ঢাকা , শনিবার, ২২ জুন ২০২৪, ৮ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

অটোরিকশা চার্জ দিতে গিয়ে প্রাণ গেলো চালকের

শরীয়তপুরে অটোরিকশা চার্জ দিতে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে আসাদুজ্জামান খাঁ (২৬) নামে এক অটোরিকশা চালকের মৃত্যু হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২ মে) ভোরে সদর উপজেলার আংগারিয়া ইউনিয়নের সিঙ্গারিয়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত আসাদুজ্জামান খাঁ একই এলাকার চাঁন খাঁর ছেলে।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, আসাদুজ্জামান খাঁ ছিলেন পরিবারের একমাত্র উপার্জনক্ষম ব্যক্তি। তিনি দীর্ঘদিন ধরে অটোরিকশা চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করে আসছেন। প্রতিদিনের মতো বৃহস্পতিবার রাতে একটি ট্রিপ নিয়ে থানায় গিয়েছিলেন তিনি। পরে সেখান থেকে ভোরে বাসায় ফেরেন। এ সময় অটোরিকশাটি গ্যারেজে চার্জ দিতে গেলে বিদ্যুতায়িত হন। দীর্ঘসময় পার হলেও গ্যারেজ থেকে বের না হওয়ায় পরিবারের সদস্যরা গিয়ে তাকে বৈদ্যুতিক তারের সংস্পর্শে দেখতে পান। পরে মেইন সুইস বন্ধ করে তাকে দ্রুত উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

নিহতের চাচাতো ভাই আরিফ বলেন, আসাদের অটোরিকশা চালানোর টাকা দিয়ে পুরো পরিবার চলতো। ও দিন-রাত এক করে অটোরিকশা চালাতো। গতকাল ভোরে থানা থেকে যাত্রী নিয়ে বাসায় আসে। এরপরই এই ঘটনা ঘটে।

শরীয়তপুর সদর হাসপাতালের চিকিৎসা কর্মকর্তা অমিত সেনগুপ্ত বলেন, সকালে আসাদুজ্জামান নামের এক যুবককে নিয়ে আসা হয়েছিল। তবে আমরা তাকে মৃত অবস্থায় পেয়েছি। বিষয়টি আমরা থানা পুলিশকে অবগত করেছি।

পালং মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মেজবাহ উদ্দিন আহম্মেদ বলেন, বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে আসাদুজ্জামান নামের এক অটোচালকের মৃত্যুর বিষয়ে জানতে পেরেছি। এ বিষয়ে পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ট্যাগস
আপলোডকারীর তথ্য

কামাল হোসাইন

হ্যালো আমি কামাল হোসাইন, আমি গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করছি। ২০১৭ সাল থেকে এই পত্রিকার সাথে কাজ করছি। এভাবে এখানে আপনার প্রতিনিধিদের সম্পর্কে কিছু লিখতে পারবেন।

অটোরিকশা চার্জ দিতে গিয়ে প্রাণ গেলো চালকের

আপডেট সময় ০৩:৪৫:১০ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ৩ মে ২০২৪

শরীয়তপুরে অটোরিকশা চার্জ দিতে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে আসাদুজ্জামান খাঁ (২৬) নামে এক অটোরিকশা চালকের মৃত্যু হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২ মে) ভোরে সদর উপজেলার আংগারিয়া ইউনিয়নের সিঙ্গারিয়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত আসাদুজ্জামান খাঁ একই এলাকার চাঁন খাঁর ছেলে।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, আসাদুজ্জামান খাঁ ছিলেন পরিবারের একমাত্র উপার্জনক্ষম ব্যক্তি। তিনি দীর্ঘদিন ধরে অটোরিকশা চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করে আসছেন। প্রতিদিনের মতো বৃহস্পতিবার রাতে একটি ট্রিপ নিয়ে থানায় গিয়েছিলেন তিনি। পরে সেখান থেকে ভোরে বাসায় ফেরেন। এ সময় অটোরিকশাটি গ্যারেজে চার্জ দিতে গেলে বিদ্যুতায়িত হন। দীর্ঘসময় পার হলেও গ্যারেজ থেকে বের না হওয়ায় পরিবারের সদস্যরা গিয়ে তাকে বৈদ্যুতিক তারের সংস্পর্শে দেখতে পান। পরে মেইন সুইস বন্ধ করে তাকে দ্রুত উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

নিহতের চাচাতো ভাই আরিফ বলেন, আসাদের অটোরিকশা চালানোর টাকা দিয়ে পুরো পরিবার চলতো। ও দিন-রাত এক করে অটোরিকশা চালাতো। গতকাল ভোরে থানা থেকে যাত্রী নিয়ে বাসায় আসে। এরপরই এই ঘটনা ঘটে।

শরীয়তপুর সদর হাসপাতালের চিকিৎসা কর্মকর্তা অমিত সেনগুপ্ত বলেন, সকালে আসাদুজ্জামান নামের এক যুবককে নিয়ে আসা হয়েছিল। তবে আমরা তাকে মৃত অবস্থায় পেয়েছি। বিষয়টি আমরা থানা পুলিশকে অবগত করেছি।

পালং মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মেজবাহ উদ্দিন আহম্মেদ বলেন, বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে আসাদুজ্জামান নামের এক অটোচালকের মৃত্যুর বিষয়ে জানতে পেরেছি। এ বিষয়ে পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।