ঢাকা , শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চাল ধোয়া পানি যত্ন নেবে ত্বক ও চুলের

রূপচর্চায় ব্যবহারের জন্য ২ উপায়ে প্রস্তুত করতে পারেন চালের পানি। ১ কাপ পানিতে ২ কাপ চাল ভিজিয়ে রাখুন ৩০ মিনিটের জন্য। এরপর ছেঁকে বোতলে ভরে নিন এই পানি। আরেকটি উপায় হচ্ছে ফুটিয়ে নেওয়া। এজন্য চাল ও চালের পরিমাণের দ্বিগুণ পানি দিয়ে চুলায় বসিয়ে দিন। চাল আধা সেদ্ধ হলে নামিয়ে ছেঁকে নিন পানি।

মুখবন্ধ পাত্রে ৪ থেকে ৫ দিন রুমের তাপমাত্রায় রেখে ব্যবহার করতে পারেন এই পানি। এর বেশি ব্যবহার করবেন না।

জাপান, কোরিয়া, ইন্দোনেশিয়ায় ত্বকের যত্নে বহু বছর ধরেই চালের পানি ব্যবহৃত হয়ে আসছে। এমনকি শ্যাম্পুর মতো করেও চুল পরিষ্কার রাখার জন্য এই পানি ব্যবহৃত হয়। নিয়মিত ব্যবহার করলে চুল যেমন ঝলমলে হয়, তেমনি সহজে পাকেও না চুল।

কীভাবে ব্যবহার করবেন?

মুখ ধোয়ার জন্য ব্যবহার করতে পারেন চালের পানি। স্কিন টোনার হিসেবে স্প্রে করতে পারেন ত্বকে। এছাড়া এই পানির সঙ্গে বিভিন্ন প্রাকৃতিক উপাদান মিশিয়ে তৈরি করে নিতে পারেন ফেস প্যাক।
শ্যাম্পু শেষে চুল ধুয়ে নিন। এরপর চাল ধোয়া পানি চুলে ঢেলে ম্যাসাজ করুন ১ মিনিট। ২০ মিনিট অপেক্ষা করে ধুয়ে ফেলুন।

ত্বক ও চুলের যত্নে কেন ব্যবহার করবেন চালের পানি?

ত্বকের জন্য প্রাকৃতিক সানস্ক্রিন হিসেবে কাজ করে এই পানি। নিয়মিত ব্যবহার করলে সূর্যের ক্ষতিকর রশ্মি থেকে ত্বক রক্ষা পায়। রোদে পুড়ে যাওয়া ত্বকের কালচে ভাব দূর করতেও সক্ষম চাল ধোয়া পানি।
ত্বকে সহজে বলিরেখা পড়তে দেয় না।
ব্রণ দূর করতে সাহায্য করে।
ত্বকে নিয়ে আসে প্রাকৃতিক উজ্জ্বলতা।
কেমিক্যাল ফ্রি উপায়ে চুল পরিষ্কার রাখতে সাহায্য করে চাল ধোয়া পানি।
চুলের রুক্ষতা দূর করে ঝলমলে করে।
মাথার ত্বকের পিএইচ লেভেল ব্যালেন্স করে।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

কামাল হোসাইন

হ্যালো আমি কামাল হোসাইন, আমি গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করছি। ২০১৭ সাল থেকে এই পত্রিকার সাথে কাজ করছি। এভাবে এখানে আপনার প্রতিনিধিদের সম্পর্কে কিছু লিখতে পারবেন।

চাল ধোয়া পানি যত্ন নেবে ত্বক ও চুলের

আপডেট সময় ০৪:৩৮:৩৩ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৬ মার্চ ২০২৩

রূপচর্চায় ব্যবহারের জন্য ২ উপায়ে প্রস্তুত করতে পারেন চালের পানি। ১ কাপ পানিতে ২ কাপ চাল ভিজিয়ে রাখুন ৩০ মিনিটের জন্য। এরপর ছেঁকে বোতলে ভরে নিন এই পানি। আরেকটি উপায় হচ্ছে ফুটিয়ে নেওয়া। এজন্য চাল ও চালের পরিমাণের দ্বিগুণ পানি দিয়ে চুলায় বসিয়ে দিন। চাল আধা সেদ্ধ হলে নামিয়ে ছেঁকে নিন পানি।

মুখবন্ধ পাত্রে ৪ থেকে ৫ দিন রুমের তাপমাত্রায় রেখে ব্যবহার করতে পারেন এই পানি। এর বেশি ব্যবহার করবেন না।

জাপান, কোরিয়া, ইন্দোনেশিয়ায় ত্বকের যত্নে বহু বছর ধরেই চালের পানি ব্যবহৃত হয়ে আসছে। এমনকি শ্যাম্পুর মতো করেও চুল পরিষ্কার রাখার জন্য এই পানি ব্যবহৃত হয়। নিয়মিত ব্যবহার করলে চুল যেমন ঝলমলে হয়, তেমনি সহজে পাকেও না চুল।

কীভাবে ব্যবহার করবেন?

মুখ ধোয়ার জন্য ব্যবহার করতে পারেন চালের পানি। স্কিন টোনার হিসেবে স্প্রে করতে পারেন ত্বকে। এছাড়া এই পানির সঙ্গে বিভিন্ন প্রাকৃতিক উপাদান মিশিয়ে তৈরি করে নিতে পারেন ফেস প্যাক।
শ্যাম্পু শেষে চুল ধুয়ে নিন। এরপর চাল ধোয়া পানি চুলে ঢেলে ম্যাসাজ করুন ১ মিনিট। ২০ মিনিট অপেক্ষা করে ধুয়ে ফেলুন।

ত্বক ও চুলের যত্নে কেন ব্যবহার করবেন চালের পানি?

ত্বকের জন্য প্রাকৃতিক সানস্ক্রিন হিসেবে কাজ করে এই পানি। নিয়মিত ব্যবহার করলে সূর্যের ক্ষতিকর রশ্মি থেকে ত্বক রক্ষা পায়। রোদে পুড়ে যাওয়া ত্বকের কালচে ভাব দূর করতেও সক্ষম চাল ধোয়া পানি।
ত্বকে সহজে বলিরেখা পড়তে দেয় না।
ব্রণ দূর করতে সাহায্য করে।
ত্বকে নিয়ে আসে প্রাকৃতিক উজ্জ্বলতা।
কেমিক্যাল ফ্রি উপায়ে চুল পরিষ্কার রাখতে সাহায্য করে চাল ধোয়া পানি।
চুলের রুক্ষতা দূর করে ঝলমলে করে।
মাথার ত্বকের পিএইচ লেভেল ব্যালেন্স করে।