ঢাকা , সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ১ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চনপাড়ায় যৌথ বাহিনীর অভিযান, ধারালো অস্ত্রসহ গ্রেপ্তার ১১

রূপগঞ্জের চনপাড়া পূর্ণবাসন কেন্দ্র এলাকায় যৌথ বাহিনী অভিযান পরিচালনা করে ধারালো অস্ত্র সহ ১১ জনকে গ্রেপ্তার করেছেন। শুক্রবার (১২ মে) ভোরে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা এই যৌথ অভিযান পরিচালনা করেন।

গ্রেপ্তাররা হলেন, চনপাড়া পূর্ণবাসন কেন্দ্র এলাকার আরাফাত, রানা, সাগর, কালো বেপারী, জিহাদ, শরীফ, জিসান, রাকিবুল ইসলাম, বাবুল হোসেন, মনির হোসেন ও জলিল।

 

রূপগঞ্জ থানার ওসি/তদন্ত ইন্সপেক্টর আতাউর রহমান জানান, গত (১০ মে) চনপাড়া পূর্ণবাসন কেন্দ্র এলাকার আধিপত্য বিস্তার নিয়ে জয়নাল গ্রুপ, রাব্বি গ্রুপ, শাহাবুদ্দিন গ্রুপ ও শমসের গ্রুপসহ বেশ কয়েকটি গ্রুপ গোলাগুলি ও সংঘর্ষে জড়ায়। ওই ঘটনার পর রাতভর অভিযান পরিচালনা করে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা।

অভিযানকালে উদ্ধার করা হয় ধারালো রামদা, চাপাতি, সামুরাই, হেলমেট, লাঠিসোটা ও জ্যাকেট। এছাড়া গ্রেপ্তার করা হয় পাঁচজনকে।

দ্বিতীয় ধাপে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা শুক্রবার ভোরে ফের যৌথ অভিযান পরিচালনা শুরু করেন। অভিযান কালে ওই ১১জনকে গ্রেপ্তারসহ চারটি রামদা ও বিভিন্ন সাইজের সাতটি ছুরি উদ্ধার করেন।

 

এ ঘটনায় দেশীয় অস্ত্র নিজ দখল ও হেফাজতে রাখার অপরাধে রূপগঞ্জ থানার এসআই অলিউল্লাহ বাদী হয়ে ১১ জনকে নামীয় ও ৫০ থেকে ৬০ জনকে অজ্ঞাত আসামী করে একটি মামলা দায়ের করেন। আর ওই মামলায় আসামিদের নারায়ণগঞ্জ আদালতে পাঠানো হয়।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

কামাল হোসাইন

হ্যালো আমি কামাল হোসাইন, আমি গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করছি। ২০১৭ সাল থেকে এই পত্রিকার সাথে কাজ করছি। এভাবে এখানে আপনার প্রতিনিধিদের সম্পর্কে কিছু লিখতে পারবেন।

চনপাড়ায় যৌথ বাহিনীর অভিযান, ধারালো অস্ত্রসহ গ্রেপ্তার ১১

আপডেট সময় ০৩:৪৮:১৬ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৩ মে ২০২৩

রূপগঞ্জের চনপাড়া পূর্ণবাসন কেন্দ্র এলাকায় যৌথ বাহিনী অভিযান পরিচালনা করে ধারালো অস্ত্র সহ ১১ জনকে গ্রেপ্তার করেছেন। শুক্রবার (১২ মে) ভোরে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা এই যৌথ অভিযান পরিচালনা করেন।

গ্রেপ্তাররা হলেন, চনপাড়া পূর্ণবাসন কেন্দ্র এলাকার আরাফাত, রানা, সাগর, কালো বেপারী, জিহাদ, শরীফ, জিসান, রাকিবুল ইসলাম, বাবুল হোসেন, মনির হোসেন ও জলিল।

 

রূপগঞ্জ থানার ওসি/তদন্ত ইন্সপেক্টর আতাউর রহমান জানান, গত (১০ মে) চনপাড়া পূর্ণবাসন কেন্দ্র এলাকার আধিপত্য বিস্তার নিয়ে জয়নাল গ্রুপ, রাব্বি গ্রুপ, শাহাবুদ্দিন গ্রুপ ও শমসের গ্রুপসহ বেশ কয়েকটি গ্রুপ গোলাগুলি ও সংঘর্ষে জড়ায়। ওই ঘটনার পর রাতভর অভিযান পরিচালনা করে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা।

অভিযানকালে উদ্ধার করা হয় ধারালো রামদা, চাপাতি, সামুরাই, হেলমেট, লাঠিসোটা ও জ্যাকেট। এছাড়া গ্রেপ্তার করা হয় পাঁচজনকে।

দ্বিতীয় ধাপে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা শুক্রবার ভোরে ফের যৌথ অভিযান পরিচালনা শুরু করেন। অভিযান কালে ওই ১১জনকে গ্রেপ্তারসহ চারটি রামদা ও বিভিন্ন সাইজের সাতটি ছুরি উদ্ধার করেন।

 

এ ঘটনায় দেশীয় অস্ত্র নিজ দখল ও হেফাজতে রাখার অপরাধে রূপগঞ্জ থানার এসআই অলিউল্লাহ বাদী হয়ে ১১ জনকে নামীয় ও ৫০ থেকে ৬০ জনকে অজ্ঞাত আসামী করে একটি মামলা দায়ের করেন। আর ওই মামলায় আসামিদের নারায়ণগঞ্জ আদালতে পাঠানো হয়।