ঢাকা , বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

আদানি থেকে বাংলাদেশে বিদ্যুৎ আসা শুরু

ভারতের বিদ্যুৎকেন্দ্র আদানি থেকে বাংলাদেশে বিদ্যুৎ সরবরাহ শুরু হয়েছে। সব ধরনের প্রস্তুতি শেষে বৃহস্পতিবার (৯ মার্চ) সন্ধ্যা ৭টা ৩৮ মিনিটে বিদ্যুৎ সরবরাহ শুরু করে আদানি। মোট ২৫ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ সরবরাহ করবে বিদ্যুৎকেন্দ্রটি।

পিজিসিবির তথ্য কর্মকর্তা এবিএম বদরুদ্দোজা সুমন বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

তিনি বলেন, ‘সন্ধ্যা সাতটা ৩৮ মিনিটে বাংলাদেশের সঙ্গে বিদ্যুৎ সংযোগ শুরু করে আদানি।’

জানতে চাইলে আদানি পাওয়ারের বাংলাদেশের এক কর্মকর্তা বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘আপাতত ২৫ মেগাওয়াট যাচ্ছে। ধীরে ধীরে এই বিদ্যুৎ সরবরাহ বাড়বে।’ সব মিলিয়ে ৭৪৬ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ বাংলাদেশের সঞ্চালন লাইনে দেওয়া হবে বলেও তিনি জানান।

এদিকে বিদ্যুৎ বিভাগ থেকে রাত ৯টার দিকে জানানো হয়, ভারতের ঝাড়খন্ডের আদানি বিদ্যুৎকেন্দ্রের ইউনিট-১ আজ ৯ মার্চ সন্ধ্যা ৭টা ৩৮ মিনিটে বাংলাদেশ গ্রিডের সঙ্গে সিন্ক্রোনাইজ করে পরীক্ষামূলকভাবে চালু করা হয়েছে। এই কেন্দ্রের বিদ্যুৎ সঞ্চালনের জন্য পিজিসিবি চাঁপাইনবাবগঞ্জের সীমান্তবর্তী মনাকষা থেকে রহনপুর হয়ে বগুড়া পর্যন্ত ১৩৪ কিলোমিটার দীর্ঘ ৪০০ কেভি বিদ্যুৎ সঞ্চালন লাইন এবং বগুড়ায় ৪০০/২৩০ কেভি গ্রিড উপকেন্দ্র নির্মাণ করেছে। আজ রাত ৯টা নাগাদ নবনির্মিত লাইন ও গ্রিড উপকেন্দ্রের মাধ্যমে জাতীয় গ্রিডে বিদ্যুৎ সঞ্চালনের পরিমাণ ২৫ থেকে বেড়ে ৫০ মেগাওয়াট হবে।

প্রসঙ্গত, বিদ্যুৎ ক্রয়চুক্তির অধীনে কয়লা আমদানির মূল্য কমাতে আলোচনার জন্য আদানি পাওয়ার লিমিটেডকে চিঠি দিয়েছে বাংলাদেশ। এই চিঠির পরিপ্রেক্ষিতে গত মাসে আদানির একটি দল ঢাকায় এসে একদিনের আলোচনা শেষ করে ভারতে ফিরে যান। তবে দামের বিষয়টি সে সভায় চূড়ান্ত হয়নি বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো জানায়।

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ২০১৫ সালের জুনে প্রথমবার বাংলাদেশ সফর করেন। তখন ভারতের সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের জন্য সাড়ে ৪ বিলিয়ন ডলারের চুক্তি সই হয়। এই চুক্তির ধারাবাহিকতায় আদানির সঙ্গে বিদ্যুৎ ক্রয়চুক্তি করে বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড (পিডিবি)।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

কামাল হোসাইন

হ্যালো আমি কামাল হোসাইন, আমি গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করছি। ২০১৭ সাল থেকে এই পত্রিকার সাথে কাজ করছি। এভাবে এখানে আপনার প্রতিনিধিদের সম্পর্কে কিছু লিখতে পারবেন।
জনপ্রিয় সংবাদ

আদানি থেকে বাংলাদেশে বিদ্যুৎ আসা শুরু

আপডেট সময় ০৪:০৫:১৭ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১০ মার্চ ২০২৩

ভারতের বিদ্যুৎকেন্দ্র আদানি থেকে বাংলাদেশে বিদ্যুৎ সরবরাহ শুরু হয়েছে। সব ধরনের প্রস্তুতি শেষে বৃহস্পতিবার (৯ মার্চ) সন্ধ্যা ৭টা ৩৮ মিনিটে বিদ্যুৎ সরবরাহ শুরু করে আদানি। মোট ২৫ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ সরবরাহ করবে বিদ্যুৎকেন্দ্রটি।

পিজিসিবির তথ্য কর্মকর্তা এবিএম বদরুদ্দোজা সুমন বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

তিনি বলেন, ‘সন্ধ্যা সাতটা ৩৮ মিনিটে বাংলাদেশের সঙ্গে বিদ্যুৎ সংযোগ শুরু করে আদানি।’

জানতে চাইলে আদানি পাওয়ারের বাংলাদেশের এক কর্মকর্তা বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘আপাতত ২৫ মেগাওয়াট যাচ্ছে। ধীরে ধীরে এই বিদ্যুৎ সরবরাহ বাড়বে।’ সব মিলিয়ে ৭৪৬ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ বাংলাদেশের সঞ্চালন লাইনে দেওয়া হবে বলেও তিনি জানান।

এদিকে বিদ্যুৎ বিভাগ থেকে রাত ৯টার দিকে জানানো হয়, ভারতের ঝাড়খন্ডের আদানি বিদ্যুৎকেন্দ্রের ইউনিট-১ আজ ৯ মার্চ সন্ধ্যা ৭টা ৩৮ মিনিটে বাংলাদেশ গ্রিডের সঙ্গে সিন্ক্রোনাইজ করে পরীক্ষামূলকভাবে চালু করা হয়েছে। এই কেন্দ্রের বিদ্যুৎ সঞ্চালনের জন্য পিজিসিবি চাঁপাইনবাবগঞ্জের সীমান্তবর্তী মনাকষা থেকে রহনপুর হয়ে বগুড়া পর্যন্ত ১৩৪ কিলোমিটার দীর্ঘ ৪০০ কেভি বিদ্যুৎ সঞ্চালন লাইন এবং বগুড়ায় ৪০০/২৩০ কেভি গ্রিড উপকেন্দ্র নির্মাণ করেছে। আজ রাত ৯টা নাগাদ নবনির্মিত লাইন ও গ্রিড উপকেন্দ্রের মাধ্যমে জাতীয় গ্রিডে বিদ্যুৎ সঞ্চালনের পরিমাণ ২৫ থেকে বেড়ে ৫০ মেগাওয়াট হবে।

প্রসঙ্গত, বিদ্যুৎ ক্রয়চুক্তির অধীনে কয়লা আমদানির মূল্য কমাতে আলোচনার জন্য আদানি পাওয়ার লিমিটেডকে চিঠি দিয়েছে বাংলাদেশ। এই চিঠির পরিপ্রেক্ষিতে গত মাসে আদানির একটি দল ঢাকায় এসে একদিনের আলোচনা শেষ করে ভারতে ফিরে যান। তবে দামের বিষয়টি সে সভায় চূড়ান্ত হয়নি বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো জানায়।

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ২০১৫ সালের জুনে প্রথমবার বাংলাদেশ সফর করেন। তখন ভারতের সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের জন্য সাড়ে ৪ বিলিয়ন ডলারের চুক্তি সই হয়। এই চুক্তির ধারাবাহিকতায় আদানির সঙ্গে বিদ্যুৎ ক্রয়চুক্তি করে বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড (পিডিবি)।