ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চট্টগ্রামে গ্যাস লাইনে বিস্ফোরণে দগ্ধ ৪

চট্টগ্রামের চান্দগাঁওয়ে গ্যাস লাইনের লিকেজ থেকে বিস্ফোরণে চারজন দগ্ধ হয়েছেন। এ ছাড়া আহত হয়েছেন আরও চারজন। গত বুধবার দিবাগত রাত ৩টার দিকে চান্দগাঁও থানার বলির হাট এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। চান্দগাঁও থানার এসআই রিদুয়ানুল হক বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, বিস্ফোরণে চারজনের শরীরের আংশিক দগ্ধ হয়। পরে তাদের উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে তাদের ছেড়ে দেওয়া হয়। দগ্ধরা হলেন- একই পরিবারের মামুনা খাতুন (৬০), ডলি আকতার (৩৫), মো. মাহিন (১০) ও সোমা আকতার (১৮)। আহতরা হলেন- আরেক পরিবারের নুরুন্নাহার খাতুন (৫০), রিনা আকতার (১৬), মো. হৃদয় (১৭) এবং সানজিদা আকতার (১২)। তারা বিস্ফোরণে ঘরের বেড়াচাপায় আহত হন।

রিদুয়ানুল হক বলেন, গ্যাসের সংযোগ লাইন ও সেফটিক ট্যাংকের লাইন একটি ড্রেনের নিচ দিয়ে নেওয়া হয়েছিল। ড্রেনের ওপরের অংশে ছিদ্র রাখা হলেও তা আবর্জনা জমে ভরাট হয়ে যায়। এতে ড্রেনটি গ্যাস চেম্বারে পরিণত হয়ে বিস্ফোরিত হয়। দুর্ঘটনার পরপরই খবর পেয়ে কালুরঘাট ফায়ার স্টেশনের একটি টিম ঘটনাস্থলে ছুটে যায়। পরে স্থানীয় বাসিন্দা, ফায়ার সার্ভিস ও পুলিশ সদস্যরা ক্ষতিগ্রস্তদের উদ্ধার করেন। কালুরঘাট ফায়ার স্টেশনের সিনিয়র স্টেশন অফিসার বাহার উদ্দিন বলেন, ড্রেনের মধ্যদিয়ে আসা একটি গ্যাস লাইন লিক হয়েছে। ড্রেনটি বদ্ধ থাকায় সেপটিক ট্যাংকের গ্যাস ও লাইনের গ্যাস জমে যাওয়ার কারণে বিস্ফোরিত হয়েছে। বিস্ফোরণে একটি সেমিপাকা ঘরও ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। পরে কর্ণফুলী গ্যাসের লোকজন এসে লিকেজ হওয়া লাইনটি মেরামত করছেন।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

কামাল হোসাইন

হ্যালো আমি কামাল হোসাইন, আমি গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করছি। ২০১৭ সাল থেকে এই পত্রিকার সাথে কাজ করছি। এভাবে এখানে আপনার প্রতিনিধিদের সম্পর্কে কিছু লিখতে পারবেন।
জনপ্রিয় সংবাদ

চট্টগ্রামে গ্যাস লাইনে বিস্ফোরণে দগ্ধ ৪

আপডেট সময় ০৪:২৪:০৪ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৩

চট্টগ্রামের চান্দগাঁওয়ে গ্যাস লাইনের লিকেজ থেকে বিস্ফোরণে চারজন দগ্ধ হয়েছেন। এ ছাড়া আহত হয়েছেন আরও চারজন। গত বুধবার দিবাগত রাত ৩টার দিকে চান্দগাঁও থানার বলির হাট এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। চান্দগাঁও থানার এসআই রিদুয়ানুল হক বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, বিস্ফোরণে চারজনের শরীরের আংশিক দগ্ধ হয়। পরে তাদের উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে তাদের ছেড়ে দেওয়া হয়। দগ্ধরা হলেন- একই পরিবারের মামুনা খাতুন (৬০), ডলি আকতার (৩৫), মো. মাহিন (১০) ও সোমা আকতার (১৮)। আহতরা হলেন- আরেক পরিবারের নুরুন্নাহার খাতুন (৫০), রিনা আকতার (১৬), মো. হৃদয় (১৭) এবং সানজিদা আকতার (১২)। তারা বিস্ফোরণে ঘরের বেড়াচাপায় আহত হন।

রিদুয়ানুল হক বলেন, গ্যাসের সংযোগ লাইন ও সেফটিক ট্যাংকের লাইন একটি ড্রেনের নিচ দিয়ে নেওয়া হয়েছিল। ড্রেনের ওপরের অংশে ছিদ্র রাখা হলেও তা আবর্জনা জমে ভরাট হয়ে যায়। এতে ড্রেনটি গ্যাস চেম্বারে পরিণত হয়ে বিস্ফোরিত হয়। দুর্ঘটনার পরপরই খবর পেয়ে কালুরঘাট ফায়ার স্টেশনের একটি টিম ঘটনাস্থলে ছুটে যায়। পরে স্থানীয় বাসিন্দা, ফায়ার সার্ভিস ও পুলিশ সদস্যরা ক্ষতিগ্রস্তদের উদ্ধার করেন। কালুরঘাট ফায়ার স্টেশনের সিনিয়র স্টেশন অফিসার বাহার উদ্দিন বলেন, ড্রেনের মধ্যদিয়ে আসা একটি গ্যাস লাইন লিক হয়েছে। ড্রেনটি বদ্ধ থাকায় সেপটিক ট্যাংকের গ্যাস ও লাইনের গ্যাস জমে যাওয়ার কারণে বিস্ফোরিত হয়েছে। বিস্ফোরণে একটি সেমিপাকা ঘরও ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। পরে কর্ণফুলী গ্যাসের লোকজন এসে লিকেজ হওয়া লাইনটি মেরামত করছেন।