ঢাকা , শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ৬ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

আমি কথার সাথে কাজের মিল রাখতে জানিঃ মাকসুদ হোসেন

বন্দর প্রতিনিধিঃ আসন্ন বন্দর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনকে সামনে রেখে অত্র উপজেলার কলাগাছিয়া ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের কল্যান্দীতে স্থানীয়দের আয়োজনে (১ মার্চ) শুক্রবার বাদ আসর উঠান বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। উক্ত উঠান বৈঠকে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মুছাপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও আসন্ন বন্দর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী মোঃ মাকসুদ হোসেন উপস্থিতদের উদ্দেশ্যে বলেন, ‘আপনাদের ব্যাপক উপস্থিতি আমাকে আনন্দিত করেছে। যদি নির্বাচিত হই তাহলে নিয়মিত আসা যাওয়া থাকবে। আপনাদের বিভিন্ন সমস্যাগুলো দেখবো ও সমাধানে সর্বোচ্চ প্রচেষ্টা চালাবো। আপনাদের যাতে সেবা করতে পারি সে সুযোগ আপনারা দিন। ইনশাআল্লাহ বন্দরের যে কোন উন্নয়ণমূলক কাজই করতে পারবো কিন্তু সেজন্য আপনারা আমাকে নির্বাচিত করতে হবে। আমি বিভিন্ন জায়গায় যাচ্ছি ও বিভিন্ন কর্মসূচি করছি বিধায় আপনারা অনুভব করছেন উপজেলা নির্বাচন এসেছে। তাই অন্য প্রার্থীদেরকেও মাঠে আসতে অনুরোধ করবো। আমি কথার সাথে কাজের মিল রাখতে জানি তাই উন্নয়নের স্বার্থে আমাকে নির্বাচিত করুন’। স্থানীয় পঞ্চায়েত কমিটির সাধারণ সম্পাদক আশরাফ হোসেন বাচ্চুর সভাপতিত্বে সমাজসেবক কামাল হোসেন, ফয়েজ আহম্মেদ, মোবারক হোসেন, দেলোয়ার হোসেন, জসীম উদ্দিন, মমিন, মানিক উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন। উক্ত উঠান বৈঠকে স্থানীয় ওলামায়ে কেরামগণ, গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গরা ও স্থানীয় অসংখ্য নারী-পুরুষরা উপস্থিত ছিলেন।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

কামাল হোসাইন

হ্যালো আমি কামাল হোসাইন, আমি গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করছি। ২০১৭ সাল থেকে এই পত্রিকার সাথে কাজ করছি। এভাবে এখানে আপনার প্রতিনিধিদের সম্পর্কে কিছু লিখতে পারবেন।

আমি কথার সাথে কাজের মিল রাখতে জানিঃ মাকসুদ হোসেন

আপডেট সময় ০৩:৩০:৪৬ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২ মার্চ ২০২৪

বন্দর প্রতিনিধিঃ আসন্ন বন্দর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনকে সামনে রেখে অত্র উপজেলার কলাগাছিয়া ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের কল্যান্দীতে স্থানীয়দের আয়োজনে (১ মার্চ) শুক্রবার বাদ আসর উঠান বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। উক্ত উঠান বৈঠকে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মুছাপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও আসন্ন বন্দর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী মোঃ মাকসুদ হোসেন উপস্থিতদের উদ্দেশ্যে বলেন, ‘আপনাদের ব্যাপক উপস্থিতি আমাকে আনন্দিত করেছে। যদি নির্বাচিত হই তাহলে নিয়মিত আসা যাওয়া থাকবে। আপনাদের বিভিন্ন সমস্যাগুলো দেখবো ও সমাধানে সর্বোচ্চ প্রচেষ্টা চালাবো। আপনাদের যাতে সেবা করতে পারি সে সুযোগ আপনারা দিন। ইনশাআল্লাহ বন্দরের যে কোন উন্নয়ণমূলক কাজই করতে পারবো কিন্তু সেজন্য আপনারা আমাকে নির্বাচিত করতে হবে। আমি বিভিন্ন জায়গায় যাচ্ছি ও বিভিন্ন কর্মসূচি করছি বিধায় আপনারা অনুভব করছেন উপজেলা নির্বাচন এসেছে। তাই অন্য প্রার্থীদেরকেও মাঠে আসতে অনুরোধ করবো। আমি কথার সাথে কাজের মিল রাখতে জানি তাই উন্নয়নের স্বার্থে আমাকে নির্বাচিত করুন’। স্থানীয় পঞ্চায়েত কমিটির সাধারণ সম্পাদক আশরাফ হোসেন বাচ্চুর সভাপতিত্বে সমাজসেবক কামাল হোসেন, ফয়েজ আহম্মেদ, মোবারক হোসেন, দেলোয়ার হোসেন, জসীম উদ্দিন, মমিন, মানিক উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন। উক্ত উঠান বৈঠকে স্থানীয় ওলামায়ে কেরামগণ, গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গরা ও স্থানীয় অসংখ্য নারী-পুরুষরা উপস্থিত ছিলেন।