ঢাকা , শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ৬ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ওবায়দুল কাদের বক্তব্য দেওয়ার সময় ভেঙে পড়লো ছাত্রলীগের মঞ্চ

ছাত্রলীগের ৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে শোভাযাত্রার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তব্য দিতে মঞ্চে ওঠেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। এ সময় হঠাৎ মঞ্চ ভেঙে পড়ে। এতে নিচে পড়ে যান কাদেরসহ ছাত্রলীগের সাবেক ও বর্তমান নেতাকর্মীরা।

শুক্রবার (৬ জানুয়ারি) বিকাল ৪টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কলা ভবনের সামনে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় ছাত্রলীগের সাবেক পাঁচ কেন্দ্রীয় নেতা আহত হন বলে জানা যায়। মঞ্চের ধারণক্ষমতার বাইরে সাবেক-বর্তমান নেতাকর্মীরা ওঠায় মঞ্চটি ভেঙে পড়েছে বলে জানা গেছে।

মঞ্চে থাকা ওবায়দুল কাদের পরে ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, ‘এই যে নেতাদের মঞ্চে ওঠা, এত নেতা আমাদের দরকার নেই। স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ার জন্য, স্মার্ট কর্মী দরকার। যেকোনও মঞ্চে গেলে সামনের লোকের চেয়ে মঞ্চের লোক বেশি। এত নেতা কেন? নেতা উৎপাদনের এত বড় কারখানা আমাদের দরকার নেই। কর্মী উৎপাদনের কারখানা চাই! সেটাই হোক ছাত্রলীগ!’

এ বিষয়ে ডিএমপির রমনা বিভাগের উপ-কমিশনার (ডিসি) মো. শহিদুল্লাহ লেন, ‘তেমন কোনও বড় ধরনের দুর্ঘটনা নয় এটি। স্বাভাবিক ঘটনা। মঞ্চে অতিরিক্ত লোক ওঠার কারণে মঞ্চটি ভেঙে পড়ে। অনেকে আহত হয়েছেন, তবে খুবই সামান্য। একটা মঞ্চ ভেঙে পড়লে লোকজন ব্যথা পাবেই। অনেকের পায়ে একটু খোঁচা লেগেছে।

তিনি আর বলেন, ‘আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের মঞ্চে ছিলেন। মঞ্চে উনার চারপাশে লোকজন ছিল। তেমন কোনও ব্যথা তিনি পাননি। পায়ে সামান্য ব্যথা পেয়েছেন।’

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

কামাল হোসাইন

হ্যালো আমি কামাল হোসাইন, আমি গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করছি। ২০১৭ সাল থেকে এই পত্রিকার সাথে কাজ করছি। এভাবে এখানে আপনার প্রতিনিধিদের সম্পর্কে কিছু লিখতে পারবেন।

ওবায়দুল কাদের বক্তব্য দেওয়ার সময় ভেঙে পড়লো ছাত্রলীগের মঞ্চ

আপডেট সময় ০৩:৫৩:৩২ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ৭ জানুয়ারী ২০২৩

ছাত্রলীগের ৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে শোভাযাত্রার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তব্য দিতে মঞ্চে ওঠেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। এ সময় হঠাৎ মঞ্চ ভেঙে পড়ে। এতে নিচে পড়ে যান কাদেরসহ ছাত্রলীগের সাবেক ও বর্তমান নেতাকর্মীরা।

শুক্রবার (৬ জানুয়ারি) বিকাল ৪টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কলা ভবনের সামনে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় ছাত্রলীগের সাবেক পাঁচ কেন্দ্রীয় নেতা আহত হন বলে জানা যায়। মঞ্চের ধারণক্ষমতার বাইরে সাবেক-বর্তমান নেতাকর্মীরা ওঠায় মঞ্চটি ভেঙে পড়েছে বলে জানা গেছে।

মঞ্চে থাকা ওবায়দুল কাদের পরে ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, ‘এই যে নেতাদের মঞ্চে ওঠা, এত নেতা আমাদের দরকার নেই। স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ার জন্য, স্মার্ট কর্মী দরকার। যেকোনও মঞ্চে গেলে সামনের লোকের চেয়ে মঞ্চের লোক বেশি। এত নেতা কেন? নেতা উৎপাদনের এত বড় কারখানা আমাদের দরকার নেই। কর্মী উৎপাদনের কারখানা চাই! সেটাই হোক ছাত্রলীগ!’

এ বিষয়ে ডিএমপির রমনা বিভাগের উপ-কমিশনার (ডিসি) মো. শহিদুল্লাহ লেন, ‘তেমন কোনও বড় ধরনের দুর্ঘটনা নয় এটি। স্বাভাবিক ঘটনা। মঞ্চে অতিরিক্ত লোক ওঠার কারণে মঞ্চটি ভেঙে পড়ে। অনেকে আহত হয়েছেন, তবে খুবই সামান্য। একটা মঞ্চ ভেঙে পড়লে লোকজন ব্যথা পাবেই। অনেকের পায়ে একটু খোঁচা লেগেছে।

তিনি আর বলেন, ‘আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের মঞ্চে ছিলেন। মঞ্চে উনার চারপাশে লোকজন ছিল। তেমন কোনও ব্যথা তিনি পাননি। পায়ে সামান্য ব্যথা পেয়েছেন।’