ঢাকা , বুধবার, ২৯ মে ২০২৪, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
Logo সরকার তারেককে ফিরিয়ে এনে অবশ্যই আদালতের রায় কার্যকর করবে : প্রধানমন্ত্রী Logo ফিলিস্তিনকে রাষ্ট্রের স্বীকৃতির প্রভাব কী হতে পারে? Logo মায়ের ওড়না শাড়ি বানিয়ে পরলেন জেফার, দেখালেন চমক Logo পরিবারসহ বেনজীরের আরও ১১৩ স্থাবর-অস্থাবর সম্পত্তি ক্রোকের নির্দেশ Logo হায়দরাবাদকে গুঁড়িয়ে, উড়িয়ে কলকাতা চ্যাম্পিয়ন Logo ফতুল্লায় রহিম হাজী ও সামেদ আলীর গ্রুপে সংঘর্ষ, ভাংচুর, আহত ১৫ Logo সোনারগাঁয়ে নির্বাচন পরবর্তী প্রতিহিংসায় শতাধিক ফলজ গাছ কর্তন Logo মুছাপুরে স্বর্ণকার অজিতের প্রেমের ফাঁদে সর্বশান্ত প্রবাসী নারী Logo বন্দরে বিভিন্ন মামলার ২ সাঁজাপ্রাপ্ত আসামি গ্রেপ্তার Logo নাসিকের ময়লার গাড়ির ধাক্কায় অন্ত:সত্তা নারীর মৃত্যু, চালক আটক

জনগণ আর তামাশার নির্বাচন হতে দেবে না: ফখরুল

আওয়ামী লীগের সমালোচনা করে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, তারা মনে করেছে যে এভাবে করে নির্বাচন করবে। আবারও তারা এভাবে জনগণকে শোষণ করবে, জনগণের সম্পদ লুটপাট করবে।

এবার কী মানুষ তা হতে দেবে? জনগণ আর কোনো তামাশার নির্বাচন হতে দেবে না।

শনিবার (৪ মার্চ) রাজধানীর উত্তরায় গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারে ১০ দফা দাবি আদায়ে পদযাত্রায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।
মির্জা ফখরুল বলেন, আমরা সমমনা দলগুলো গত সেপ্টেম্বর থেকে সারা দেশে আন্দোলন করছি। এ আন্দোলন জনগণের অধিকার ফিরিয়ে দেওয়ার আন্দোলন। তারই অংশ হিসেবে আমাদের এ পদযাত্রা কর্মসূচি।

সব নিত্যপণ্যের দাম বিএনপির আমলের তুলনায় বেশি উল্লেখ করে তিনি বলেন, মানুষ আজ কষ্টে আছে। দুই মাসের মধ্যে ১৫ পার্সেন্ট বিদ্যুতের দাম বাড়িয়েছে। এর ফলে কৃষিক্ষেত্রে খরচ বেড়ে যাচ্ছে। কল-কারখানার খরচ বেড়ে যাচ্ছে।

জনগণকে উদ্দেশ্য করে মির্জা ফখরুল বলেন, আমি আপনাদের আহ্বান জানাবো শান্তিপূর্ণভাবে এ আন্দোলনকে সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যান। আমাদের এ আন্দোলন বিএনপিকে ক্ষমতায় নেওয়ার জন্য নয়। আমাদের এ আন্দোলন জনগণের অধিকার ফিরে পাওয়ার আন্দোলন। মানুষের যে কথা বলার অধিকার, সে অধিকার ফিরিয়ে দেওয়ার আন্দোলন। কথায় কথায় যারা মামলা দেয়, রাতের বেলা তুলে নিয়ে যায়, এ ভয় দেখিয়ে আমাদের লাভ আছে? ১৫ বছর ধরে আমরা এ আন্দোলনে আছি। আন্দোলনে থাকবো।

সমাবেশে বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য আমানউল্লাহ আমান বলেন, আজকে এ পদযাত্রা প্রমাণ করে, জনগণের অংশগ্রহণ প্রমাণ করে বিএনপি যে ১০ দফা দাবি দিয়েছে, এ দবির প্রতি ঢাকার জনগণ সমর্থন দিয়েছে। ১০ দফার যে প্রথম দফা এ অনির্বাচিত, ভোট ডাকাত, ভোট চোর সরকারের অধীনে কোনো নির্বাচন হবে না। দেশে নির্বাচন হতে হলে এমন নির্বাচন হবে যে নির্বাচনে বিএনপি যাবে, সে নির্বাচন হবে নির্দলীয়, নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে। শেখ হাসিনা নিরপেক্ষ নয়। জনগণের প্রতি সরকারের কোনো দায়বদ্ধতা নেই।

সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন উত্তরা পূর্ব থানা বিএনপির আহ্বায়ক শাহ আলম। এছাড়া উপস্থিত ছিলেন ঢাকা মহানগর উত্তরের যুগ্ম আহ্বায়ক মোস্তাফিজুর রহমান, ছাত্রদলের সভাপতি কাজী রওনাকুল ইসলাম শ্রাবন প্রমুখ।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

কামাল হোসাইন

হ্যালো আমি কামাল হোসাইন, আমি গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করছি। ২০১৭ সাল থেকে এই পত্রিকার সাথে কাজ করছি। এভাবে এখানে আপনার প্রতিনিধিদের সম্পর্কে কিছু লিখতে পারবেন।
জনপ্রিয় সংবাদ

সরকার তারেককে ফিরিয়ে এনে অবশ্যই আদালতের রায় কার্যকর করবে : প্রধানমন্ত্রী

জনগণ আর তামাশার নির্বাচন হতে দেবে না: ফখরুল

আপডেট সময় ০৪:২৬:০০ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ৫ মার্চ ২০২৩

আওয়ামী লীগের সমালোচনা করে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, তারা মনে করেছে যে এভাবে করে নির্বাচন করবে। আবারও তারা এভাবে জনগণকে শোষণ করবে, জনগণের সম্পদ লুটপাট করবে।

এবার কী মানুষ তা হতে দেবে? জনগণ আর কোনো তামাশার নির্বাচন হতে দেবে না।

শনিবার (৪ মার্চ) রাজধানীর উত্তরায় গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারে ১০ দফা দাবি আদায়ে পদযাত্রায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।
মির্জা ফখরুল বলেন, আমরা সমমনা দলগুলো গত সেপ্টেম্বর থেকে সারা দেশে আন্দোলন করছি। এ আন্দোলন জনগণের অধিকার ফিরিয়ে দেওয়ার আন্দোলন। তারই অংশ হিসেবে আমাদের এ পদযাত্রা কর্মসূচি।

সব নিত্যপণ্যের দাম বিএনপির আমলের তুলনায় বেশি উল্লেখ করে তিনি বলেন, মানুষ আজ কষ্টে আছে। দুই মাসের মধ্যে ১৫ পার্সেন্ট বিদ্যুতের দাম বাড়িয়েছে। এর ফলে কৃষিক্ষেত্রে খরচ বেড়ে যাচ্ছে। কল-কারখানার খরচ বেড়ে যাচ্ছে।

জনগণকে উদ্দেশ্য করে মির্জা ফখরুল বলেন, আমি আপনাদের আহ্বান জানাবো শান্তিপূর্ণভাবে এ আন্দোলনকে সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যান। আমাদের এ আন্দোলন বিএনপিকে ক্ষমতায় নেওয়ার জন্য নয়। আমাদের এ আন্দোলন জনগণের অধিকার ফিরে পাওয়ার আন্দোলন। মানুষের যে কথা বলার অধিকার, সে অধিকার ফিরিয়ে দেওয়ার আন্দোলন। কথায় কথায় যারা মামলা দেয়, রাতের বেলা তুলে নিয়ে যায়, এ ভয় দেখিয়ে আমাদের লাভ আছে? ১৫ বছর ধরে আমরা এ আন্দোলনে আছি। আন্দোলনে থাকবো।

সমাবেশে বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য আমানউল্লাহ আমান বলেন, আজকে এ পদযাত্রা প্রমাণ করে, জনগণের অংশগ্রহণ প্রমাণ করে বিএনপি যে ১০ দফা দাবি দিয়েছে, এ দবির প্রতি ঢাকার জনগণ সমর্থন দিয়েছে। ১০ দফার যে প্রথম দফা এ অনির্বাচিত, ভোট ডাকাত, ভোট চোর সরকারের অধীনে কোনো নির্বাচন হবে না। দেশে নির্বাচন হতে হলে এমন নির্বাচন হবে যে নির্বাচনে বিএনপি যাবে, সে নির্বাচন হবে নির্দলীয়, নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে। শেখ হাসিনা নিরপেক্ষ নয়। জনগণের প্রতি সরকারের কোনো দায়বদ্ধতা নেই।

সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন উত্তরা পূর্ব থানা বিএনপির আহ্বায়ক শাহ আলম। এছাড়া উপস্থিত ছিলেন ঢাকা মহানগর উত্তরের যুগ্ম আহ্বায়ক মোস্তাফিজুর রহমান, ছাত্রদলের সভাপতি কাজী রওনাকুল ইসলাম শ্রাবন প্রমুখ।