ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

কমান্ডারদের সমালোচনা করতে পারা উচিত রুশ নাগরিকদের: ওয়াগনার

রুশ ভাড়াটে বাহিনী ওয়াগনার গ্রুপের প্রধান ইয়েভজেনি প্রিগোজিন বলেছেন, রুশ নাগরিকদের সেনাবাহিনীর শীর্ষ কমান্ডারদের সমালোচনা করতে পারা উচিত। শুধু সাধারণ সেনারা সমালোচনার ঊর্ধ্বে। বুধবার নিজের টেলিগ্রাম চ্যানেলে এই মন্তব্য করেছেন তিনি। কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা এ খবর জানিয়েছে।

সম্প্রতি রুশ সরকার একটি আইন পাস করেছে। আইন অনুসারে, রাশিয়ার সেনাবাহিনীর সুনামহানি হয় এমন মন্তব্যকে শাস্তিযোগ্য অপরাধ হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে।

ইউক্রেনে রুশ আক্রমণের কথা ইঙ্গিত করে প্রিগোজিন বলেন, আমি মনে করি সামরিক নির্দেশ দাতা, আমি, প্রতিরক্ষামন্ত্রী এবং যারা একটি বিশেষ সামরিক অভিযানের সময়ে ভুল করছেন, তাদের ক্ষেত্রে সুনামহানি করার বিরুদ্ধে যে আইন তা কার্যকর হওয়া উচিত না।

তিনি বলেন, সমাজের উচিত তাদের সম্পর্কে যা বলা প্রয়োজন তা বলতে পারা। শুধু সেনারা পবিত্র। তাদের ছেড়ে দেওয়া উচিত।

ইউক্রেনে রুশ আক্রমণে রাশিয়ার হয়ে লড়ছে ওয়াগনার গ্রুপের যোদ্ধারা। বাখমুত শহর দখলের লড়াইয়ে সামনের সারিতে রয়েছে তারা। রুশ অভিজাতদের মধ্যে প্রিগোজিন নিয়মিত যুদ্ধ নিয়ে মন্তব্য করে যাচ্ছেন।

রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের ঘনিষ্ঠ মিত্র তিনি। তবে সম্প্রতি তিনি রাশিয়ার পুরনো ধাঁচের সামরিক বাহিনী ও প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের কড়া সমালোচনা করছেন। অভিযোগ তুলেছেন, রুশ সেনাবাহিনী ও প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় তার বাহিনীকে প্রয়োজনীয় গোলাবারুদ সরবরাহ করছে না।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

কামাল হোসাইন

হ্যালো আমি কামাল হোসাইন, আমি গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করছি। ২০১৭ সাল থেকে এই পত্রিকার সাথে কাজ করছি। এভাবে এখানে আপনার প্রতিনিধিদের সম্পর্কে কিছু লিখতে পারবেন।
জনপ্রিয় সংবাদ

কমান্ডারদের সমালোচনা করতে পারা উচিত রুশ নাগরিকদের: ওয়াগনার

আপডেট সময় ০৪:২২:৩২ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৬ মার্চ ২০২৩

রুশ ভাড়াটে বাহিনী ওয়াগনার গ্রুপের প্রধান ইয়েভজেনি প্রিগোজিন বলেছেন, রুশ নাগরিকদের সেনাবাহিনীর শীর্ষ কমান্ডারদের সমালোচনা করতে পারা উচিত। শুধু সাধারণ সেনারা সমালোচনার ঊর্ধ্বে। বুধবার নিজের টেলিগ্রাম চ্যানেলে এই মন্তব্য করেছেন তিনি। কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা এ খবর জানিয়েছে।

সম্প্রতি রুশ সরকার একটি আইন পাস করেছে। আইন অনুসারে, রাশিয়ার সেনাবাহিনীর সুনামহানি হয় এমন মন্তব্যকে শাস্তিযোগ্য অপরাধ হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে।

ইউক্রেনে রুশ আক্রমণের কথা ইঙ্গিত করে প্রিগোজিন বলেন, আমি মনে করি সামরিক নির্দেশ দাতা, আমি, প্রতিরক্ষামন্ত্রী এবং যারা একটি বিশেষ সামরিক অভিযানের সময়ে ভুল করছেন, তাদের ক্ষেত্রে সুনামহানি করার বিরুদ্ধে যে আইন তা কার্যকর হওয়া উচিত না।

তিনি বলেন, সমাজের উচিত তাদের সম্পর্কে যা বলা প্রয়োজন তা বলতে পারা। শুধু সেনারা পবিত্র। তাদের ছেড়ে দেওয়া উচিত।

ইউক্রেনে রুশ আক্রমণে রাশিয়ার হয়ে লড়ছে ওয়াগনার গ্রুপের যোদ্ধারা। বাখমুত শহর দখলের লড়াইয়ে সামনের সারিতে রয়েছে তারা। রুশ অভিজাতদের মধ্যে প্রিগোজিন নিয়মিত যুদ্ধ নিয়ে মন্তব্য করে যাচ্ছেন।

রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের ঘনিষ্ঠ মিত্র তিনি। তবে সম্প্রতি তিনি রাশিয়ার পুরনো ধাঁচের সামরিক বাহিনী ও প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের কড়া সমালোচনা করছেন। অভিযোগ তুলেছেন, রুশ সেনাবাহিনী ও প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় তার বাহিনীকে প্রয়োজনীয় গোলাবারুদ সরবরাহ করছে না।