ঢাকা , বুধবার, ২৯ মে ২০২৪, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
Logo সরকার তারেককে ফিরিয়ে এনে অবশ্যই আদালতের রায় কার্যকর করবে : প্রধানমন্ত্রী Logo ফিলিস্তিনকে রাষ্ট্রের স্বীকৃতির প্রভাব কী হতে পারে? Logo মায়ের ওড়না শাড়ি বানিয়ে পরলেন জেফার, দেখালেন চমক Logo পরিবারসহ বেনজীরের আরও ১১৩ স্থাবর-অস্থাবর সম্পত্তি ক্রোকের নির্দেশ Logo হায়দরাবাদকে গুঁড়িয়ে, উড়িয়ে কলকাতা চ্যাম্পিয়ন Logo ফতুল্লায় রহিম হাজী ও সামেদ আলীর গ্রুপে সংঘর্ষ, ভাংচুর, আহত ১৫ Logo সোনারগাঁয়ে নির্বাচন পরবর্তী প্রতিহিংসায় শতাধিক ফলজ গাছ কর্তন Logo মুছাপুরে স্বর্ণকার অজিতের প্রেমের ফাঁদে সর্বশান্ত প্রবাসী নারী Logo বন্দরে বিভিন্ন মামলার ২ সাঁজাপ্রাপ্ত আসামি গ্রেপ্তার Logo নাসিকের ময়লার গাড়ির ধাক্কায় অন্ত:সত্তা নারীর মৃত্যু, চালক আটক

চীনা হ্যাকারদের হামলার শিকার যুক্তরাষ্ট্রের গুরুত্বপূর্ণ অবকাঠামো: মাইক্রোসফট

যুক্তরাষ্ট্রের গুরুত্বপূর্ণ অবকাঠামোতে চীনের রাষ্ট্রীয় মদদপুষ্ট ‘ভোল্ট টাইফুন’ দলের হ্যাকাররা হামলা করেছে বলে অভিযোগ করছে টেক জায়ান্ট মাইক্রোসফটসহ ‘ফাইভ আইস’ নামে পরিচিত পশ্চিমা ৫ দেশের গোয়েন্দা সংস্থা। বৃহস্পতিবার (২৫ মে) চীনা হ্যাকারদের বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ করে তারা।

সংস্থাটির অংশীদার ৫ দেশ হলো অস্ট্রেলিয়া, কানাডা, নিউজিল্যান্ড, যুক্তরাজ্য ও যুক্তরাষ্ট্র। যৌথ বিবৃতিতে পশ্চিমা সাইবার নিরাপত্তা এজেন্সি বলেছে, ‘বেসরকারি খাতের অংশীদারেরা মনে করছে এমন কর্মকাণ্ডের মাধ্যমে মার্কিন গুরুত্বপূর্ণ অবকাঠামো ক্ষতিগ্রস্ত করার চেষ্টা করে হ্যাকার দলটি। একই কৌশল ব্যবহার করে বিশ্বব্যাপী বিভিন্ন খাতে হামলা করতে পারে তারা।’

পৃথক বিবৃতিতে মাইক্রোসফট জানায়, হ্যাকার দলটি ২০২১ সালের মাঝামাঝি থেকে সক্রিয়। দলটি গুয়ামসহ যুক্তরাষ্ট্রের উৎপাদন, পরিবহন, নির্মাণ, সমুদ্র, সরকার, তথ্য প্রযুক্তি এবং শিক্ষা খাতকে লক্ষ্য করে হামলা পরিচালনা করেছে।

টেক জায়ান্ট মাইক্রোসফট আরও বলেছে, ‘ভবিষ্যতের সংকটে যুক্তরাষ্ট্র ও এশিয়ার মধ্যে গুরুত্বপূর্ণ যোগাযোগ অবকাঠামো’ ধ্বংস করাই ছিল হ্যাকার দলটির উদ্দেশ্য। এ বিষয়ে তারা ‘মোটামুটি নিশ্চিত’ বলে জানিয়েছে কোম্পানিটি।

এমন সংকটের মধ্যে তাইওয়ানে চীনা হামলার আশঙ্কা অন্যতম বলে জানিয়েছে কোম্পানিটি। প্রায় ২৩ লাখ বাসিন্দার এই দ্বীপটিকে চীন নিজ ভূখণ্ড বলে দাবি করে বিভিন্ন ধরনের সামরিক কার্যক্রম পরিচালনা করে।

এর আগে ভোল্ট টাইফুন নামক হ্যাকার দলটির বিরুদ্ধে গুপ্তচরবৃত্তির অভিযোগ ছিল। যুক্তরাষ্ট্র ও অন্যান্য দেশের গোয়েন্দা ও সাইবার নিরাপত্তা এজেন্সির অভিযোগ, দেশগুলোর অবকাঠামোতে হামলার পেছনে এই দলটিই দায়ী।

কয়েক মাস আগে যুক্তরাষ্ট্রের আকাশে কয়েকটি চীনা গোয়েন্দা বেলুন পাওয়া গিয়েছিল বলে দাবি করে ওয়াশিংটন। এগুলোকে ভূপাতিত করেছিল মার্কিন কর্তৃপক্ষ। হোয়াইট হাউজের ধারণা, গোয়েন্দা বেলুনের মাধ্যমে মার্কিন পারমাণবিক স্থাপনা ও সামরিক তথ্য পেতে এমন কাজ করেছে চীন।

তবে গুপ্তচরবৃত্তির এমন অভিযোগ পুরোপুরি অস্বীকার করে সেগুলোকে বেসামরিক ক্ষেত্রে ব্যবহৃত বেলুন বলে দাবি করেছে বেইজিং।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

কামাল হোসাইন

হ্যালো আমি কামাল হোসাইন, আমি গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করছি। ২০১৭ সাল থেকে এই পত্রিকার সাথে কাজ করছি। এভাবে এখানে আপনার প্রতিনিধিদের সম্পর্কে কিছু লিখতে পারবেন।
জনপ্রিয় সংবাদ

সরকার তারেককে ফিরিয়ে এনে অবশ্যই আদালতের রায় কার্যকর করবে : প্রধানমন্ত্রী

চীনা হ্যাকারদের হামলার শিকার যুক্তরাষ্ট্রের গুরুত্বপূর্ণ অবকাঠামো: মাইক্রোসফট

আপডেট সময় ০৪:১৯:৫৪ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৬ মে ২০২৩

যুক্তরাষ্ট্রের গুরুত্বপূর্ণ অবকাঠামোতে চীনের রাষ্ট্রীয় মদদপুষ্ট ‘ভোল্ট টাইফুন’ দলের হ্যাকাররা হামলা করেছে বলে অভিযোগ করছে টেক জায়ান্ট মাইক্রোসফটসহ ‘ফাইভ আইস’ নামে পরিচিত পশ্চিমা ৫ দেশের গোয়েন্দা সংস্থা। বৃহস্পতিবার (২৫ মে) চীনা হ্যাকারদের বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ করে তারা।

সংস্থাটির অংশীদার ৫ দেশ হলো অস্ট্রেলিয়া, কানাডা, নিউজিল্যান্ড, যুক্তরাজ্য ও যুক্তরাষ্ট্র। যৌথ বিবৃতিতে পশ্চিমা সাইবার নিরাপত্তা এজেন্সি বলেছে, ‘বেসরকারি খাতের অংশীদারেরা মনে করছে এমন কর্মকাণ্ডের মাধ্যমে মার্কিন গুরুত্বপূর্ণ অবকাঠামো ক্ষতিগ্রস্ত করার চেষ্টা করে হ্যাকার দলটি। একই কৌশল ব্যবহার করে বিশ্বব্যাপী বিভিন্ন খাতে হামলা করতে পারে তারা।’

পৃথক বিবৃতিতে মাইক্রোসফট জানায়, হ্যাকার দলটি ২০২১ সালের মাঝামাঝি থেকে সক্রিয়। দলটি গুয়ামসহ যুক্তরাষ্ট্রের উৎপাদন, পরিবহন, নির্মাণ, সমুদ্র, সরকার, তথ্য প্রযুক্তি এবং শিক্ষা খাতকে লক্ষ্য করে হামলা পরিচালনা করেছে।

টেক জায়ান্ট মাইক্রোসফট আরও বলেছে, ‘ভবিষ্যতের সংকটে যুক্তরাষ্ট্র ও এশিয়ার মধ্যে গুরুত্বপূর্ণ যোগাযোগ অবকাঠামো’ ধ্বংস করাই ছিল হ্যাকার দলটির উদ্দেশ্য। এ বিষয়ে তারা ‘মোটামুটি নিশ্চিত’ বলে জানিয়েছে কোম্পানিটি।

এমন সংকটের মধ্যে তাইওয়ানে চীনা হামলার আশঙ্কা অন্যতম বলে জানিয়েছে কোম্পানিটি। প্রায় ২৩ লাখ বাসিন্দার এই দ্বীপটিকে চীন নিজ ভূখণ্ড বলে দাবি করে বিভিন্ন ধরনের সামরিক কার্যক্রম পরিচালনা করে।

এর আগে ভোল্ট টাইফুন নামক হ্যাকার দলটির বিরুদ্ধে গুপ্তচরবৃত্তির অভিযোগ ছিল। যুক্তরাষ্ট্র ও অন্যান্য দেশের গোয়েন্দা ও সাইবার নিরাপত্তা এজেন্সির অভিযোগ, দেশগুলোর অবকাঠামোতে হামলার পেছনে এই দলটিই দায়ী।

কয়েক মাস আগে যুক্তরাষ্ট্রের আকাশে কয়েকটি চীনা গোয়েন্দা বেলুন পাওয়া গিয়েছিল বলে দাবি করে ওয়াশিংটন। এগুলোকে ভূপাতিত করেছিল মার্কিন কর্তৃপক্ষ। হোয়াইট হাউজের ধারণা, গোয়েন্দা বেলুনের মাধ্যমে মার্কিন পারমাণবিক স্থাপনা ও সামরিক তথ্য পেতে এমন কাজ করেছে চীন।

তবে গুপ্তচরবৃত্তির এমন অভিযোগ পুরোপুরি অস্বীকার করে সেগুলোকে বেসামরিক ক্ষেত্রে ব্যবহৃত বেলুন বলে দাবি করেছে বেইজিং।