ঢাকা , বুধবার, ২৯ মে ২০২৪, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

‘খালেদা জিয়ার মুক্তি সাময়িক, নির্বাচনে অংশ নিতে পারবেন না’

বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে সাময়িক মুক্তি দেওয়া হয়েছে উল্লেখ করে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, ‘সাজাপ্রাপ্ত আসামি হওয়ায় আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নিতে পারবেন না খালেদা জিয়া। চিকিৎসার জন্য তাকে সাময়িক মুক্তি দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া তার এখনকার শারীরিক অবস্থা রাজনীতি করার মতো নয়।’

শনিবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা উপজেলার জমশেরপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের শতবর্ষ পূর্তি উপলক্ষে আয়োজিত সমাবেশ শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন তিনি।

দুটি দুর্নীতি মামলার আসামি খালেদা জিয়া উল্লেখ করে আইনমন্ত্রী বলেন, ‘এর মধ্যে একটি মামলায় সাজা হয়েছে। অপরটির শুনানি চলছে। সাজাপ্রাপ্ত হওয়ায় সংবিধানের ৬৬ অনুচ্ছেদের ধারা অনুযায়ী তিনি কোনও নির্বাচনে অংশ নিতে পারবেন না।’

খালেদা জিয়ার ভাইয়ের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে দুটি শর্তে মুক্তি দেওয়া হয়েছিল বলেও উল্লেখ করেন আইনমন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘যে দুটি শর্তে তাকে মুক্তি দেওয়া হয়েছিল, তাতে বলা ছিল ঢাকায় নিজের বাসায় থেকে চিকিৎসা নেবেন। ওই সময়ে দেশের বাইরে গমন করতে পারবেন না। তবে রাজনীতি করার বিষয়ে কোনও শর্ত দেওয়া হয়নি।’

আইনমন্ত্রী আরও বলেন, ‘খালেদা জিয়ার ভাই যে আবেদনটা করেছিলেন, তাতে বলা আছে, তিনি গুরুতর অসুস্থ। এ অবস্থায় তাকে মানবিক কারণে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সাজা স্থগিত করে মুক্তি দিয়েছিলেন।’

খালেদা জিয়ার সাময়িক মুক্তির সঙ্গে রাজনীতি না করার বিষয়ে ক্ষমতাসীন দলের নেতাদের বক্তব্যের সঙ্গে একমত বলেও জানান আইনমন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘আমার সহকর্মীরা যা বলছেন, বাস্তব অবস্থা বিবেচনা করেই কথা বলছেন তারা। যিনি অসুস্থের কথা বলে কারগার থেকে বের হয়েছেন, তার তো রাজনীতি করার কথা নয়। তাদের কথায় যুক্তি আছে।’

এ সময় উপস্থিত ছিলেন আইন সচিব মো. গোলাম সারওয়ার ও কসবা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান রাশেদুল কায়সার ভূঁইয়া প্রমুখ।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

কামাল হোসাইন

হ্যালো আমি কামাল হোসাইন, আমি গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করছি। ২০১৭ সাল থেকে এই পত্রিকার সাথে কাজ করছি। এভাবে এখানে আপনার প্রতিনিধিদের সম্পর্কে কিছু লিখতে পারবেন।
জনপ্রিয় সংবাদ

‘খালেদা জিয়ার মুক্তি সাময়িক, নির্বাচনে অংশ নিতে পারবেন না’

আপডেট সময় ০৪:০৬:৫৩ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৩

বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে সাময়িক মুক্তি দেওয়া হয়েছে উল্লেখ করে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, ‘সাজাপ্রাপ্ত আসামি হওয়ায় আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নিতে পারবেন না খালেদা জিয়া। চিকিৎসার জন্য তাকে সাময়িক মুক্তি দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া তার এখনকার শারীরিক অবস্থা রাজনীতি করার মতো নয়।’

শনিবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা উপজেলার জমশেরপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের শতবর্ষ পূর্তি উপলক্ষে আয়োজিত সমাবেশ শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন তিনি।

দুটি দুর্নীতি মামলার আসামি খালেদা জিয়া উল্লেখ করে আইনমন্ত্রী বলেন, ‘এর মধ্যে একটি মামলায় সাজা হয়েছে। অপরটির শুনানি চলছে। সাজাপ্রাপ্ত হওয়ায় সংবিধানের ৬৬ অনুচ্ছেদের ধারা অনুযায়ী তিনি কোনও নির্বাচনে অংশ নিতে পারবেন না।’

খালেদা জিয়ার ভাইয়ের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে দুটি শর্তে মুক্তি দেওয়া হয়েছিল বলেও উল্লেখ করেন আইনমন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘যে দুটি শর্তে তাকে মুক্তি দেওয়া হয়েছিল, তাতে বলা ছিল ঢাকায় নিজের বাসায় থেকে চিকিৎসা নেবেন। ওই সময়ে দেশের বাইরে গমন করতে পারবেন না। তবে রাজনীতি করার বিষয়ে কোনও শর্ত দেওয়া হয়নি।’

আইনমন্ত্রী আরও বলেন, ‘খালেদা জিয়ার ভাই যে আবেদনটা করেছিলেন, তাতে বলা আছে, তিনি গুরুতর অসুস্থ। এ অবস্থায় তাকে মানবিক কারণে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সাজা স্থগিত করে মুক্তি দিয়েছিলেন।’

খালেদা জিয়ার সাময়িক মুক্তির সঙ্গে রাজনীতি না করার বিষয়ে ক্ষমতাসীন দলের নেতাদের বক্তব্যের সঙ্গে একমত বলেও জানান আইনমন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘আমার সহকর্মীরা যা বলছেন, বাস্তব অবস্থা বিবেচনা করেই কথা বলছেন তারা। যিনি অসুস্থের কথা বলে কারগার থেকে বের হয়েছেন, তার তো রাজনীতি করার কথা নয়। তাদের কথায় যুক্তি আছে।’

এ সময় উপস্থিত ছিলেন আইন সচিব মো. গোলাম সারওয়ার ও কসবা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান রাশেদুল কায়সার ভূঁইয়া প্রমুখ।