ঢাকা , মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ৩ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ওয়ানডে বিশ্বকাপ শুরু ৫ অক্টোবর, ফাইনাল ১৯ নভেম্বর

২০২৩ ওয়ানডে বিশ্বকাপ শুরু হতে যাচ্ছে সম্ভবত ৫ অক্টোবর, ফাইনাল হবে ১৯ নভেম্বর। ইএসপিএনক্রিকইনফোর খবরে জানা গেছে, আয়োজক ভারতের ক্রিকেট বোর্ড ফাইনালের ভেন্যুও চূড়ান্ত করেছে। সব মিলিয়ে অন্তত ১২টি ভেন্যুর তালিকা তৈরি করেছে তারা।

 

ফাইনাল হবে আহমেদাবাদে অবস্থিত বিশ্বের বৃহত্তম ক্রিকেট স্টেডিয়ামে। তিনটি নকআউটসহ ৪৮ ম্যাচের জন্য অন্য ভেন্যু হিসেবে বিবেচনা করা হচ্ছে বেঙ্গালুরু, চেন্নাই, দিল্লি, ধর্মশালা, গুয়াহাটি, হায়দরাবাদ, কলকাতা, লক্ষ্ণৌ, রাজকোট, ইন্দোর ও মুম্বাইকে।

ওই সময়ে ভারতের বিভিন্ন অঞ্চলে বর্ষাকাল হওয়ার কারণে এখনও ভেন্যু চূড়ান্ত হয়নি বলে জানা গেছে। কিংবা কোন শহরে দলগুলো ক্যাম্প করবে তাও ঠিক হয়নি।

সাধারণত বিশ্বকাপ শুরুর অন্তত এক বছর আগেই সূচি চূড়ান্ত হয়। কিন্তু এবার ভারত সরকারের কাছ থেকে কয়েকটি ইস্যুতে ক্লিয়ারেন্স লাগছে বিধায় অপেক্ষায় থাকতে হচ্ছে। একটি গুরুত্বপূর্ণ ইস্যু হলো পাকিস্তান দলের ভিসা ক্লিয়ারেন্স। ২০১৩ সাল থেকে ভারতে তারা কোনও আইসিসি ইভেন্টে খেলেনি।

 

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

কামাল হোসাইন

হ্যালো আমি কামাল হোসাইন, আমি গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করছি। ২০১৭ সাল থেকে এই পত্রিকার সাথে কাজ করছি। এভাবে এখানে আপনার প্রতিনিধিদের সম্পর্কে কিছু লিখতে পারবেন।

ওয়ানডে বিশ্বকাপ শুরু ৫ অক্টোবর, ফাইনাল ১৯ নভেম্বর

আপডেট সময় ০৩:৪৫:৪৬ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২২ মার্চ ২০২৩

২০২৩ ওয়ানডে বিশ্বকাপ শুরু হতে যাচ্ছে সম্ভবত ৫ অক্টোবর, ফাইনাল হবে ১৯ নভেম্বর। ইএসপিএনক্রিকইনফোর খবরে জানা গেছে, আয়োজক ভারতের ক্রিকেট বোর্ড ফাইনালের ভেন্যুও চূড়ান্ত করেছে। সব মিলিয়ে অন্তত ১২টি ভেন্যুর তালিকা তৈরি করেছে তারা।

 

ফাইনাল হবে আহমেদাবাদে অবস্থিত বিশ্বের বৃহত্তম ক্রিকেট স্টেডিয়ামে। তিনটি নকআউটসহ ৪৮ ম্যাচের জন্য অন্য ভেন্যু হিসেবে বিবেচনা করা হচ্ছে বেঙ্গালুরু, চেন্নাই, দিল্লি, ধর্মশালা, গুয়াহাটি, হায়দরাবাদ, কলকাতা, লক্ষ্ণৌ, রাজকোট, ইন্দোর ও মুম্বাইকে।

ওই সময়ে ভারতের বিভিন্ন অঞ্চলে বর্ষাকাল হওয়ার কারণে এখনও ভেন্যু চূড়ান্ত হয়নি বলে জানা গেছে। কিংবা কোন শহরে দলগুলো ক্যাম্প করবে তাও ঠিক হয়নি।

সাধারণত বিশ্বকাপ শুরুর অন্তত এক বছর আগেই সূচি চূড়ান্ত হয়। কিন্তু এবার ভারত সরকারের কাছ থেকে কয়েকটি ইস্যুতে ক্লিয়ারেন্স লাগছে বিধায় অপেক্ষায় থাকতে হচ্ছে। একটি গুরুত্বপূর্ণ ইস্যু হলো পাকিস্তান দলের ভিসা ক্লিয়ারেন্স। ২০১৩ সাল থেকে ভারতে তারা কোনও আইসিসি ইভেন্টে খেলেনি।