংকা।