ঢাকা , শনিবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২৩, ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

ইমরান খানের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা

পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও বিরোধী দল পিটিআই নেতা ইমরান খানের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছে দেশটির নির্বাচন কমিশন। অবমাননার এক মামলায় ইমরান খানসহ তার দলের শীর্ষ নেতাদের বিরুদ্ধে এই পরোয়ানা জারি করা হয়। ভারতীয় বার্তা সংস্থা প্রেস ট্রাস্ট ইন্ডিয়া এ খবর জানিয়েছে।

পাকিস্তানের নির্বাচন কমিশন এবং প্রধান নির্বাচন কমিশনার সিকান্দার সুলতান রাজার বিরুদ্ধে পিটিআই নেতাদের এক বিবৃতির ঘটনায় এই মামলা দায়ের করা হয়েছে।

নির্বাচন কমিশনের চার সদস্যের বেঞ্চ এই পরোয়ানা জারি করে। এই বেঞ্চের নেতৃত্বে রয়েছেন নিসার দুরানি। ইমরান খান ছাড়াও ফাওয়াদ চৌধুরী ও আসাদ উমরের বিরুদ্ধে এই পরোয়ানা জারি করা হয়েছে।

গত বছর আগস্ট ও সেপ্টেম্বরে পিটিআই নেতাদের নোটিশ দিয়েছিল নির্বাচন কমিশন। পিটিআই নেতারা একাধিকবার নির্বাচন কমিশনের বিরুদ্ধে পাকিস্তান মুসলিম লিগ (নওয়াজ)-এর পক্ষে পক্ষপাতিত্বের অভিযোগ করে আসছিলেন।

আগের শুনানিতে নির্বাচন কমিশন পিটিআই নেতাদের বেঞ্চে হাজির হওয়ার শেষ সুযোগ দিয়েছিল।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

কামাল হোসাইন

হ্যালো আমি কামাল হোসাইন, আমি গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করছি। ২০১৭ সাল থেকে এই পত্রিকার সাথে কাজ করছি। এভাবে এখানে আপনার প্রতিনিধিদের সম্পর্কে কিছু লিখতে পারবেন।
জনপ্রিয় সংবাদ

ইমরান খানের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা

আপডেট সময় ০৪:৩৮:৩৫ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১১ জানুয়ারী ২০২৩

পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও বিরোধী দল পিটিআই নেতা ইমরান খানের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছে দেশটির নির্বাচন কমিশন। অবমাননার এক মামলায় ইমরান খানসহ তার দলের শীর্ষ নেতাদের বিরুদ্ধে এই পরোয়ানা জারি করা হয়। ভারতীয় বার্তা সংস্থা প্রেস ট্রাস্ট ইন্ডিয়া এ খবর জানিয়েছে।

পাকিস্তানের নির্বাচন কমিশন এবং প্রধান নির্বাচন কমিশনার সিকান্দার সুলতান রাজার বিরুদ্ধে পিটিআই নেতাদের এক বিবৃতির ঘটনায় এই মামলা দায়ের করা হয়েছে।

নির্বাচন কমিশনের চার সদস্যের বেঞ্চ এই পরোয়ানা জারি করে। এই বেঞ্চের নেতৃত্বে রয়েছেন নিসার দুরানি। ইমরান খান ছাড়াও ফাওয়াদ চৌধুরী ও আসাদ উমরের বিরুদ্ধে এই পরোয়ানা জারি করা হয়েছে।

গত বছর আগস্ট ও সেপ্টেম্বরে পিটিআই নেতাদের নোটিশ দিয়েছিল নির্বাচন কমিশন। পিটিআই নেতারা একাধিকবার নির্বাচন কমিশনের বিরুদ্ধে পাকিস্তান মুসলিম লিগ (নওয়াজ)-এর পক্ষে পক্ষপাতিত্বের অভিযোগ করে আসছিলেন।

আগের শুনানিতে নির্বাচন কমিশন পিটিআই নেতাদের বেঞ্চে হাজির হওয়ার শেষ সুযোগ দিয়েছিল।