ঢাকা , মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ৩ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

গণহত্যার স্বীকৃতি পেতে কাজ করছে সরকার: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, ২৫ মার্চ জাতীয় গণহত্যা দিবসের আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি পেতে কাজ করছে সরকার। বঙ্গবন্ধুর হত্যার বিচার হয়েছে, এখন চেষ্টা আছে বাকি পলাতকদের বিচারের মুখোমুখি করার।

রোববার (২৬ মার্চ) সকালে রাজধানীতে এক অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন।

 

রাজারবাগ পুলিশ লাইন্সে মুক্তিযুদ্ধে আত্ম উৎসর্গকারী শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে মন্ত্রী আরও বলেন, ‘মার্চের প্রত্যেকটা দিনকেই আমরা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ দিন হিসেবে পালন করে থাকি। স্বাধীনতা দিবস ও তার আগে ২৫ মার্চ। ২৫ মার্চ কাল রাতকে গণহত্যা দিবস হিসেবে আমরা পালন করে আসছি।’

মন্ত্রী বলেন, ‘আমরা সারা বিশ্বের কাছে আজকে গণহত্যা দিবস হিসেবে পরিচিতি লাভের জন্য প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। এজন্য বিভিন্ন ব্যক্তি, রাষ্ট্র কিংবা সংস্থার কাছেও আমরা লিখিতভাবে জানিয়েছে। আশা করছি, গণহত্যার স্বীকৃতি আমরা অবশ্যই একদিন না একদিন পাবো।’

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

কামাল হোসাইন

হ্যালো আমি কামাল হোসাইন, আমি গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করছি। ২০১৭ সাল থেকে এই পত্রিকার সাথে কাজ করছি। এভাবে এখানে আপনার প্রতিনিধিদের সম্পর্কে কিছু লিখতে পারবেন।

গণহত্যার স্বীকৃতি পেতে কাজ করছে সরকার: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

আপডেট সময় ০৩:০৮:০৫ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৭ মার্চ ২০২৩

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, ২৫ মার্চ জাতীয় গণহত্যা দিবসের আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি পেতে কাজ করছে সরকার। বঙ্গবন্ধুর হত্যার বিচার হয়েছে, এখন চেষ্টা আছে বাকি পলাতকদের বিচারের মুখোমুখি করার।

রোববার (২৬ মার্চ) সকালে রাজধানীতে এক অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন।

 

রাজারবাগ পুলিশ লাইন্সে মুক্তিযুদ্ধে আত্ম উৎসর্গকারী শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে মন্ত্রী আরও বলেন, ‘মার্চের প্রত্যেকটা দিনকেই আমরা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ দিন হিসেবে পালন করে থাকি। স্বাধীনতা দিবস ও তার আগে ২৫ মার্চ। ২৫ মার্চ কাল রাতকে গণহত্যা দিবস হিসেবে আমরা পালন করে আসছি।’

মন্ত্রী বলেন, ‘আমরা সারা বিশ্বের কাছে আজকে গণহত্যা দিবস হিসেবে পরিচিতি লাভের জন্য প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। এজন্য বিভিন্ন ব্যক্তি, রাষ্ট্র কিংবা সংস্থার কাছেও আমরা লিখিতভাবে জানিয়েছে। আশা করছি, গণহত্যার স্বীকৃতি আমরা অবশ্যই একদিন না একদিন পাবো।’